আফ্রিকা ভ্রমণে থাইল্যান্ড-অস্ট্রেলিয়ার নিষেধাজ্ঞা

প্রকাশিত: ২৮-১১-২০২১ ১৫:৩৪

আপডেট: ২৫-০১-২০২২ ১০:০৩

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: করোনার নতুন ধরন ওমিক্রন শনাক্তের পর দক্ষিণ আফ্রিকার দেশগুলোতে ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা দিচ্ছে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ। ইউরোপের পাশাপাশি দক্ষিণ আফ্রিকার কয়েকটি দেশের ওপর ভ্রমন নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে অস্ট্রেলিয়া ও থাইল্যান্ড। দক্ষিণ আফ্রিকার ৮টি দেশের ওপর থাইল্যান্ড ও ৯টি দেশের ওপর অস্ট্রেলিয়া নতুন করে বিধি-নিষেধ আরোপ করেছে।

ওমিক্রন আতঙ্কে এবার সব বিদেশি নাগরিকদের জন্য সীমান্ত নিষেধাজ্ঞা জারি করতে যাচ্ছে ইসরাইল। নতুন এই ধরনটির সংক্রমণ ঠেকাতে যুক্তরাজ্যের স্বাস্থ্য ব্যবস্থায় কড়াকাড়ি আরোপ করেছে দেশটির প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। বিমানবন্দরে বিদেশি যাত্রীদের করোনার পিসিআর পরীক্ষা বাধ্যতামূলক করা হয়েছে।

এক বিবৃতিতে বরিস জনসন জানান, বিদেশি যাত্রীরা যুক্তরাজ্যে প্রবেশের পরপরই তাদের পিসিআর টেস্ট করা হবে এবং করোনা রিপোর্ট নেগেটিভ না আসা পর্যন্ত আইসোলেশনে থাকতে হবে। এদিকে, ওমিক্রন ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কায় যুক্তরাষ্ট্রের নিউনিয়র্কে জরুরি অবস্থা ঘোষণা করা করেছে।

আগামী তেসরা ডিসেম্বর থেকে তা কার্যকর হবে। বহাল থাকবে ১৫ জানুয়ারি পর্যন্ত। এছাড়াও ওমিক্রন নিয়ে উদ্বেগের কারণে আগামী ৩০শে নভেম্বর সুইজারল্যান্ডের জেনেভায় অনুষ্ঠিতব্য বিশ্ব বাণিজ্য সংস্থার মন্ত্রী পর্যায়ের সম্মেলন স্থগিত করা হয়েছে।

/admiin