শিনজো অ্যাবেকে শেষ বিদায়

প্রকাশিত: ২৭-০৯-২০২২ ২৩:০৬

আপডেট: ২৭-০৯-২০২২ ২৩:০৬

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ফুলেল শ্রদ্ধায় রাষ্ট্রীয়ভাবে শিনজো অ্যাবেকে শেষ বিদায় জানালো জাপান সরকার। কঠোর নিরাপত্তার মধ্যে রাষ্ট্রীয় এই শেষ বিদায়ী আয়োজনে উপস্থিত ছিলেন প্রায় অর্ধশত দেশের রাষ্ট্র ও সরকার প্রধানসহ সাতশ’ বিদেশী অতিথি। তবে জাপানের সাবেক প্রধানমন্ত্রীকে শ্রদ্ধা জানানোর এই আয়োজনে বিপুল পরিমাণ অর্থ ব্যয়ের অভিযোগে বিক্ষোভ করেছে দেশটির অনেক নাগরিক । 

জাপানের প্রয়াত সাবেক প্রধানমন্ত্রী শিনজো অ্যাবের শেষকৃত্য ধর্মীয় রীতি মেনে আগেই সম্পন্ন হয়েছে। তবে রাষ্ট্রীয় আনুষ্ঠানিকতায় মঙ্গলবার (২৭ সেপ্টেম্বর) ১৯ বার তোপধ্বনি আর প্রার্থনার মধ্য দিয়ে শিনজো অ্যাবেকে শেষ বিদায় জানিয়েছে জাপানিরা। স্থানীয় সময় দুপুরে রাষ্ট্রীয় এই আয়োজন শুরু হয়। সেসময় অ্যাবের দেহভস্ম নিয়ে রাজধানী টোকিওর নিপ্পন বুডোকান হলে উপস্থিত হন তাঁর স্ত্রী আকি অ্যাবে। হলজুড়ে তখন সামরিক ব্যান্ডের সংগীত এবং গার্ড অব অনারের শব্দ প্রতিধ্বনিত হতে থাকে। 

অনুষ্ঠানের শুরুতেই শিনজো অ্যাবের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে নীরবতা পালন করা হয়। পরে তাঁর জীবন ও রাজনৈতিক আর্দশ নিয়ে আলোচনা করে দলীয় নেতারা। হলে রাখা কালো ফিতায় মোড়ানো অ্যাবের ছবিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান উপস্থিত সকলে। সাবেক প্রধানমন্ত্রীকে শ্রদ্ধা জানাতে নিপ্পন বুডোকান হলের বাইরে হাজির হয়েছিলো হাজারও মানুষ। অ্যাবের প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানায় তারা। 

জাপান সরকারের আমন্ত্রণে সাবেক প্রধানমন্ত্রীকে শ্রদ্ধা জানানো রাষ্ট্রীয় আয়োজনে যুক্তরাষ্ট্রের ভাইস প্রেসিডেন্ট কমলা হ্যারিস, ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী, অষ্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী অ্যান্থনি অ্যালবানিজসহ ৪৮ টি দেশের সাবেক ও বর্তমান সরকারপ্রধান ও প্রায় সাতশত বিদেশী অতিথি উপস্থিত হয়েছিলেন। আয়োজন ঘিরে টোকিও শহরের গুরুত্বপূর্ণ রাস্তাগুলোতে মোতায়েন করা হয়েছে ২০ হাজার নিরাপত্তাকর্মী। 

তবে জাপানে চরম মূল্যস্ফীতির মধ্যে জাকজমক ও ব্যয়বহুল এই অনুষ্ঠানের বিরোধীতা করে বিক্ষোভ করেছে অনেক নাগরিক। আজও অনুষ্ঠানস্থলের কাছাকাছি এলাকায় জড়ো হয়েছিল অনেক বিক্ষোভকারী।

 

shamima/sanchita