স্কুল পর্যায়ে পড়াশোনার বাইরে ৬০ লাখ শিক্ষার্থী

প্রকাশিত: ০৮:১৩, ১০ মে ২০২১

আপডেট: ০৯:১৩, ১০ মে ২০২১

নিজস্ব প্রতিবেদক : করোনার কারণে প্রাথমিক ও মাধ্যমিক পর্যায়ের ৬০ লাখ শিক্ষার্থী পড়াশোনায় সম্পৃক্ত ছিল না ফলে এসব শিক্ষার্থী বেশ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। করোনাকালে শিক্ষা খাতের ক্ষতি বিষয়ক গবেষণা প্রতিবেদনে এসব তথ্য জানিয়েছে বেসরকারি গবেষণা প্রতিষ্ঠান পিপিআরসি-বিআইজিডি। করোনাকালে স্কুল বন্ধ থাকলেও কোচিং বন্ধ ছিল না। ফলে কোচিং নির্ভরতা বেড়েছে এবং  অভিভাবকদের খরচ বেড়েছে কয়েকগুণ। এসব ক্ষয়ক্ষতি  কাটিয়ে উঠতে উপবৃত্তির মাধ্যমে অতিরিক্ত অর্থ সহায়তা করার পরামর্শ দিয়েছে পিপিআরসি ও বিআইজিডি।

করোনা সংক্রমণ ঠেকাতে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো বন্ধ থাকায় কীভাবে সময় পার করেছেন শিক্ষার্থীরা? এমন বিষয়ে একটি গবেষণা প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে বেসরকারি গবেষণা প্রতিষ্ঠান পিপিআরসি ও ব্র্যাকের বিআইজিডি বিভাগ। গত ১১ থেকে ৩১শে মার্চ পর্যন্ত প্রায় ৭ হাজার অভিভাবকের ওপর টেলিফোন সার্ভে পরিচালনা করে তৈরি করা হয় প্রতিবেদনটি। যা সোমবার (১০ মে) অনলাইন প্রেস ব্রিফিং এ প্রকাশ করা হয়।

প্রতিবেদনে বলা হয়, দীর্ঘ সময় স্কুল বন্ধ থাকায় মানসিক চাপের মধ্য দিয়ে সময় পার করেছেন ১০ থেকে ১২ ভাগ শিক্ষার্থী। যাদের মধ্যে শহরের ছেলে শিক্ষার্থীরা বেশি। 

পিপিআরসি’র নির্বাহী পরিচালক হোসেন জিল­ুর রহমান জানান, বন্ধকালীন সময়ে প্রাথমিকের ১৯ ভাগ ও মাধ্যমিকের ২৫ ভাগ শিক্ষার্থী পড়াশোনায় সম্পৃক্ত ছিলোনা। আর ১০ ভাগ শিক্ষার্থী অনলাইন শিক্ষা কার্যক্রমে অংশ নেয়। তবে স্কুল বন্ধ থাকলেও বেসরকারি কোচিং সেন্টার খোলা ছিল। ফলে যারা পড়াশোনা চালিয়ে গেছে তাদের অভিভাবকদের খরচ বেড়েছে প্রাথমিক পর্যায়ে ১১ ভাগ ও মাধ্যমিক পর্যায়ে ১৩ ভাগ।

এদিকে অটোপাস এর ব্যপারে বেশির ভাগ অভিভাবকের মনোভাব নেতিবাচ। তারা চাইছেন দ্রুত বিদ্যালয়গুলো খুলে দেয়া হোক।
 

MN/JP

এই বিভাগের আরো খবর

রাবিতে ভিসি'র বাসভবনে তালা

রাজশাহী সংবাদদাতা: রাজশাহী...

বিস্তারিত
ঢেলে সাজানো হচ্ছে পাঠ্যক্রম

রীতা নাহার: প্রাক-প্রাথমিক থেকে...

বিস্তারিত
বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে নতুন উপাচার্য 

নিজস্ব প্রতিবেদক: রংপুর বেগম রোকেয়া...

বিস্তারিত
রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের অফিস খুলবে ১৩ জুন

রাজশাহী সংবাদদাতা: আগামী ১৩ই জুন থেকে...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *