‘শেখ মুজিবের বিচার প্রহসন’ শিরোনামে কথিকা প্রচার

প্রকাশিত: ১১:২৫, ২৭ জুলাই ২০২১

আপডেট: ১১:৪৫, ২৭ জুলাই ২০২১

কাজী বাপ্পা: জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকীর বছর ছিল ২০২০। তাঁর শততম জন্মবার্ষিকীর দিন, ১৭ই মার্চ থেকে শুরু হয়েছে মুজিববর্ষ উদযাপন, যা চলছে এই স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীর বছরও। স্বাধীন বাংলাদেশ ও বঙ্গবন্ধু একাত্মা। তিনিই একাত্তরের ২৬শে মার্চ স্বাধীনতা ঘোষণা করেন। তাঁর ডাকেই মানুষ স্বাধীনতার জন্য সশস্ত্র যুদ্ধে ঝাপিয়ে পড়েছিল। শেখ মুজিবুর রহমানের বিরল ঐতিহাসিক নেতৃত্বের সেই উত্তাল আন্দোলন ও সশস্ত্র মুক্তিযুদ্ধের দিনগুলো নিয়ে মুজিববর্ষ ও স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীর বছরজুড়ে বৈশাখী সংবাদের বিশেষ ধারাবাহিক আয়োজন- যাঁর ডাকে বাংলাদেশ। আজ ৪’শ ৮৮ তম প্রতিবেদন।

একাত্তর সালের ২৬শে মার্চ প্রথম প্রহরে বাংলাদেশের স্বাধীনতা ঘোষণা করা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে গ্রেপ্তার করে দখলদার পাকিস্তানী সেনারা। তারপর বাঙ্গালি গণহত্যকারী দখলদার পাকিস্তানের প্রেসিডেন্ট ইয়াহিয়া খান মধ্য জুলাই থেকে সামরিক আইনে বিচারের নামে বঙ্গবন্ধু মুজিবকে হত্যার ষড়যন্ত্র করতে থাকেন। বিশ্বজুড়ে এর প্রতিবাদ শুরু হয়। 

১৯৭১ সালের ২৭শে জুলাই, বাংলাদেশের বন্ধু রাষ্ট্র ভারতের লোকসভায় দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী শরণ সিং ভাষণ দেন। বলেন, “অন্য একটি দেশের রাষ্ট্র প্রধানের বিচারের দায়িত্ব পাকিস্তান কোনভাবে নিজেদের হাতে নিতে পারে না। আমি জাতিসংঘের প্রতি আহŸান জানাচ্ছি, হস্তক্ষেপের মাধ্যমে বিষয়টির সুষ্ঠু সুরাহা করার।” (সূত্রঃ আনন্দবাজার পত্রিকা)

জার্মানীর চ্যন্সেলর উইলী ব্রান্ট বলেন, “এটি হবে পাকিস্তানের জন্য সর্বোচ্চ ভুল। রাজনৈতিক সুরাহার পরিবর্তে রাজনৈতিক হত্যা কখনও সমাধান ডেকে আনবে না।” (সূত্রঃ দি নিউইয়র্ক টাইমস)

একাত্তরের এদিন, স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্র থেকে ‘শেখ মুজিবের বিচার প্রহসন’ শিরোনামে বাংলাদেশের সাংবাদিক আব্দুল গাফফার চৌধুরী রচিত কথিকা প্রচারিত হয়। কথিকায় বলা হয়, “বাংলাদেশে অনেক মহান নেতা জন্মেছেন। দেশের জন্য তারা যথেষ্ঠ কষ্ট ভোগ করেছেন, নির্যাতন সহ্য করেছেন। তাঁরা সকলেই আমাদের শ্রদ্ধেয়। তবু একথা স্বীকার করতেই হবে, নির্যাতন বরণ ও নেতৃত্বদানের ক্ষেত্রে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব যুগসৃষ্টিকারী নেতা। ইয়াহিয়ার আগে আইয়ুব একবার তাঁর গলায় ফাঁসির রজ্জু পড়াতে চেয়েছিল, পারেনি। এখন আবার সেই ফাঁসির রজ্জু হাতে নিয়ে খুনী ইয়াহিয়া নতুন খুনের নেশায় মত্ত হয়েছে। শেখ মুজিবের অপরাধ তিনি বাংলাদেশকে ভালবাসেন।” (সূত্রঃ বাংলাদেশে স্বাধীনতা যুদ্ধ দলিলপত্র, পৃষ্ঠা- ২৬৪)

HIB/MSI

এই বিভাগের আরো খবর

শেখ মুজিবকে মুক্তি দিতে হবে- জাতিসংঘে ভারত

কাজী বাপ্পা: জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ...

বিস্তারিত
পাকিস্তান রক্ষার অঙ্গীকার রাজাকার গোলাম আযমের

কাজী বাপ্পা: জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ...

বিস্তারিত
বঙ্গবন্ধুর ভাষণই ছিলো রণাঙ্গনের শক্তি

গোলাম মোর্শেদ: সব ভেদাভেদ ভুলে দেশের...

বিস্তারিত
‌'বঙ্গবন্ধুর বিরল রাজনৈতিক গুণাবলী ছিলো'

গোলাম মোর্শেদ: সব ভেদাভেদ ভুলে দেশের...

বিস্তারিত
ন্যায়ের জন্য যুদ্ধ করছে বাঙালীরা

কাজী বাপ্পা: জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ...

বিস্তারিত
‘বঙ্গবন্ধু ছিলেন অনন্য’

বিউটি সমাদ্দার: সব ভেদাভেদ ভুলে দেশের...

বিস্তারিত
 ‘শেখ মুজিবের দেশে ফেরা নিয়ে উৎকণ্ঠা’ 

গোলাম মোর্শেদ: সব ভেদাভেদ ভুলে দেশের...

বিস্তারিত
জাতিসংঘে বাংলাদেশ পরিস্থিতি তুলে ধরে ভারত 

কাজী বাপ্পা: জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ...

বিস্তারিত
বঙ্গবন্ধুর ছিল দৃঢ় ব্যক্তিত্ব

বিউটি সমাদ্দার: সব ভেদাভেদ ভুলে দেশের...

বিস্তারিত
জাতিসংঘের অধিবেশনে বাংলাদেশের প্রতিনিধি

কাজী বাপ্পা: জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *