‘উড়ন্ত গাড়ির’ অনুমতি দিলো স্লোভাকিয়া

প্রকাশিত: ২৯-০১-২০২২ ১৪:১৩

আপডেট: ১৪-০২-২০২২ ১০:১৬

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: সড়কেও চলবে, আকাশেও উড়বে- এমন একটি বাহন নিয়ে গবেষকরা দীর্ঘদিন ধরেই পরীক্ষা-নিরীক্ষা চালাচ্ছিলেন। অবশেষে তারা সাফল্যের দেখা পেয়েছেন। পরীক্ষা নিরীক্ষার পর এই ‘উড়ন্ত গাড়ির’ চালুর প্রথম অনুমতি দিলো ইউরোপের দেশ স্লোভাকিয়া। আগামী এক বছরের মধ্যে বাণিজ্যিকভাবে এই ‘এয়ারকার’ বাজারজাত করার ঘোষণা দিয়েছে স্লোভাকিয়ার গাড়ি নির্মাতা প্রতিষ্ঠান- ক্লেইন ভিশন। 

দেখতে খানিকটা গাড়ির মত, খানিকটা হেলিকপ্টার বা ছোট জেট উড়োজাহাজের মত, এই বাহনটির নাম এয়ারকার। সড়কে চলবে আর দশটা সাধারণ গাড়ির মতো। আবার, হুট করে আকাশেও উড়বে।

এমন দ্বৈত বৈশিষ্ট্রের গাড়ি তৈরি করেছে স্লোভাকিয়ার হাইব্রিড গাড়ি নির্মাতা প্রতিষ্ঠান- ক্লেইন ভিশন। এ বাহনটির সুইচে টিপ দিলে তিন মিনিটেরও কম সময়ে গাড়ি থেকে পরিণত হয় উড়োজাহাজে। 

আকাশে ওড়ার জন্য মাত্র ৩০০ মিটার রানওয়ে দরকার এয়ারকারের। আকাশে ঘণ্টায় ১৭০ কিলোমিটার বেগে গাড়িটি যেতে পারে এক হাজার কিলোমিটার দূরত্ব পর্যন্ত। আর সর্বোচ্চ ১৮ হাজার ফুট উচ্চতায় উঠতে পারে। এই এয়ারকারে বিএমডব্লিউ ইঞ্জিন ব্যবহার করা হয়েছে। যেকোনো গ্যাস স্টেশনে বিক্রি হওয়া সাধারণ জ্বালানিতেই এটি চালানো যাবে। 

নির্মাতা প্রতিষ্ঠান ক্লেইন ভিশন জানিয়েছে, পরীক্ষার অংশ হিসেবে টানা ৭০ ঘণ্টা উড়েছে গাড়িটি। দুই শতাধিকবার আকাশে ওড়া ও অবতরণ করার পর গাড়িটি চালুর অনুমোদন দিয়েছে স্লোভাকিয়া সরকার। 

আগামী এক বছরের মধ্যে বাণিজ্যিকভাবে চালুর আগে এয়ারকারকে ইউরোপীয় ইউনিয়নের এভিয়েশন সেফটি এজেন্সির অনুমোদন পেতে হবে।  

/admiin