এফআর টাওয়ারের নকশা জালিয়াতি, চার্জশিট চূড়ান্ত

প্রকাশিত: ০৯:৩১, ২৫ নভেম্বর ২০২০

আপডেট: ০৯:৩৪, ২৫ নভেম্বর ২০২০

নিজস্ব প্রতিবেদক: রাজধানীর বনানীতে আগুনে পুড়ে যাওয়া ভবন এফআর টাওয়ার নির্মাণে নকশা জালিয়াতির অভিযোগে ১৮ জনের বিরুদ্ধে চার্জশিটের অনুমোদন দিয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন এতে জমির মালিক, টাওয়ারের বর্ধিত অংশের মালিকসহ রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ রাজউকের ১৫ জনকে আসামি করা হয়েছে

আজ (বুধবার) এই চার্জশিট অনুমোদন দেওয়া হয় বলে জানিয়েছেন দুদকের পরিচালক (জনসংযোগ) প্রণব কুমার ভট্টাচার্য্য অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে ইমারত নির্মাণের বিধিমালা লঙ্ঘণ করে ভুয়া নকশা অতিরিক্ত তলা নির্মাণের অভিযোগ করা হয় দ্রুততম সময়ের মধ্যে সংশ্লিষ্ট আদালতে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেয়া হবে

২০১৯ সালের জুন মাসে এফআর টাওয়ারের ভবন নির্মাণে অনিয়মের অভিযোগে ২৫ জনকে আসামি করে মামলা করেন দুদকের উপ-পরিচালক আবুবকর সিদ্দীক মামলার তদন্তে ১৮ জনকে চার্জশিটভুক্ত করা হয়েছে

অভিযোগের সংক্ষিপ্ত বিবরণে বলা হয়, আসামিদের বিরুদ্ধে অসৎ উদ্দেশ্যে অন্যায়ভাবে লাভবান হওয়ার অভিপ্রায়ে পরস্পর যোগসাজশে প্রতারণা, জালিয়াতি ক্ষমতার অপব্যবহারের মাধ্যমে ইমারত নির্মাণ বিধিমালা, ১৯৯৬ এর বিধি-বিধান লঙ্ঘন করে রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে ছাড়পত্র ইস্যু, ফি জমা নকশা অনুমোদন না নিয়ে ভুয়া নকশা সৃজন এফ আর টাওয়ারের ১৯ থেকে ২৩তলা পর্যন্ত নির্মাণ করে আর্থিক প্রতিষ্ঠানের কাছে বন্ধক দেওয়া, ফ্লোর বিক্রি অগ্নিকাণ্ডে জনসাধারণের জানমালের ব্যাপক ক্ষতিসাধনের দায়ে দণ্ডবিধির ৪২০/৪৬৭/৪৬৮/৪৭১/১৬৬/ ১০৯ ধারা তৎসহ দুর্নীতি প্রতিরোধ আইন, ১৯৪৭ এর () ধারায় চার্জশিট অনুমোদন দিয়েছে দুদক

এছাড়া মামলার তদন্তকালে অপরাধ প্রমাণিত না হওয়ায় জন আসামিকে মামলা থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে

এই বিভাগের আরো খবর

কয়লা খনির ২২ কর্মকর্তার জামিনে মুক্তি

দিনাজপুর সংবাদদাতা: ২৪৩ কোটি ২৮ লাখ...

বিস্তারিত
জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নির্মাণ কাজে দুর্নীতি

কাজী ফরিদ: জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে ২শ ৩০...

বিস্তারিত
এস কে সিনহার আরো দু’টি বাড়ির সন্ধান

নিজস্ব প্রতিবেদক: সাবেক প্রধান...

বিস্তারিত
পিকে হালদারের বান্ধবী অবন্তিকা রিমান্ডে

নিজস্ব প্রতিবেদক: প্রায় সাড়ে তিন...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *