নারায়ণগঞ্জের হাসপাতালে সাধারণ রোগীদের চিকিৎসা শুরু

প্রকাশিত: ১৭-১১-২০২১ ০৮:৩৫

আপডেট: ২৫-০১-২০২২ ০৯:৫৮

নারায়ণগঞ্জ সংবাদদাতা: আবারও সাধারণ রোগীদের চিকিৎসা দেয়া শুরু করেছে নারায়ণগঞ্জের ৩শ শয্যা হাসপাতাল। করোনা রোগীদের চিকিৎসায় দেড়বছরেরও বেশি সময় হাসপাতালটিতে সাধারণ রোগীদের চিকিৎসা সেবা বন্ধ ছিলো। করোনার প্রকোপ কমায় আবারও সব ধরণের চিকিৎসা শুরু হওয়ায়, স্বস্তি ফিরেছে জেলার মানুষের মাঝে। তবে করোনা বিভাগ চালু থাকায়, জনবল সংকটে কিছুটা ভোগান্তি হচ্ছে বলে জানালেন হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

নারায়ণগঞ্জের অন্যতম স্বাস্থ্যসেবা প্রতিষ্ঠান ৩শ শয্যার এই হাসপাতালটি। ২০২০ সালের মার্চে দেশের প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হয় নারায়ণগঞ্জে। পরে করোনা রোগী শনাক্তে, নগরীর খানপুরে অবস্থিত হাসপাতালটিকে ১২০ শয্যার করোনা হাসপাতালে রূপান্তরিত করা হয়। আর হাসপাতালের বহির্বিভাগে চলে সাধারণ রোগীর চিকিৎসা। পরবর্তীতে সংক্রমণ বাড়ায় এটিকে ‘কোভিড ডেডিকেটেড হাসপাতাল ঘোষণা করে সরকার।

তবে বর্তমানে জেলায় করোনা সংক্রমণ নিুমুখী হওয়ায়, আবারও সাধারণ রোগীদের চিকিৎসা দেয়া শুরু হয়েছে হাসপাতালটিতে। জরুরি বিভাগসহ সব বিভাগে চলছে রোগী ভর্তি। এতে স্বস্তি ফিরেছে সবার মাঝে।

সাধারণ রোগীদের পাশাপাশি এই হাসপাতালে করোনার চিকিৎসা চালু থাকায়, খুশি টিকা নিতে আসা মানুষেরা।

তবে জনবল সংকটে একসাথে সকল চিকিৎসা দিতে গিয়ে হিমশিম খেতে হচ্ছে বলে জানালেন, হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসক।

জেলার সর্বসাধারণের স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিতে শিগগিরই প্রয়োজনীয় সংখ্যক ডাক্তার ও নার্স পাবার আশাবাদী তিনি।

/admiin