পিলখানা ট্রাজেডি দিবস আজ

প্রকাশিত: ০৯:৫৬, ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২১

আপডেট: ০৫:৩২, ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২১

আশিক মাহমুদ: বাংলাদেশের ইতিহাসের বেদনাদায়ক পিলখানা ট্রাজেডি দিবস আজ। ২০০৯ সালের এই দিনে বিদ্রোহের নামে বিডিআর সদর দপ্তরে নৃশংসভাবে হত্যা করা হয় তৎকালীন বিডিআর প্রধানসহ ৫৭ সেনা কর্মকর্তাকে। এ ঘটনায় বিচারিক আদালত ও হাইকোর্টে হত্যা মামলার রায় হলেও, এখনো আপিল বিভাগে চূড়ান্ত নিস্পত্তির অপেক্ষায় আছে। আর এই ঘটনায় বিস্ফোরক আইনে করা অপর মামলাটির তেমন কোন অগ্রগতিই হয়নি। 

২০০৯ সালের ২৫শে ফেব্রুয়ারি সকালে হঠাৎই পিলখানায় বিডিআর জওয়ানদের এমন ক্ষিপ্ততা হতবাক করে দেয় গোটা দেশকে। দরবার হলে বিডিআর প্রধানসহ সব অফিসারকে জিম্মি করে জওয়ানরা। বিদ্রোহের নামে গুলি করে নির্মমভাবে তৎকালীন বিডিআর প্রধানসহ হত্যা করা হয় ৫৭ জন সেনাকর্মকর্তাকে। এছাড়া ১৭ জন বেসামরিক কর্মকর্তা-কর্মচারীকেও সেদিন হত্যা করা হয়।

এ ঘটনায় সাড়ে আটশ’ জনের বিরুদ্ধে ৩টি মামলা হয়। এর মধ্যে বিচারিক আদালত ও হাইকোর্টে হত্যা মামলায় বিচার শেষ হয়েছে। বিচারিক আদালতে মৃত্যুদন্ড পাওয়া ১শ’ ৫২ আসামীর মধ্যে ১শ’ ৩৯ জনের মৃত্যুদন্ড বহাল রেখে ২০১৭ সালের ২৭শে নভেম্বর রায় দেয় হাইকোর্ট। একশ’ ৮৫ জনকে যাবজ্জীবন, ২শ’ ২৮ জনকে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদন্ড ও খালাস দেয়া হয় ২শ’ ৮৭ জনকে। নিয়ম অনুযায়ী পুর্নাঙ্গ রায় প্রকাশের এক মাসের মধ্যে আপিল করার কথা থাকলেও রায়ের সত্যায়িত কপি তোলাসহ আপিল আবেদন করতে বিপুল পরিমান অর্থের প্রয়োজন, তা নিয়ে বিড়ম্বনায় পড়েন আসামীরা। পরে প্রধান বিচারপতির নির্দেশে, রায়ের একটি সত্যায়িত কপি দিয়ে সব আসামীকে আপিলের সুযোগ দেয়া হয়।  

এদিকে, বিস্ফোরক আইনে করা আরেক মামলার বিচার কাজ এখনো প্রাথমিক পর্যায়ে। এখন পর্যন্ত১২শ’ ৬৪ জন  সাক্ষীর মধ্যে সাক্ষ্য নেয়া হয়েছে মাত্র ১শ’ ৮৫ জনের। এই মামলার বিচারকাজ শেষ না হওয়ায় হত্যা মামলায় খালাস পাওয়ার পরও মুক্তি মিলছেনা শতাধিক আসামীর। মামলার এ ধীরগতির জন্য রাষ্ট্রপক্ষকে দুষছে আসামিপক্ষ। 

হত্যা ও বিস্ফোরকদ্রব্য আইনের মামলায় বিচারের জন্য রাজধানীর কারা অধিদপ্তর মাঠে স্থাপন করা হয় অস্থায়ী এজলাস। আর বিদ্রোহের বিচার হয় বিজিবি’র নিজস্ব আইনে। 

বিডিআর বিদ্রোহে হত্যা মামলায় বিচারিক আদালতের রায় 
মৃত্যুদণ্ডঃ    ১৫২ জন
যাবজ্জীবন কারাদণ্ডঃ     ১৬১ জন
বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ডঃ  ২৫৬ জন
বেকসুর খালাসঃ ২৭৭ জন

বিডিআর বিদ্রোহে হত্যা মামলায় হাইকোর্টের রায় 
মৃত্যুদণ্ডঃ ১৩৯ জন
যাবজ্জীবন কারাদণ্ডঃ ১৮৫ জন
বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ডঃ ২২৮ জন
বেকসুর খালাসঃ ২৮৭ জন


 

এই বিভাগের আরো খবর

৪০ বছরের কম বয়সীরা বেশি আক্রান্ত

নিজস্ব প্রতিবেদক: করোনার প্রথম ঢেউয়ে...

বিস্তারিত
হাসপাতাল উধাও নিয়ে আলোচনা

নিজস্ব প্রতিবেদক: গেল বছর করোনা রোগীর...

বিস্তারিত
কবে শেষ হবে রমনা বটমূলে বোমা হামলার বিচার?

আশিক মাহমুদ: রমনা বটমূলে জঙ্গিদের...

বিস্তারিত
করোনা পরীক্ষা করাতে ভােগান্তি

তাসলিমুল আলম: করোনার নমুনা পরীক্ষা...

বিস্তারিত
করোনায় মৃতদের দাফন-সৎকারে ভয় কমেছে

তারেক সিকদার: করোনায় আক্রান্ত হয়ে...

বিস্তারিত
রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় পানির সংকট

পার্থ রহমান: রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায়...

বিস্তারিত
এক বছর পরেও চিকিৎসা সেবার চিত্র বদলায়নি

তাসলিমুল আলম: করোনা হানা দেয়ার এক বছর...

বিস্তারিত
জটিল রোগের চিকিৎসা ব্যাহত

লাবণী গুহ: করোনাকালের নতুন বাস্তবতায়...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *