মানিকগঞ্জের চরাঞ্চলে বাদামের বাম্পার ফলন

প্রকাশিত: ১৮-০৬-২০২২ ০৯:৪৫

আপডেট: ১৮-০৬-২০২২ ১৫:০৮

মানিকগঞ্জ সংবাদদাতা: মানিকগঞ্জে পদ্মা ও যমুনার চরাঞ্চলে এ বছর বাদামের বাম্পার ফলন হয়েছে। অনুকুল আবহাওয়া ও বাদাম চাষের উপযোগী মাটির কারণে চরাঞ্চলে ব্যাপকভাবে আবাদ হয়েছে চিনা বাদামের। কৃষক-কৃষাণীরা এখন ব্যস্ত মাঠ থেকে বাদাম সংগ্রহ ও বিক্রয়ের কাজে। দাম ভালো পাওয়ায় খুশি তারা। 

মানিকগঞ্জের শিবালয়, হরিরামপুর ও দৌলতপুর উপজেলার পদ্মা ও যমুনা চরাঞ্চলে এবছর চিনা বাদামের ব্যাপক আবাদ হয়েছে। বীজ বপনের পর বৃষ্টি হওয়ায় ফলনও হয়েছে ভাল। কৃষক ও কৃষাণীরা এখন মাঠ থেকে বাদাম সংগ্রহ ও বিক্রির কাজে ব্যস্ত। 

কৃষকরা জানান, এক বিঘা জমিতে বাদাম চাষে তিন হাজার টাকা খরচ হয়। আর খরচ বাদে প্রতি বিঘায় উৎপাদিত বাদাম বিক্রি হচ্ছে আট থেকে দশ হাজার টাকা। এবার বাদামের সাথে আমন ধান ও তিল মিলে তিন ফসল ঘরে তুলছে তারা।  

উৎপাদন খরচ কম ও লাভ বেশি হওয়ায় বাদাম চাষ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে এ অঞ্চলে। কৃষি কর্মকর্তা জানালেন, চরাঞ্চলের বেলে ও বেলে-দোঁয়াশ মাটি বাদাম চাষের জন্য বেশ উপযোগী। এজন্য  কৃষকদের বাদাম চাষে পরামর্শ দেয়া হচ্ছে। 

কৃষি বিভাগের তথ্যমতে, মানিকগঞ্জে বাদাম চাষের লক্ষমাত্রা ধরা হয়েছিল দুই হাজার  পাঁচশ পঞ্চাশ হেক্টর, আর আবাদ হয়েছে দুই হাজার  ৮শ ৭৭ হেক্টর জমিতে।

MHS/ramen