প্রখ্যাত সাংবাদিক সাইমন ড্রিং আর নেই

প্রকাশিত: ০৪:২৫, ২০ জুলাই ২০২১

আপডেট: ০৯:০৯, ২০ জুলাই ২০২১

নিজস্ব সংবাদদাতা: প্রখ্যাত সাংবাদিক সাইমন ড্রিং আর নেই। স্থানীয় সময় শুক্রবার রোমানিয়ার একটি হাসপাতালে অস্ত্রোপচারের সময় তিনি মৃত্যুবরণ করেন। সাইমন ড্রিং বাংলার মাটিতে পাকিস্তানী বাহিনীর নির্যাতন ও গণহত্যার প্রত্যক্ষদর্শী বিদেশী সাংবাদিক।

দ্যা ডেইলি টেলিগ্রাফ এর প্রতিবেদক হিসেবে কাজ করার সময় ১৯৭১ সালের ৬ মার্চ কম্বোডিয়া থেকে ঢাকায় আসেন সাইমন ড্রিং। প্রত্যক্ষ করেন সাত মার্চে বঙ্গবন্ধুর ভাষণ; এরপর ২৫ মার্চ রাতের গণহত্যা। নিজের জীবন বিপন্ন করে সরেজমিন প্রতিবেদন প্রকাশ করেন; সারা বিশ্বকে জানিয়ে দেন নিরীহ বাঙালির উপর পাকিস্তানি বর্বর হামলার কথা। মুক্তিযুদ্ধের স্বপক্ষে আন্তর্জাতিক জনমত গড়ে উঠার প্রাথমিক ধাপ ছিলো সাইমন ড্রিং এর প্রতিবেদন।

কলকাতা থেকে মুক্তিযুদ্ধের খবর সংগ্রহ করে পাঠিয়ে দিতেন লণ্ডনের টেলিগ্রাফ পত্রিকায়। ১৬ ডিসেম্বর মিত্রবাহিনীর ট্যাংকে ময়মনসিংহ হয়ে স্বাধীন বাংলায় আসেন সাইমন ড্রিং।

সাইমন ড্রিং এর জন্ম ১৯৪৫ সালে। ১৮ বছর বয়স থেকে সংবাদপত্র ও টেলিভিশনের সাংবাদিক হিসেবে কাজ করেছেন। পেশাগত জীবনে ২২টি যুদ্ধ, অভ্যুত্থান ও বিপ্লব প্রত্যক্ষ করেছেন। কাজের স্বীকৃতি হিসেবে ১৯৭১ সালের ২৫ মার্চ পাকিস্তানি সেনাদের নির্যাতনের প্রতিবেদন তৈরি করে ইন্টারন্যাশনাল রিপোর্টার অব দ্যা ইয়ার নির্বাচিত হন। অর্জন করেন অসংখ্য পুরুষ্কার।

বাংলাদেশ সরকার কর্তৃক প্রদত্ত মুক্তিযুদ্ধ মৈত্রী সম্মাননাপ্রাপ্ত ব্রিটিশ  সাংবাদিক সায়মন ড্রিং-এর মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক এমপি। আজ এক শোক বার্তায় মুক্তিযুদ্ধ মন্ত্রী বিদেহী আত্মার শান্তি কামনা করেন ও শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।

শোকবার্তায় মন্ত্রী বলেন,  মহান মুক্তিযুদ্ধের সময় জীবনের ঝুঁকি নিয়ে পাকিস্তান হানাদার বাহিনীর বর্বরতার চিত্র  সাইমন ড্রিং প্রথম বিশ্ববাসীর কাছে তুলে ধরেন।  ফলে   পাকিস্তানি বর্বর বাহিনী কর্তৃক নিরস্ত্র বাঙালিদের  গণহত্যার   প্রকৃত ঘটনা বিশ্ববাসী জানতে পেরেছিল।   বাংলাদেশের মহান স্বাধীনতার  ইতিহাসে বাংলাদেশের অকৃত্রিম বন্ধু সাইমন ড্রিং -এর অবদান  চিরস্মরণীয় হয়ে থাকবেন।

উল্লেখ্য,  মহান মুক্তিযুদ্ধে   বিশেষ অবদানের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে বাংলাদেশ সরকার সাইমন ড্রিং-কে ২০১২ সালে  'মুক্তিযুদ্ধ মৈত্রী সম্মাননা' প্রদান করে। 

AM/MSI

এই বিভাগের আরো খবর

৫৯টি আইপি টিভি বন্ধ করলো সরকার

নিজস্ব প্রতিবেদক: অনুমোদনহীন ৫৯টি...

বিস্তারিত
কাল সাংবাদিকদের প্রতিবাদ সমাবেশ

নিজস্ব প্রতিবেদক: ব্যাংক হিসাব তলবের...

বিস্তারিত
দুই সাংবাদিককে তালেবানের বেধড়ক মারধর

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: আফগানিস্তানে...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *