টুঙ্গিপাড়া যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত: ০৩-০৭-২০২২ ১৯:৫১

আপডেট: ০৪-০৭-২০২২ ১০:৪১

নিজস্ব প্রতিবেদক:  আগামীকাল (সোমবার) পদ্মা সেতু হয়ে সড়কপথে পরিবারের সদস্যদের নিয়ে গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সেতু উদ্বোধনের পর টুঙ্গিপাড়ায় এটিই তার প্রথম সফর। প্রধানমন্ত্রীর আগমন কেন্দ্র করে শহরজুড়ে নিরাপত্তাব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে।

গোপালগঞ্জের জেলা প্রশাসক শাহিদা সুলতানা প্রধানমন্ত্রীর এ সফরের বিষয়টি নিশ্চিত করেন। তিনি জানালেন, গত ২৫শে জুন দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের ২১ জেলার স্বপ্নের পদ্মা সেতু উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। পদ্মা সেতু উদ্বোধনের পর ব্যক্তিগত সফরে টুঙ্গিপাড়ায় আসছেন তিনি।

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় জানিয়েছে, সোমবার (চৌঠা জুলাই) সকাল ৮টায় গণভবন থেকে টুঙ্গিপাড়ার উদ্দেশে যাত্রা শুরু করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বেলা ১১টায় প্রধানমন্ত্রী টুঙ্গিপাড়ায় পৌঁছাবেন। পরে তিনি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধিসৌধ বেদীতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে শ্রদ্ধা নিবেদন করবেন। প্রধানমন্ত্রী পরিবারের সদস্যদের নিয়ে বঙ্গবন্ধু ও তার পরিবারের শহীদ সদস্যদের রুহের মাগফিরাত কামনা করে ফাতেহাপাঠ ও বিশেষ মোনাজাতে অংশ নেবেন। বেলা ১১টা ৩৫ মিনিটে টুঙ্গিপাড়ায় বিভিন্ন সরকারি কর্মসূচিতে অংশগ্রহণ করবে। দুপুর ২টায় তিনি  টুঙ্গিপাড়া হতে ঢাকার উদ্দেশে যাত্রা করবেন। বিকেল ৫টায় তিনি ঢাকা পৌঁছাবেন। 

প্রধানমন্ত্রীর আগমন উপলক্ষে বঙ্গবন্ধুর সমাধিসৌধ চত্বরে শোভাবর্ধন ও মুকসুদপুর থেকে টুঙ্গিপাড়া পর্যন্ত সড়কের দুইপাশ পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন করা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সফর ঘিরে নেতাকর্মী ও এলাকাবাসীর মধ্যে আনন্দ-উদ্দীপনা বিরাজ করছে।

গোপালগঞ্জ সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. জাহিদ হোসেন বলেন, প্রধানমন্ত্রী সড়কপথে গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়া আসবেন। তার সফর উপলক্ষে সড়ক বিভাগের পক্ষ থেকে সড়কের জরুরি রক্ষণাবেক্ষণ কাজ করা হয়েছে। সড়কের পাশের জঙ্গল পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন করা হয়েছে। সড়কের উভয়পাশের গাছে রং করে শোভাবর্ধন করা হয়েছে।

গোপালগঞ্জের জেলা প্রশাসক শাহিদা সুলতানা বলেন, প্রধানমন্ত্রীর আগমন উপলক্ষে এরই মধ্যে যাবতীয় প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর সফর নির্বিঘœ করতে ব্যাপক প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। পুলিশ প্রশাসনের পক্ষে তিন স্তরের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে পোশাকে ও সাদা পোশাকে বিপুল সংখ্যক আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য নিয়োজিত থাকবেন। এছাড়া প্রধানমন্ত্রীর আগমন পথেও পুলিশ সদস্যরা দায়িত্ব পালন করবেন।

/sanchita