যেভাবে প্রাণ বাঁচলো ৭৩ করোনা রোগীর

প্রকাশিত: ০৪:২০, ১২ মে ২০২১

আপডেট: ০৪:২০, ১২ মে ২০২১

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ভারতের কলকাতার প্রশাসন, পুলিশ ও স্বেচ্ছাসেবীদের প্রচেষ্টায় প্রাণ বাঁচলো ৭৩ জন করোনা রোগীর। কলকাতার গড়িয়ার রিমেডি হাসপাতালে মাত্র আড়াই ঘণ্টার অক্সিজেন মজুদ ছিল। দ্রুত ব্যবস্থা করা না গেলে রোগীদের প্রাণ বাঁচানো নিয়ে শংকায় ছিলেন কর্তৃপক্ষ।

স্বাস্থ্য বিভাগের এক কর্মকর্তা বলেন, হাসপাতালের এক চিকিৎসক কেঁদে কেঁদে তার অসহায় অবস্থার কথা তুলে ধরেন। তিনি বলেন, টেকনিক্যাল সমস্যার কারণে সিলিন্ডার আসতে দেরি হচ্ছে। অক্সিজেন না পৌঁছালে প্রাণ যাবে অনেক করোনা রোগীর। সতর্কবার্তা পেয়েই পুলিশ ও প্রশাসন সব কাজ ফেলে অক্সিজেন জোগাড়ে ব্যস্ত হয়ে পড়ে। রক্ষা পায় ৭৩ জন করোনা রোগীর জীবন।

এর আগে, অক্সিজেনের অভাবে দিলি­, উত্তর প্রদেশ ও মহারাষ্ট্রের বহু মানুষের মৃত্যু হয়েছে।

কলকাতা পুলিশ জানায়, রাত ৯টা ২০ নাগাদ কলকাতার পুলিশ কমিশনার সৌমেন মিত্র রেমেডি হাসপাতালের পরিস্থিতি সম্পর্কে ফোন পান। সবাইকে পরিস্থিতি মোকাবিলায় ঝাঁপিয়ে পড়ার নির্দেশ দেন তিনি। কলকাতা পুলিশ প্রাথমিক ভাবে ৯টি সিলিন্ডার পেয়ে যায়। বারুইপুরের এসডিও লিন্ডের কাছ থেকে ৪০টি বি টাইপ সিলিন্ডার জোগাড় করে। পরে বারুইপুর হাসপাতাল থেকে ১৩টি ও এমআর বাঙুর হাসপাতাল থেকে ১০টি সিলিন্ডার জোগাড় করা হয়।

রাত ১১টার মধ্যেই ৭২টি সিলিন্ডার পৌঁছে যায় ওই হাসপাতালে। কয়েক মিনিট দেরি হলে রোগীদের জীবন সংশয় দেখা দিত। সমস্যা মেটার পর রাত সাড়ে ৩টার দিকে ডোমজুড় থেকে ৭২টি সিলিন্ডার হাসপাতালে পৌঁছায়, যেগুলি যাওয়ার কথা ছিল।
 

MFH/MSI

এই বিভাগের আরো খবর

যমজ শাবকের জন্ম দিলো জায়ান্ট পান্ডা

অনলাইন ডেস্ক: জাপানের রাজধানী টোকিওর...

বিস্তারিত
কাশ্মীরের নেতাদের সঙ্গে বৈঠকে মোদি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ভারতনিয়ন্ত্রিত...

বিস্তারিত
খাবারের সন্ধানে রান্না ঘরে হাতি!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: খাবারের সন্ধানে...

বিস্তারিত
কানাডায় গণকবরের সন্ধান

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: কানাডার...

বিস্তারিত
বছরের শেষ সুপার মুন দেখা যাবে আজ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: বছরের শেষ সুপার...

বিস্তারিত
কোন করোনা রোগী না থাকার দাবি উত্তর কোরিয়ার!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: দেশে কোন করোনা...

বিস্তারিত
ইরানের নিষেধাজ্ঞা তুলতে রাজি যুক্তরাষ্ট্র

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: পরমাণু চুক্তিতে...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *