জিম্বাবুয়েতে হারলো বাংলাদেশ

প্রকাশিত: ০৮:০৪, ২৩ জুলাই ২০২১

আপডেট: ০৯:২০, ২৩ জুলাই ২০২১

ক্রীড়া ডেস্ক: টি-টোয়েন্টি সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে জয়ের জন্য জিম্বাবুয়ের দেয়া ১৬৭ রানের লক্ষ্য পেরুতে পারেনি বাংলাদেশ। হেরে গেছে ২৩ রানে। বড় টার্গেটে ব্যাটিং করতে নেমে তাসের ঘরের মতো ভেঙে পড়েছে বাংলাদেশের ব্যাটিং লাইনআপ। জয়ের জন্য ১৬৭ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে গুছিয়ে খেলতে পারেনি বাংলাদেশ।

দলের খাতায় ১৭ রান উঠতেই সাজঘরে ফিরে যান আগের ম্যাচের দুই হাফসেঞ্চুরিয়ান নাইম শেখ (৮ বলে ৫) আর সৌম্য সরকার (৭ বলে ৮)। ইনিংসের তৃতীয় ওভারে  ব্লেসিং মুজারাবানি বোল্ড করেন নাইমকে। তিন বল পর সৌম্য কভারে ক্যাচ দেন সিকান্দার রাজাকে। 

অভিজ্ঞ সাকিব আল হাসানও এদিন কার্যকর কোন ভূমিকা রাখতে পারেননি। ১০ বলে ১২ রান করে ওয়েলিংটন মাসাকাদজার বলে আউট হন তিনি। নবম ওভারে আবারো  আঘাত হানে মাসাকাদজা। ওভারের প্রথম বলেই লংঅনে তুলে দিয়ে মাহমুদউল্লাহ ফেরেন ৬ বলে ৪ রানে। দুই বল পর মাহেদি হাসান নিজের ১৫ রানে বিদায় নেন। 

বিপদ আরও বাড়ান নুরুল হাসান সোহান। তেন্দাই চাতারার শর্ট বলে তিনি ৮ বলে ৯ রান করে আউট হন। ১১ ওভার পার হতেই ৬৮ রানে ৬ উইকেট হারিয়ে পরাজয়ের শঙ্কায় ভুগতে থাকে বাংলাদেশ। 

এরপর অভিষিক্ত শামীম হোসেন পাটোয়ারী মাঠে নেমেই ঝড় তুলেছিলেন। কিন্তু তার ৩ চার, ২ ছক্কায় গড়া ১৩ বলে ২৯ রানের দারুণ ইনিংসটি দলের পরাজয়ের ব্যবধান কমানো ছাড়া কোনো কাজে আসেনি।

আফিফ হোসেন ধ্র“ব ২৫ বলে ২৪ রান করে চেষ্টা করেন জয়ের আশা বাঁচিয়ে রাখার। ১৫ বলে ১৯ করে আউট হন মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন। পরে তাসকিন আহমেদ (৫) বোল্ড হলে ইনিংসের এক বল বাকি থাকতে ১৪৩ রানে অলআউট হয় বাংলাদেশ। 
 

এর আগে, হারারে স্পোর্টস ক্লাব মাঠে টস জিতে আগে ব্যাট করতে নামে স্বাগতিকরা। ওয়েসলে মাধেভেরের ফিফটির সঙ্গে ডিও মেয়ার্সের ২৬ ও রায়ান বার্লের ৩৪ রানের উপর ভর করে নির্ধারিত ২০ ওভার শেষে ৬ উইকেট হারিয়ে ১৬৬ রান তোলে জিম্বাবুয়ে। এই ম্যাচ জিতে টেস্ট ও ওয়ানডের মতো টি-টোয়েন্টি সিরিজও জিততে বাংলাদেশের প্রয়োজন এখন ১৬৭ রান।

বাংলাদেশের হয়ে এদিন বোলাররা খুব বেশি সুবিধা করতে পারেননি। আসন্ন টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে এই ফরম্যাটে একাধিক সিরিজ থাকায় দলের প্রায় সব বোলারকে ঘুরিয়ে-ফিরিয়ে পরখ করে নিচ্ছেন টাইগার অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। আজ (শুক্রবার) সফরকারীদের হয়ে হাত ঘুরিয়েছেন ৭ জন। অভিষেকের স্বাদ পাওয়া তরুণ অলরাউন্ডার শামীম পাটোয়ারীও বল হাতে নিয়েছেন। তবে উইকেটের দেখা পাননি তিনি।

সফরকারীদের হয়ে ৪ ওভার বল করে ৩৬ রান দিয়ে সর্বোচ্চ ৩ উইকেট নেন পেসার শরিফুল ইসলাম। এ ছাড়া শেখ মেহেদী হাসান ও সাকিব আল হাসান ১টি করে উইকেট পান।

ব্যাটিংবান্ধব উইকেটে টস ভাগ্য কথা বলে স্বাগতিকদের পক্ষে। এতে আগে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নিতে দুবার ভাবেননি অধিনায়ক সিকেন্দার রাজা। তবে শুরুটা ভালো হয়নি তাদের। ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারের শেষ বলে ওপেনার তাদিওয়ানাশে মারুমানিকে ফেরান টাইগার স্পিনার শেখ মেহেদী। মারুমানি আউট হন ৩ রান করে। এরপর ওয়েসলে মাধেভেরে ও রেগিস চাকাভার ব্যাটে ঘুরে দাঁড়ানোর ইঙ্গিত দেয় জিম্বাবুয়ে।

এই পার্টনারশিপ ভাঙতে পাওয়ার-প্লের ৬ ওভারেই পাঁচজন বোলারকে ব্যবহার করেন মাহমুদউল্লাহ। ফল আসে ষষ্ঠ ওভারে। নিজের প্রথম ওভার হাত ঘোরাতে এসেই দ্বিতীয় বলে চাকাভাকে তুলে নেন সাকিব। শরিফুলের হাতে ক্যাচ দিয়ে ১৪ রানে সাজঘরে ফেরেন চাকাভা। ৪২ রানে ২ উইকেট হারানোর পর নতুন ব্যাটসম্যান ডিওন মেয়ার্সকে নিয়ে দলীয় সংগ্রহ বাড়িয়ে নেন মাধেভেরে। তুলে নেন ব্যক্তিগত অর্ধশতক।

তৃতীয় উইকেটে দুজনের ৫৫ রানের পার্টনারশিপের মধ্যে টি-টোয়েন্টি ক্যারিয়ারে নিজের তৃতীয় ফিফটির স্বাদ পান মাধেভেরে। ইনিংসের ১৮তম ওভারে আউট হওয়ার আগে নিজের ৫৭ বলে ৭৩ রানের ইনিংসটি সাজান ৫টি চার আর ৩টি ছয়ের মারে। ফেরেন শরিফুলের দ্বিতীয় শিকারে পরিণত হয়ে। তার আগেই অবশ্য সাজঘরের পথ ধরেন মেয়ার্স (২৬) ও রাজা (৪)।

শেষদিকে ব্যাট হাতে ঝড় তোলেন বার্লে। তার অপরাজিত ১৯ বলে ৩৪ রানের ইনিংসের সাহায্যে নির্ধারিত ২০ ওভার শেষে ৬ উইকেট হারিয়ে স্কোর বোর্ডে ১৬৬ রানের সংগ্রহ দাঁড় করে জিম্বাবুয়ে। 

AR/JP

এই বিভাগের আরো খবর

কাল থেকে হকির দলবদল শুরু

ক্রীড়া ডেস্ক: ঢাকা প্রিমিয়ার হকি লিগ...

বিস্তারিত
ফের আইসিইউতে পেলে

ক্রীড়া ডেস্ক: হাসপাতাল থেকে বাসায়...

বিস্তারিত
ইপিএলে নিউক্যাসেল ও লিডসের ম্যাচ ড্র

ক্রীড়া ডেস্ক: ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ...

বিস্তারিত
না খেলেই পাকিস্তান ছাড়ছে নিউজিল্যান্ড

ক্রীড়া ডেস্ক: ১৮ বছর পর পাকিস্তানের...

বিস্তারিত
জেমি ডে’কে সাময়িক অব্যাহতি দিয়েছে বাফুফে

ক্রীড়া প্রতিবেদক: সাম্প্রতি দলের...

বিস্তারিত
নভেম্বরে জিম্বাবুয়ে যাবে নারী ক্রিকেট দল

ক্রীড়া ডেস্ক: তিন ম্যাচের ওয়ানডে...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *