আশুলিয়ায় প্রবাসীর স্ত্রীকে শ্বাসরোধে হত্যা

প্রকাশিত: ০৯-১২-২০২১ ০৮:০৪

আপডেট: ২৫-০১-২০২২ ০৯:৫৮

সাভার সংবাদদাতা: আশুলিয়ায় পরকীয়ার সম্পর্কের জেরে কুয়েত প্রবাসীর স্ত্রী মারুফা (২৮) বেগমকে শ্বাসরোধে হত্যার অভিযোগ উঠেছে প্রেমিকের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য পাঠিয়েছে পুলিশ। তবে ঘাতককে আটক করা সম্ভব হয়নি। বুধবার (০৮ই ডিসেম্বর) রাত ১০টার দিকে আশুলিয়ার নরসিংহপুর এলাকার ডেকো পোশাক কারখানার সামনের কুন্ড সরকারের মালিকানাধীন একটি বাড়ি থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

নিহত মারুফা পিরোজপুর জেলার মঠবাড়িয়া থানার জাটিবুনিয়া গ্রামের মোস্তফার মেয়ে। তার স্বামীর নাম আল-আমিন। আল-আমিন কুয়েত প্রবাসী বলে জানা গেছে। মারুফা স্থানীয় শারমিন গ্রুপের একটি কারখানায় চাকরি করতেন। তার একটি ১০ বছরের কন্যা ও ফাহিম নামের ৬ বছরের একটি সন্তান রয়েছে।

অভিযুক্ত পলাতক নাম হাসান খাঁ (৩০)। সম্পর্কে নিহতের দু:সম্পর্কের দেবর হয়। হাসান মিয়া বরগুনা জেলার পাথরঘাটা থানার লেমুয়া গ্রামের জাকির খাঁর ছেলে। তিনি প্রায়ই মারুফার বাসায় যাতায়াত করতেন।

পুলিশ জানায়, নিহতের স্বামী কুয়েত প্রবাসী। গত ৫ মাস আগে চাকরির জন্য এই এলাকায় আসেন। দুই মাস তার মামার সাথে থেকে তৃৃতীয় মাস থেকে আলাদা বাসা নেন। সেখানে মারুফার মামাতো দেবর হাসানের যাতায়াত ছিল। আমরা খবর পেয়ে নিহতের মরদেহ উদ্ধার করেছি। তার গলায় আঘাতের চিহ্ন রয়েছে।

প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে তাকে শ্বাসরোধ করে হত্য করা হয়েছে। গতরাতের কোন এক সময় তাকে হত্যা করা হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। আমরা হাসানকে আটকের চেষ্টা করছি। তাকে আটক করতে পারলেই মূল ঘটনা জানা যাবে। পরকীয়ার সম্পর্কের জের ধরে এই হত্যার ঘটনা ঘটেছে বলেও প্রাথমিক ভাবে ধারণা করছে পুলিশ।

/admiin