'দক্ষিণাঞ্চলে বিশ্বমানের অলিম্পিক ভিলেজ হবে'

প্রকাশিত: ২৬-০৬-২০২২ ১৮:০৭

আপডেট: ২৬-০৬-২০২২ ১৮:০৭

মুন্সীগঞ্জ সংবাদদাতা: পদ্মা সেতু উদ্বোধনের ফলে দেশের যোগাযোগ ও অর্থনীতিতে সম্ভাবনার নতুন দ্বার উন্মোচিত হয়েছে বলে জানিয়েছেন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল। আজ (রোববার) দুপুরে প্রকল্প এলাকায় ক্ষতিগ্রস্ত ব্যক্তিদের আয়বর্ধনমূলক প্রশিক্ষণ কোর্সের সমাপনী অনুষ্ঠানে তিনি একথা বলেন। যুব উন্নয়ন অধিদপ্তর ও পদ্মা বহুমুখী সেতু নির্মাণ প্রকল্পের যৌথ উদ্যোগে এই প্রশিক্ষণ কোর্সের আয়োজন করা হয়।

এসময় প্রতিমন্ত্রী আরও বলেন, পদ্মা সেতুর কারণে দক্ষিণাঞ্চলের মানুষের জীবনযাত্রার মান উন্নত হবে। এ অঞ্চলে বিশ্বমানের অলিম্পিক ভিলেজ, স্পোর্টস সিটি, বেনারসি তাতপল্লী, আইকন টাওয়ারসহ বড় বড় প্রকল্প গ্রহণের উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। পাশাপাশি স্থানীয় জনগণও নানামুখী বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠান গড়ে তুলছে। এতে এলাকার মানুষের জন্য নতুন কর্মসংস্থান সৃষ্টি হবে বলে জানান যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী। 

এসময় মুন্সীগঞ্জে ৩ হাজার ১২৪ জনকে প্রশিক্ষণ শেষে বিভিন্ন ট্রেডে সনদ প্রদান করা হয়। এছাড়া ৫ জনকে নগদ ৩৭ হাজার টাকা করে নগদ ভাতা দেয়া হয়। যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের আওতায় দুই ধাপে প্রায় পাঁচ হাজার মানুষকে ১২টি ট্রেডে আধুনিক ও সময়োপযোগী নানা প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়েছে।

প্রশিক্ষণপ্রাপ্তদের আত্মকর্মসংস্থান সৃষ্টির লক্ষ্য সহজ শর্তে ঋণ সুবিধাসহ প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে। মুন্সীগঞ্জ জেলা প্রশাসক কাজী নাহিদ রসূলের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি যুব  ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের সচিব মেজবাহ উদ্দিন, যুব উন্নয়ন পরিচালক (প্রশিক্ষণ) খন্দকার মো. রুহুল আমিন ও পদ্মা বহুমূখী নির্মাণ প্রকল্প নির্বাহী প্রকৌশলী মো. রজব আলী উপস্থিত ছিলেন।

FR/sharif