হানাদার বাহিনীর ওপর মুক্তিবাহিনী প্রভাব বিস্তার 

প্রকাশিত: ১০:২৯, ১৪ জুন ২০২১

আপডেট: ১০:৪৭, ১৪ জুন ২০২১

কাজী বাপ্পা: জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকীর বছর ছিল ২০২০। তাঁর শততম জন্মবার্ষিকীর দিন, ১৭ই মার্চ থেকে শুরু হয়েছে মুজিববর্ষ উদযাপন, যা চলছে এই স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীর বছরও। স্বাধীন বাংলাদেশ ও বঙ্গবন্ধু একাত্মা। তিনিই একাত্তরের ২৬শে মার্চ স্বাধীনতা ঘোষণা করেন। তাঁর ডাকেই মানুষ স্বাধীনতার জন্য সশস্ত্র যুদ্ধে ঝাপিয়ে পড়েছিল। শেখ মুজিবুর রহমানের বিরল ঐতিহাসিক নেতৃত্বের সেই উত্তাল আন্দোলন ও সশস্ত্র মুক্তিযুদ্ধের দিনগুলো নিয়ে মুজিববর্ষ ও স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীর বছরজুড়ে বৈশাখী সংবাদের বিশেষ ধারাবাহিক আয়োজন- যাঁর ডাকে বাংলাদেশ এর আজ ৪’শ ৪৫ তম প্রতিবেদন।

একাত্তর সালের জুন মাসে ক্রমেই বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বাধীনতা ঘোষণা করা বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধে মুক্তিযোদ্ধাদের অবস্থান শক্তিশালী হতে থাকে। ১৯৭১ সালের ১৪ই জুন, মুক্তিযোদ্ধাদের পরিচালিত স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের সংবাদে বলা হয়, “সকাল ৬টার সময় পাকসেনারা নয়াবাজার হয়ে চৌদ্দগ্রামের দিকে পরে যায়। শত্র“দের প্রায় ৩০জন হতাহত হয় এবং তাঁরা পিছু হটে যায়। গভীর রাত্রিতে হেমায়েত বাহিনীর যোদ্ধারা নৌকাযোগে শত্র“দের মূল ঘাঁটি কোটালীপাড়া আক্রমণ করে। মুক্তিবাহিনীর যোদ্ধাদের আকস্মিক আক্রমণে পাকসেনা, পুলিশ এবং রাজাকার সবাই করুণ পরিণতির সম্মুক্ষীণ হয়। ৫০জনের মৃত্যু হয়। মুক্তিযোদ্ধা ইব্রাহিম শহীদ হন। ইয়াহিয়া প্রশাসনকে সহযোগীতার জন্য ৭০ মিলিয়ন ডলার সহায়তা দিয়েছে চীন সরকার।” (সূত্রঃ স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্র)

তবে, মুক্তিযোদ্ধাদের এই অর্জন অস্বীকার করে দখলদার পাকিস্তানী সামরিক সরকার। দখলদার পাকিস্তান সরকারের ভাষায় পূর্ব পকিস্তানে অর্থাৎ বাংলাদেশে তাদের গভর্নর জেনারেল টিক্কা খান একাত্তরের এদিন পাকিস্তানের করাচীতে সংবাদ সম্মেলন করেন। বলেন, “বর্ষা মওসুমে সীমান্ত এলাকায় অনুপ্রবেশের ফলে উদ্ভুত যে কোন পরিস্থিতি মোকাবেলার জন্য সরকার সম্পূর্ণ তৈরি। ক্ষমতা হস্তান্তরের প্রশ্ন বিবেচনার পূর্বে পূর্ব-পাকিস্তানের পরিস্থিতি বিবেচনা করে দেখতে হবে। প্রদেশের পরিস্থিতি বর্তমানে শান্ত এবং দ্রুত স্বাভাবিক অবস্থা ফিরে আসছে। অনুপ্রবেশকারীরা সীমান্তে কিছু পুল উড়িয়ে দিয়েছে এবং ধ্বংসাত্মক কাজ করছে।” (সূত্রঃ পাকিস্তান অবজারভার)

HIB/SAT

এই বিভাগের আরো খবর

'দলের কর্মীদের স্নেহ করতেন বঙ্গবন্ধু'

বিউটি সমাদ্দার: সব ভেদাভেদ ভুলে দেশের...

বিস্তারিত
'মানুষকে আকর্ষণ করার গুণ ছিল বঙ্গবন্ধুর'

গোলাম মোর্শেদ: সব ভেদাভেদ ভুলে দেশের...

বিস্তারিত
'পাকিস্তানিদের বৈষম্য তুলে ধরেছিলেন বঙ্গবন্ধু'

বিউটি সমাদ্দার: সব ভেদাভেদ ভুলে দেশের...

বিস্তারিত
‘বাংলাদেশের প্রথম ডাকটিকেট প্রকাশের ঘোষণা হয়’

কাজী বাপ্পা: জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *