ইলেকট্রনিক বর্জ্যে ক্ষতির ঝুঁকি বাড়ছে 

প্রকাশিত: ১০:০৬, ১৪ জুন ২০২১

আপডেট: ১০:৫২, ১৪ জুন ২০২১

ইউসুফ রানা: দেশে ইলেক্ট্রনিক পণ্যের ব্যবহার বাড়ার সাথে সাথে রাসায়নিক মিশ্রিত ইলেকট্রনিক বর্জ্যরে পরিমাণও বাড়ছে। পরিবেশ ও মানব স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর এই বর্জ্য ব্যবস্থাপনার জন্য কার্যকর উদ্যোগ নেয়নি সরকার। প্রায় পাঁচ বছর যাবত নীতিমালার কাজ চললেও এখনও তা আলোর মুখ দেখেনি।  

৯০ এর দশকের পর থেকেই দেশে ইলেকট্রনিক পণ্যের ব্যবহার বাড়ছে। বর্তমানে দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলেও টেলিভিশন, মোবাইল ফোন, কম্পিউটার, বৈদ্যুতিক বাতিসহ ইলেকট্রনিক পণ্য ব্যবহার হয়। ফলে, এসকল পণ্য থেকে সৃষ্ট বর্জ্যের পরিমাণও বাড়ছে। 

কিন্তু গত তিন দশকেও এসকল রাসায়নিক বর্জ্য ধ্বংস বা সংগ্রহের জন্য কার্যকর কোন উদ্যোগ নেয়নি সরকার।

অনেকে আবার ইলেকট্রনিক বর্জ্যরে ব্যবসা শুরু করেছেন। কিন্ত পরিবেশ সম্মতভাবে কাজ না করায় জনস্বাস্থ্য ও পরিবেশের জন্য এগুলো ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে উঠেছে।

ইলেকট্রনিক বর্জ্য ব্যবস্থাপনার জন্য প্রায় ৫ বছর যাবত নীতিমালা তৈরির কাজ চলছে। যথাযথভাবে ব্যবস্থাপনা করতে পারলে, পরিবেশ যেমন বাঁচবে, তেমনি এই খাতে বছরে প্রায় ৫শ কোটি টাকার বাজার সৃষ্টি হবে।

দেশে প্রতিনিয়ত রাসায়নিক মিশ্রিত ইলেকট্রনিক বর্জ্য বাড়ছে। বিষাক্ত এই বর্জ্য এরই মধ্যে পরিবেশের জন্য মারাত্মক হুমকি হয়ে দাঁড়িয়েছে। তাই দ্রুত এসকল বর্জ্য ব্যবস্থাপনার জন্য কার্যকর উদ্যোগ নিতে সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন পরিবেশবিদসহ এই খাতের সংশ্লিষ্টরা।
 

YA/SAT

এই বিভাগের আরো খবর

যেভাবে প্রতারণা করতেন হেলেনা

নিজস্ব প্রতিবেদক: প্রাথমিক...

বিস্তারিত
বন্ডের অপব্যবহার, গ্রেফতার ১১

নিজস্ব প্রতিবেদক: বন্ডের অপব্যবহার...

বিস্তারিত
হেলেনা জাহাঙ্গীর তিন দিনের রিমান্ডে

নিজস্ব সংবাদদাতা: ডিজিটাল নিরাপত্তা...

বিস্তারিত
সবচেয়ে বেশি ডেঙ্গু ঝুঁকিতে শিশুরা

মাবুদ আজমী: ডেঙ্গুর বর্তমান প্রকোপে...

বিস্তারিত
হেলেনা জাহাঙ্গীরকে আটক করেছে র‍্যাব

নিজস্ব প্রতিবেদক: আলোচিত ব্যবসায়ী...

বিস্তারিত
করোনা আক্রান্ত মুহিত সিএমএইচ এ ভর্তি

নিজস্ব প্রতিবেদক: করোনায় আক্রান্ত...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *