আসামে বন্যা পরিস্থিতির আরও অবনতি

প্রকাশিত: ২১-০৬-২০২২ ১৫:৪১

আপডেট: ২১-০৬-২০২২ ১৫:৪১

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ভারতের উত্তর-পূর্বাঞ্চলের বন্যা পরিস্থিতির আরও অবনতি হয়েছে। প্রবল বৃষ্টিতে সৃষ্ট বন্যা ও ভূমিধসে আসাম, মেঘালয় এবং অরুণাচল প্রদেশে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৩১ জনে। পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যেও বন্যায় ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ বেড়েছে। এদিকে, যুক্তরাষ্ট্রের নিউ জার্সির দাবানল ছড়িয়ে পড়েছে ১২ হাজার একর এলাকাজুড়ে। তবে পশ্চিম ইউরোপে তাপপ্রবাহ কিছুটা কমেছে।

গত কয়েকদিনের টানা বৃষ্টিতে ভারতের আসাম রাজ্যের ৩৫টি জেলার ৩৪টিই এখন বন্যার পানিতে ভাসছে। একরাতেই ব্রহ্মপুত্র ও বরাক নদীর পানি বেড়ে ৫ লাখ মানুষ নতুন করে পানিবন্দি হয়ে পড়েছে। এনিয়ে রাজ্যটিতে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত প্রায় ৪৭ লাখ মানুষ। এরমধ্যে ২৩ লাখের বেশি মানুষকে ৮১০টি আশ্রয়কেন্দ্রে সরিয়ে নেয়া হয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় আসামে পানিতে ডুবে ও ভূমিধসে মারা গেছে অন্তত ১১ জন। এনিয়ে মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৮২ জনে।

কয়েকদিনের টানা বৃষ্টিতে একইচিত্র মেঘালয় রাজ্যে। রাজ্যটির সোনাপুর টানেলে প্রবেশ করেছে বন্যার পানি। ভূমিধসে বিপর্যস্ত সড়ক যোগাযোগ। অরুণাচলেও ভারী বৃষ্টিতে সৃষ্ট ভূমিধসে মারা গেছে একজন। নিখোঁজ রয়েছে অন্তত তিনজন। তাদের সন্ধানে কাজ করছে উদ্ধারকারী দল।

পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যেও বন্যা পরিস্থিতির অবনতি হয়েছে। আলিপুর, জলপাইগুড়ি ও কোচবিহার জেলার বহু এলাকা এখন পানির নিচে। তলিয়ে গেছে ফসলি জমি, ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বহু ঘর-বাড়ি ও সড়ক। উঁচু এলাকায় আশ্রয় নিয়েছেন অনেকে।

অন্যদিকে, দাবানলে জ্বলছে যুক্তরাষ্ট্রের নিউ জার্সির দক্ষিণাঞ্চল। ১২ হাজার একর এলাকাজুড়ে ছড়িয়ে পড়েছে আগুন। দমকল বাহিনী জানিয়েছে, ৭০ শতাংশ এলাকার দাবানল নিয়ন্ত্রণে এনেছেন তারা। তবে পশ্চিম ইউরোপে তাপপ্রবাহ কিছুটা কমেছে। এছাড়া আগামী সপ্তাহের শুরুতে তীব্র তাপদাহের সতর্কতা জারি করা হয়েছে আইবেরিয়া উপদ্বীপে।

aleya/sharif