পশু খাদ্যের দাম বাড়ায় উদ্বিগ্ন খামারিরা

প্রকাশিত: ০১-০৬-২০২২ ০৮:০১

আপডেট: ০১-০৬-২০২২ ১০:৩৬

ফরিদপুর সংবাদদাতা: গবাদি পশুর খাদ্যের দাম বেড়ে যাওয়ায় দুশ্চিন্তায় পড়েছেন ফরিদপুরের খামারিরা। দুধ উৎপাদন ও পশু মোটা-তাজা করতে গিয়ে খরচ বেড়ে যাওয়ায় বিপাকে তারা। পশু পালনে লাভ না হবার আশঙ্কা করছেন জেলার খামারিরা। খামার টিকিয়ে রাখতে তারা সরকারের সহযোগিতা চেয়েছেন।

ফরিদপুর জেলার ৯ উপজেলায় প্রায় দশ হাজার ছোট-বড় পশুর খামার রয়েছে। কোরবানীর ঈদকে সামনে রেখে দেশীয় পদ্ধতিতে এসব খামারে পশু মোটাতাজা করণের কাজে ব্যস্ত সময় পার করছেন খামারিরা।

গমের ভুষি, খৈল, খড়, কাঁচা ঘাসসহ অন্যান্য খাবার খাওয়ানো হচ্ছে গরুকে। কিন্তু সম্প্রতি গো-খাদ্যের দাম বেড়ে যাওয়ায় হতাশ হয়ে পড়েছেন অনেকে। সঠিকভাবে গরুর খাবার দিতে পারছেন না; ফলে অনেক পশু রোগাক্রান্ত হয়ে পড়ছে।

করোনাকালের ক্ষতি পুষিয়ে নিতে এবছর ধারদেনা করে খামারিরা পশু পালন করছেন। কিন্তু আসছে কোরবানীর ঈদে পশুর পর্যাপ্ত দাম না পেলে, ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারেন বলে শঙ্কায় তারা। এ ব্যাপারে সরকারি সহযোগিতা চান তারা।

গো খাদ্যের দাম বেড়ে যাওয়ায় বেশি করে কাঁচা ঘাস খাওয়ানোর পরামর্শ দিয়েছেন, জেলা প্রাণি সম্পদ কর্মকর্তা নুরুল্লাহ্ মো: আহসান। ঈদুল আজহাকে সামনে রেখে ফরিদপুরের খামারগুলোতে অর্ধলক্ষাধিক পশু পালন করছেন খামারিরা।

afroza/sharif