ভোট পাবে না বলেই বিএনপি নির্বাচন চায় না- প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত: ০৪-১২-২০২২ ১৭:৪১

আপডেট: ০৪-১২-২০২২ ২১:১৮

নিজস্ব প্রতিবেদক: আওয়ামী লীগ সভানেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ভোট চুরি আর মানুষ খুন বিএনপি-জামায়াতের রাজনীতি। দেশের মানুষ তাদেরকে আর ভোট দেবে না। তাই তারা নির্বাচন চায় না, সরকার উৎখাত করে ক্ষমতায় যেতে চায়। আজ (রোববার) চট্টগ্রামের পলো গ্রাউন্ডে জেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত বিশাল জনসভায় এসব কথা বলেন তিনি। খুনিরা যাতে আর কোনদিন ক্ষমতায় আসতে না পারে, সেজন্য দেশবাসীকে সতর্ক থাকার আহ্বান জানান আওয়ামী লীগ সভানেত্রী। 

চট্টগ্রাম শহরের প্রাণকেন্দ্রে অবস্থিত পলো রাউন্ডে চট্টগ্রাম মহানগর উত্তর-দক্ষিণ শাখা আওয়ামী লীগ আয়োজিত জনসভা পরিণত হয় জনসমুদ্রে। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে যোগ দেন আওয়ামী লীগ সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। দীর্ঘ দশ বছরেরও বেশি সময় পর চট্টগ্রামে জনসভায় যোগ দেন তিনি। মাঠে জায়গা না পেয়ে বাইরের বিভিন্ন সড়ক ও ফাঁকা স্থানেও জনতার ঢল নামে। দুপুরের পর জনসভা মঞ্চে ওঠেন দলীয় প্রধান শেখ হাসিনা। 

গত ১৩ বছরে প্রায় ১ লক্ষ ২৩ হাজার কোটি টাকা ব্যয় করে বন্দর নগরী চট্টগ্রামের নানা উন্নয়ন করেছে সরকার। জনসভায় দেয়া বক্তব্যে সেসব উন্নয়নের কথা তুলে ধরে শেখ হাসিনা বলেন, আওয়ামী লীগ সরকার দেশের উন্নয়নে কাজ করে।

১০ই ডিসেম্বর ঢাকায় বিএনপির সমাবেশ নিয়ে তিনি বলেন, বিজয়ের মাসে তারা মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের শক্তিকে ক্ষমতাচ্যুত করার স্বপ্ন দেখছে। ভোটার বিহীন নির্বাচন করা বিএনপিকে জনগণ কখনোই ভোট দেবে না বলে জানান আওয়ামী লীগ সভানেত্রী।

তারেক রহমান বিদেশে বসে দেশে বোমাবাজি ও খুন খারাপির নেতৃত্ব দিচ্ছে জানিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, বিএনপি শুধু মানুষ হত্যা করতে পারে। মিথ্যাচার করতে পারে। তাদের কথায় বিভ্রান্ত না হওয়ার আহŸান জানান আওয়ামী লীগ সভাপতি।

দেশের অর্থনীতি, রিজার্ভ ও ব্যাংকে রাখা টাকা নিয়ে আওয়ামী লীগ সভানেত্রী বলেন, গুজব রটিয়ে মানুষের সর্বনাশ করাই বিএনপির চরিত্র। জনসভার শুরুতে চট্টগ্রামের উন্নয়নে ২৯টি প্রকল্পের উদ্বোধন ও ৬টি প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

MRP/sharif