প্রথম থেকে নবম শ্রেণী পর্যন্ত লটারিতে ভর্তি

প্রকাশিত: ১২:৪৫, ২৫ নভেম্বর ২০২০

আপডেট: ০৪:৪০, ২৫ নভেম্বর ২০২০

নিজস্ব প্রতিবেদক: করোনা অতিমারীর কারণে এবছর সারাদেশের সরকারি ও বেসরকারি স্কুলে প্রথম থেকে নবম শ্রেণী পর্যন্ত লটারির মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের ভর্তি করা হবে বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। করোনার ঝুঁকি এড়াতে পরীক্ষাপদ্ধতি বাদ দিয়ে লটারির সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। আজ (বুধবার) আনুষ্ঠানিক ব্রিফিংয়ে শিক্ষামন্ত্রী সিদ্ধান্ত জানান।

তিনি আরো জানান, লটারির সময়ে কোনো অভিভাবক স্কুলে উপস্থিত থাকতে পারবেন না। একটি কমিটি এই লটারি পরিচালনা করবেন। এছাড়া ঢাকা মহানগরীতে ক্যাচমেন্ট এরিয়া (বিদ্যালয় সংলগ্ন এলাকা) ৪০ শতাংশের পরিবর্তে ৫০ শতাংশ করা হবে। আগে ক্লাস্টারভিত্তিক একটি স্কুলে আবেদন করার সুযোগ থাকলেও এখন পাঁচটি করে পছন্দের স্কুল নির্বাচন করা যাবে।

দীপু মনি বলেন, প্রতিবছর প্রথম শ্রেণির ভর্তিতে লটারি এবং দ্বিতীয় থেকে অষ্টম শ্রেণিতে ভর্তি পরীক্ষা আয়োজন করা হয়। তবে করোনার কারণে নতুন শিক্ষাবর্ষে (২০২১ সালে) ভর্তি পরীক্ষা বাতিল করে লটারির মাধ্যমে সব শ্রেণিতে শিক্ষার্থী ভর্তি করা হবে। অনলাইনের মাধ্যমে শিক্ষার্থী ভর্তির ফরম বিক্রি করা হবে। এরপর তা যাচাই-বাছাই করে লটারির জন্য নির্বাচন করবে স্কুল কর্তৃপক্ষ। একাধিক ধাপে লটারির আয়োজন করে ভর্তি করা হবে শিক্ষার্থী। লটারির ফলাফল নিজ নিজ বিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত হবে।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, আমরা তিনটি বিকল্প খতিয়ে দেখেছি। এর একটি হচ্ছে স্কুলে ভর্তি পরীক্ষা নেওয়া। কিন্তু বর্তমান পরিস্থিতিতে শিক্ষার্থীদের স্কুলে এনে ভর্তি পরীক্ষা নেওয়ার ঝুঁকি নিতে চাচ্ছি না। এমসিকিউ পদ্ধতির কথা চিন্তা করেছি, কিন্তু তাতেও শিক্ষার্থীদের স্কুলে আসতে হতো। অনলাইনে ভর্তি পরীক্ষা নিলে সবার জন্য নিরাপদ হলেও সব শিক্ষার্থীর অনলাইনে ভর্তি পরীক্ষা নিশ্চিত করা কঠিন হবে, তাই এটি যুক্তিযুক্ত মনে হয়নি। সবার ইন্টারনেট অ্যাকসেস নেই, আবার সংযোগেও সমস্যা আছে।

বিশেষজ্ঞদের সঙ্গে আলোচনা করে লটারির মাধ্যমে ভর্তি পরীক্ষা নেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। বিষয়ে ডিসেম্বরের মধ্যে বিস্তারিত জানিয়ে দেয়া হবে।

এসময় শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী, শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক উচ্চশিক্ষা বিভাগের সচিব মো. মাহাবুব হোসেন, কারিগরি মাদরাসা বিভাগের সচিব মো. আমিনুল ইসলাম, মাধ্যমিক উচ্চশিক্ষা অধিদফতরের মহাপরিচালক অধ্যাপক গোলাম ফারুক, বিভিন্ন শিক্ষাবোর্ডের চেয়ারম্যান উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য বর্তমানে দেশে ৬৮৩টি সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয় রয়েছে। এর মধ্যে শুধু রাজধানীতে আছে ৪২টি। বেসরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয় আছে ১৯ হাজার ৪২১টি। এর মধ্যে ১৬ হাজার ৭৭৫টি এমপিওভুক্ত, বাকি দুই হাজার ৬৪৬টি নন-এমপিও প্রতিষ্ঠান।

এই বিভাগের আরো খবর

পলিটেকনিকে অটোপাসের সুযোগ নেই: সচিব

নিজস্ব প্রতিবেদক: ডিপ্লোমা প্রকৌশলী...

বিস্তারিত
জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নির্মাণ কাজে দুর্নীতি

কাজী ফরিদ: জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে ২শ ৩০...

বিস্তারিত
৫১ বছরে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়

নিজস্ব প্রতিবেদক: আজ ১২ জানুয়ারি...

বিস্তারিত
সরকারি স্কুলে ভর্তির লটারির ফল প্রকাশ

নিজস্ব প্রতিবেদক: সারাদেশের সরকারি...

বিস্তারিত
২৮ জানুয়ারির মধ্যে এইচএসসির ফল প্রকাশ

নিজস্ব প্রতিবেদক: পরীক্ষা না নিয়েই ফল...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *