নারায়ণগঞ্জে জমজমাট তৈরি পোশাকের বাজার

প্রকাশিত: ১৭-০৪-২০২২ ০৯:৫১

আপডেট: ১৮-০৪-২০২২ ১০:১৩

নারায়ণগঞ্জ সংবাদদাতা: ঈদের আগে নারায়ণগঞ্জের পাইকারী ব্যবসাকেন্দ্রে তৈরি পোশাকের বেচাকেনা জমে উঠেছে। দিনরাত ব্যস্ত সময় পার করছেন ব্যবসায়ী ও কারখানার দর্জিরা। করোনা অতিমারিতে ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ীরা এবার ঘুরে দাঁড়াতে পারবেন বলে আশা করছেন। চাইছেন সরকারি সহযোগিতা।

নারায়ণগঞ্জ শহরের দেওভোগ এলাকায় শহীদ সোহরাওয়ার্দী মার্কেট, হাকিম মার্কেট ও জমির মার্কেটসহ ন’টি মার্কেটের সমন্বয়ে পাঁচ শতাধিক দোকান নিয়ে গড়ে উঠেছে তৈরি পোশাকের পাইকারী ব্যবসাকেন্দ্র। যেখানে কাজ করেন প্রায় ছ’হাজার কর্মী।

এখানে রঙ-বেরঙের বাহারি নকশার পোশাক তৈরি করা হয় সব বয়সীদের মানুষের জন্য। সূতি, জর্জেটসহ নানা ধরনের ফ্রগ, থ্রি-পিস স্কার্ট, লেহেঙ্গা, প্যান্ট, শার্ট ও পাঞ্জাবিসহ সব ধরণের পোশাক তৈরি করে পাইকারী দরে বিক্রি করা হয় এই মার্কেটে। এবার রমজানের শুরু থেকেই এখানে জমে উঠেছে বেচাকেনা।

ব্যবসায়ীরা জানান, করোনায় গত দু’বছরে বেচাকেনা কম হওয়ায় অনেকেই প্ুঁজি হারিয়েছেন। তাই সরকারি প্রণোদনা ও সহজ শর্তে ঋণের দাবি জানালেন তারা। রাজধানীসহ দেশের প্রায় সব জেলার মানুষের চাহিদা পূরণ করছে এখানকার তৈরি পোশাক। বিভিন্ন জেলা থেকে ব্যবসায়ীরা এসে স্বল্প মূল্যে কিনছেন পোশাক।

বাজার মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মো. বাবুল দেওয়ান জানালেন, পাইকারী এই ব্যবসাকেন্দ্র গড়ে উঠেছে রেলওয়ের পরিত্যাক্ত জমির উপর। সরকারের কাছে এই জায়গার স্থায়ী বরাদ্দ চান তারা। ঈদ উপলক্ষে এখানে সকাল ন’টা থেকে রাত এগারোটা পর্যন্ত সুলভ মূল্যে তৈরি পোশাক বেচাকেনা হচ্ছে।

MNU/prabir