বন্যার্তদের জন্য প্রধানমন্ত্রীর প্রার্থনা

প্রকাশিত: ২১-০৬-২০২২ ১৫:৩৮

আপডেট: ২১-০৬-২০২২ ২০:০৭

নিজস্ব প্রতিবেদক: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সিলেটে হযরত শাহ জালাল (রাঃ) ও হযরত শাহ পরান (রাঃ)- এর মাজার জিয়ারত করে বন্যা কবলিত এলাকার জনগণের জন্য মহান আল্লাহতায়ালা'র নিকট দোয়া ও মোনাজাত করেছেন। আজ মঙ্গলবার (২১শে জুন) তিন জেলার বন্যায় ক্ষতিগ্রস্তদের দেখে তিন মাজার জিয়ারত করতে যান। 

এর আগে সকালে হেলিকপ্টারে করে নেত্রকোণা, সুনামগঞ্জ ও সিলেটের বন্যা দুর্গত এলাকার পরিস্থিতি ঘুরে দেখেন। পরে সিলেট সার্কিট হাউজে স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতাদের এবং স্থানীয় প্রশাসনকে বন্যা মোকাবেলায় প্রয়োজনীয় দিক নির্দেশনা দেন তিনি। সভায় প্রধানমন্ত্রীর সফরসঙ্গী, স্থানীয় প্রশাসনের কর্মকর্তা ও স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

No description available.

এবারের বন্যা অনেক দেরিতে এসেছে জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ৯৮ সালের সেই দীর্ঘস্থায়ী বন্যার পর। ৫৫ ও ৫৬ সালে দীর্ঘস্থায়ী বন্যার পর। এবার সিলেট বিভাগে পরপর তিনবার বন্যা হয়েছে। এটা অস্বাভাবিক পরিস্থিতি। প্রতিবার নতুন নুতুন জায়গায় প্লাবিত হয়েছে। আমাদের যে ফসল বা যা কিছু ক্ষতি হয়েছে আমরা গতকালকেও মিটিংয়ে এ বিষয়ে ব্যবস্থা নিতে বিস্তারিত আলোচনা করেছি। এসময় বৃষ্টির পানি ধরে রাখার পরামর্শ দেন প্রধানমন্ত্রী।

বন্যার সময় নিজের অভিজ্ঞতা তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, এর আগে নৌকায় করে আমাকে বিভিন্ন জনসভায় যেতে হয়েছে। কানাইঘাট, শাল্লা নৌকায় গেছি। সেসব অভিজ্ঞতা রয়েছে। তাহেরপুরে তো জনসভা মঞ্চেই পানি হয়ে গিয়েছিল। নৌকায় করে গিয়ে মিটিং করেছিলাম।

MHS/sharif