বিদ্যুৎ সাশ্রয়ে সরকারের এক গুচ্ছ সুপারিশ

প্রকাশিত: ০৭-০৭-২০২২ ১৬:১৩

আপডেট: ০৭-০৭-২০২২ ১৬:১৪

নিজস্ব প্রতিবেদক: বিদ্যুৎ সাশ্রয়ের জন্য সাপ্তাহিক কর্মঘণ্টা কমানো এবং ওয়ার্ক-ফ্রম-হোম বাস্তবায়ন করতে জনপ্রশাসন ও সংশ্লিষ্ট অন্যান্য মন্ত্রণালয়কে সুপারিশ করেছে বিদ্যুৎ ও জ্বালানি মন্ত্রণালয়। এছাড়া সরকারি অফিস সময় দুইঘন্টা কমানোর সুপারিশ করা হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার (৭ই জুলাই) প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা জানান প্রধানমন্ত্রীর জ্বালানি উপদেষ্টা তৌফিক ই ইলাহি চৌধুরী।

সুপারশিরগুলোর মধ্যে রয়েছে- বিদ্যুৎ সাশ্রয়ে অফিস সময় কমানো, সন্ধ্যা ৭টার পর সামাজিক অনুষ্ঠান না করা, সরকারি অফিসে এসি'র ব্যবহার কমানো, আলোকসজ্জা না করা ও বাসায় বসে অফিস করা। 

সভা শেষে তৌফিক-ই-এলাহী চৌধুরী বলেন, 'অফিসের সময় সংশোধন করা গেলে যেমন ৯টা থেকে ৩টা করা যায় কিনা বা ঘরে বসে কাজ করতে পারি কিনা, এটি সরকারের উচ্চপর্যায় চিন্তা করতে পারে। এতে বিদ্যুৎ সাশ্রয় হবে। বিদ্যুৎ ব্যবহারে সাশ্রয় হওয়ার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, আমাদের উৎপাদন ক্ষমতা আছে। দাম না বাড়লে আমরা সবাইকে দিতে পারতাম। প্রধানমন্ত্রী দামের বিষয়ে সহনশীল হয়েছেন। সাবসিডি দেওয়া হচ্ছে। কোথায় যাবে কেউ বলতে পারে না'।

বিয়ে ও সামাজিক অনুষ্ঠান সন্ধ্যা ৭টার মধ্যে শেষ করার সুপারিশ করা হয়েছে সভায়। এছাড়া সারা দেশে এসির ব্যবহার ২৫ ডিগ্রি সেলসিয়াসের নিচে যেন না নামে সেই ব্যবস্থা নেওয়ার সুপারিশও করা হয়েছে সভায়। সেপ্টেম্বরের আগে সংকট উত্তরণের সম্ভাবনা কম বলে সভায় জানানো হয়। 

সভাশেষে জানানো হয়, দেশের বিদ্যুৎ উৎপাদন সাড়ে ১২ হাজার মেগাওয়াট। আর চাহিদা ১৪ হাজার ৫০০ মেগাওয়াট।  লোডশেডিং ৫০০ মেগাওয়াটের। তাই বিদ্যুতের ব্যবহার কমাতে হবে।

উল্লেখ্য, রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের কারণে বিশ্বব্যাপী জ্বালানির দাম ক্রমাগত বেড়ে যাওয়ায় সরকার লোডশেডিং ও বিদ্যুৎ উৎপাদন সীমিত করতে বাধ্য হয়েছে। এমন পরিস্থিতিতে জনগণকে সহযোগিতা করার আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

MHS/sharif