ট্রেনের চালকদের কর্মবিরতির হুমকি

প্রকাশিত: ২৯-০১-২০২২ ১৩:৩৭

আপডেট: ১৪-০২-২০২২ ১০:১৬

তারেক সিকদার: বাড়তি ডিউটির জন্য পাওয়া অতিরিক্ত যে বেতন ভাতা দেয়া হতো, তা বন্ধ করে দেওয়ায় সারাদেশে ট্রেন চলাচল বন্ধ করে দেয়ার হুমকি দিয়েছেন রেলওয়ের রানিং স্টাফরা। ৩০ জানুয়ারির মধ্যে সমস্যার সমাধান না হলে ৩১ জানুয়ারি থেকে তারা কর্মবিরতিতে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন। এদিকে, রেলের চালক আর রানিং স্টাফ সংকটে এরইমধ্যে বিভিন্ন রুটে হঠাৎ বন্ধ রাখতে হচ্ছে ট্রেন চলাচল। 

রেলওয়ে কর্মচারীদের দেড়শ বছরের পুরানো বেতন কাঠামো পরিবর্তন করে মাইলেজ ও অতিরিক্ত পেনশন ভাতা থেকে বঞ্চিত করায় আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছেন রেলওয়ের চালক ও গার্ডরা। সমস্যা সমাধানে কর্তৃপক্ষের দ্বারস্থ হলেও কোন সুরাহা হয়নি এখনও।

রেলওয়েতে চালক ও গার্ড সংকটের কারণে নির্ধারিত ডিউটির চেয়ে বেশি সময় তাদের কাজ করতে হয়। আর বেশি সময়ের জন্য তাদের অতিরিক্ত ভাতাও দিতো সরকার। তবে গেল নভেম্বরে হঠাৎ অর্থ মন্ত্রণালয় এক প্রজ্ঞাপনের মাধ্যমে তাদের এ সুবিধা বন্ধ করে দেয়। এতে ক্ষুব্ধ হন রানিং স্টাফরা। 

রেলওয়ের তথ্য মতে, সারাদেশে ১ হাজার ৮শ’ ৭০ জন চালকের পদ থাকলেও কর্মরত আছেন মাত্র ১ হাজার ৭ জন। কম আছে ৮শ’ ৬৩ জন। আর ৫শ’ ৪৭ জন গার্ডের পদ থাকলেও কর্মরত আছেন মাত্র ৩শ’ ২৫ জন। ট্রেনের সংখ্যা বাড়ায় এ সংকট হয়েছে আরও তীব্র। নির্ধারিত সময়ের অন্তত দ্বিগুণ কাজ করতে হচ্ছে তাদের। এ সংকটের কারণে বুধবার থেকে বিভিন্ন রুটে বন্ধ হয়ে যাচ্ছে ট্রেন।

তাই দ্রুত সংকট সমাধানের আহ্বান জানিয়েছেন চালক ও গার্ড সমিতির নেতারা। তাদের অতিরিক্ত সময় কাজের জন্য যে বেতন-ভাতা ছিল, তা পুনরায় বহাল না করলে কর্মবিরতিতে যাওয়ার হুমকি দিয়েছেন তারা। 

এ নিয়ে কথা বলার জন্য রেলওয়ে কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করে সাড়া পাওয়া যায়নি।

 


 
 

/admiin