নদীগর্ভে ইউনিয়ন পরিষদ ভবন, কাজ চলে চেয়ারম্যানের বাড়িতে

প্রকাশিত: ০৯:২১, ২৩ জুন ২০২১

আপডেট: ০৯:২৮, ২৩ জুন ২০২১

জামালপুর  সংবাদদাতা: জামালপুর জেলার ৫টি ইউনিয়ন পরিষদ ভবন নদীগর্ভে বিলীন হয়েছে বহুবছর আগে। ফলে এসব ইউনিয়ন পরিষদের অফিস চলে যখন যিনি চেয়ারম্যান হন তার বাড়িতে। এতে দুর্ভোগে পড়েন সেবা গ্রহীতারা।

জামালপুরের ইসলামপুর উপজেলার সাপধরী, কুলকান্দি, বেলগাছা, নোয়ারপাড়া ও চিনাডুলী ইউনিয়ন পরিষদ ভবনগুলি যমুনা গর্ভে বিলীন হয় প্রায় দুই যুগ আগে। দীর্ঘ সময় পেরিয়ে গেলেও এসব ইউনিয়ন পরিষদের নতুন ভবন নির্মানের কোন উদ্যোগ নেয়া হয়নি। পরিষদ না থাকায়  ফলে চেয়ারম্যানের বাড়িতে, বন্যানিয়ন্ত্রণ বাঁধের ওপর কিংবা ভাড়া ঘরে চলছে পরিষদের সভাসহ যাবতীয় কার্যক্রম।

গ্রাম আদালত ও তথ্য কেন্দ্র না থাকায় সরকারি সেবা বঞ্চিত এসব ইউনিয়নের মানুষ। এছাড়া নাগরিক পরিচয়পত্র, জন্ম-মৃত্যু সনদ ও ত্রাণ নিতে আসা মানুষকে নানা ভোগান্তি পোহাতে হয়।

যমুনার দূর্গম চর ও দূর দূরান্তের পথ পাড়ি দিয়ে অনেকেই সরকারি সেবা নিতে আসতে পারেন না।

ইউনিয়ন পরিষদের জন্য স্থায়ী ভাবে জমি বরাদ্দ দেয়া প্রস্তাব স্থানীয় প্রকৌশলী বিভাগে পাঠানো হয়েছে বলেও জানান ইসলামপুর উপজেলা চেয়ারম্যান এস. এম জামাল আব্দুন নাছের বাবুল।

৫টি ইউনিয়নের মানুষের দুর্ভোগ লাঘবে দ্রুত ভবন নির্মানের দাবি করেছেন সংশ্লিষ্টরা।
 

MNU/RB

এই বিভাগের আরো খবর

কারখানা খোলার খবরে ঢাকামুখী মানুষের ঢল

নিজস্ব প্রতিবেদক: আগামীকাল থেকে...

বিস্তারিত
আগামীকাল থেকে খুলছে শিল্প-কারখানা

নিজস্ব প্রতিবেদক: গার্মেন্টসসহ...

বিস্তারিত
গেলো দিনে করোনায় মৃত্যু ২১২, শনাক্ত ১৩৮৬২

নিজস্ব সংবাদদাতা: দেশে গত ২৪ ঘণ্টায়...

বিস্তারিত
ঈদের আগে-পরে ১৫ দিনে দুর্ঘটনায় নিহত ২৯৫

নিজস্ব প্রতিবেদক: কোরবানির ঈদের আগে ও...

বিস্তারিত
দেশে এলো সিনোফার্মের আরো ৩০ লাখ ডোজ টিকা

নিজস্ব প্রতিবেদক: চীনের সিনোফার্মের...

বিস্তারিত
দেশে ২৪ ঘণ্টায় করোনায় ২৩৯ জনের মৃত্যু

নিজস্ব প্রতিবেদক: দেশে গত ২৪ ঘণ্টায়...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *