শ্রীলংকার হাতে মাত্র ৪ দিনের জ্বালানি মজুদ

প্রকাশিত: ১৭-০৬-২০২২ ১৬:১৩

আপডেট: ১৭-০৬-২০২২ ১৬:১৩

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: আর মাত্র চারদিন চলার মতো জ্বালানী আছে শ্রীলংকায়। দেশটিতে এই মুহূর্তে যে পরিমাণ পেট্রোল ও ডিজেলের মজুত রয়েছে, তা দিয়ে ২১ জুন পর্যন্ত চলা যাবে বলে বলে জানিয়েছেন জ্বালানী মন্ত্রী কাঞ্চনা উইজেসেকারা। বৃহস্পতিবার এক সংবাদ সম্মেলনে এ আশংকার কথা জানান তিনি। 

ইতোমধ্যে বাকিতে ৭০ কোটি ২৫ লাখ ডলার মূল্যের জ্বালানী কেনায় নতুন করে বাকিতে কেনার সম্ভব না বলে জানিয়েছে দেশটির জ্বালানীমন্ত্রী। ১৯৪৮ সালে যুক্তরাজ্যের কাছ থেকে স্বাধীনতা লাভের পর ইতিহাসের সবথেকে ভয়াবহ অর্থনৈতিক সংকট পার করছে শ্রীলঙ্কা। ভারত মহাসাগরের ছোট এই দ্বীপরাষ্ট্রটিতে বৈদেশিক ম্দ্রুার রিজার্ভ না থাকায় জ্বালানি, খাবার এবং ওষুধের মত অতি জরুরি পণ্যও আমদানি করতে পারছে না দেশটির সরকার।

তেল কিনেতে প্রেট্রোল পাম্পগুলোতে কয়েক কিলোমিটারের লম্বা লাইন দেখা গেছে গ্রাহকদের। সংকট সমাধানে ভারত সরকারের একটি ব্যাংক থেকে ৫০ কোটি ডলার পাওয়ার অপেক্ষায় রয়েছে দেশটি। এর মধ্যে জ্বালানি সংকট তীব্র হয়ে উঠেছে শ্রীলঙ্কায়। ডিজেলের সরবরাহ অনিয়মিত হয়ে পড়ায় প্রয়োজনীয় বিদ্যুৎ উৎপাদন করতে পারছে না বিদ্যুৎ উৎপাদন কেন্দ্রগুলো। এছাড়া পেট্রোল, ডিজেল, রান্নার গ্যাস কিনতে লোকজনকে ঘণ্টার পর ঘণ্টা লাইনে দাঁড়িয়ে থাকতে হচ্ছে।

তবে আশার কথাও জানিয়েছেন কাঞ্চনা উইজেসেকারা। সংকট সমাধানে ভারত সরকারের কাছ থেকে ৫০ কোটি ডলার পাওয়ার অপেক্ষায় রয়েছে দেশটি।

shamima/sharif