রাজধানীর পশুর হাটগুলোতে বেচাকেনা কম

প্রকাশিত: ০৭-০৭-২০২২ ১৪:৪৮

আপডেট: ০৭-০৭-২০২২ ২০:০৯

নিজস্ব প্রতিবেদক: কোরবানির জন্য রাজধানীর হাটগুলোতে পর্যাপ্ত সংখ্যক পশু থাকলেও সেই তুলনায় বেচাকেনা কম। গত দু’তিন বছরের মধ্যে এবার পশুর দাম বেশি বলে জানিয়েছেন ক্রেতারা। বাড়তি দামের কারণে এখনো হাট জমে ওঠেনি। তবে বেপারিরা আশাবাদী, শেষ দু’দিন বেচাকেনা বাড়বে। এদিকে, পশুর হাটগুলোতে সব ধরণের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা হয়েছে বলে জানিয়েছে র‌্যাব।

কোরবানির ঈদকে সামনে রেখে রাজধানীতে স্থায়ী-অস্থায়ী ২১টি পশুর হাট বসেছে। এসব হাটে আজ দ্বিতীয় দিনের মতো পশু বেচাকেনা চলছে। কিন্তু ঈদের মাত্র তিনদিন বাকি থাকলেও এখনো আশানুরূপ গরু বিক্রি হচ্ছে না। হাটে ক্রেতারা পশুর দাম যাচাই-বাছাই করছেন, তবে দাম ও সাধ্যের মধ্যে না মেলায় গরু না কিনেই ফিরে যাচ্ছেন কেউ কেউ। ক্রেতাদের অভিযোগ, বাজারে প্রচুর গরু থাকলেও বেপারিরা দাম হাঁকছেন বেশি।

দেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে রাজধানীর পশুর হাটে এসেছে নানা জাতের গরু ছাগল। বেপারিরা বলছেন, ন্যায্য দামই চাইছেন তারা। ইজারাদাররা বলছেন, রাজধানীর বাসাবাড়িতে গরু রাখার জায়গা না থাকায়, বেশিরভাগ ক্রেতা শেষ সময়ে এসে কোরবানির পশু কিনবেন।

এদিকে সকালে গাবতলী পশুর হাটের নিরাপত্তা ব্যবস্থা পর্যবেক্ষণ করে র‌্যাব। এ সময় র‌্যাবের মুখপাত্র খন্দকার আল মঈন জানান, হাটে সব ধরণের নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। বৃহস্পতিবার গাবতলীর স্থায়ী পশুর হাটে ফরিদপুর থেকে আনা বড় আকারের একটি গরু হিটস্ট্রোকে মারা গেছে।

SMS/sharif