আকাশপথে দুর্ঘটনায় ক্ষতিপূরণ ৬ গুণ বাড়িয়ে আইন পাস

প্রকাশিত: ০৯:১৯, ১৭ নভেম্বর ২০২০

আপডেট: ০৯:৪৭, ১৭ নভেম্বর ২০২০

নিজস্ব সংবাদদাতা: আকাশগথে পরিবহনে দুর্ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্তদের ক্ষতিপূরণের পরিমাণ ছয়গুণ বাড়িয়ে জাতীয় সংসদে আইন পাস হয়েছে। আজ (মঙ্গলবার) সংসদে সংক্রান্তআকাশপথে পরিবহন (মন্ট্রিল কনভেনশন) বিল-২০২০বিল বেসামরিক বিমান পরিবহন পর্যটন প্রতিমন্ত্রী মাহবুব আলী এই আইন পাসের প্রস্তাব করলে তা কণ্ঠভোটে পাস হয়।

এর আগে স্পিকার . শিরীন শারমিন চৌধুরী বিলের ওপর দেওয়া জনমত যাচাই, বাছাই কমিটিতে পাঠানো এবং সংশোধনী প্রস্তাবগুলোর নিষ্পত্তি করেন।

বিদ্যমান বিধানে আকাশপথে পরিবহনের সময় যাত্রীর মৃত্যু বা আঘাতপ্রাপ্ত হলে ক্ষতিপূরণ ছিল ২০ লাখ ৩৭ হাজার ৬০০ টাকা পান। নতুন আইনে সেটা বেড়ে এক কোটি ১৭ লাখ ৬২ হাজার ৩৩৪ টাকা হচ্ছে।

আকাশপথে পরিবহনের ক্ষেত্রে কোনো দুর্ঘটনায় যাত্রীর মৃত্যু বা আঘাতপ্রাপ্ত হলে এবং ব্যাগেজ নষ্ট বা হারানোর ক্ষেত্রে ওয়ারশ কনভেনশন-১৯২৯ এর আলোকে দেশে বর্তমানে প্রচলিতদ্য ক্যারেজ বাই এয়ার অ্যাক্ট-১৯৩৪’, ‘দ্য ক্যারেজ বাই এয়ার (ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন) অ্যাক্ট-১৯৬৬এবংদ্য ক্যারেজ বাই এয়ার (সাপ্লিমেন্টারি কনভেনশন) অ্যাক্ট-১৯৬৮ আছে।

এই তিনটি আইনের আলোকে প্রাণহানি, আঘাত ব্যাগেজ নষ্ট বা হারানোর ক্ষেত্রে ক্ষতিপূরণের পরিমাণ কম ছিল। অবস্থা থেকে উত্তরণের জন্য আন্তর্জাতিকভাবে ১৯৯৯ সালে মন্ট্রিল কনভেনশন গ্রহণ করা হয়েছে। বাংলাদেশ ওই কনভেনশনে ১৯৯৯ সালেই স্বাক্ষর করে।

১৯৯৯ সালে মন্ট্রিল কনভেনশন গ্রহণের পর দীর্ঘদিন পার হলেও বাংলাদেশে তা অনুসমর্থন হয়নি। মন্ট্রিল কনভেনশনটি অনুসমর্থন করে নতুন আইন প্রণয়ন করলে মৃত্যু, আঘাত মালামাল হারানো বা নষ্ট হওয়ার ক্ষেত্রে যথাযথ ক্ষতিপূরণ পাওয়া সহজ হবে।

মন্ট্রিল কনভেনশন রেটিফিকশন করে প্রণীত খসড়া আইনটি অনুমোদিত হলে যাত্রীর মৃত্যু বা আঘাত, ব্যাগেজ কার্গোর ক্ষতি বা হারানোর ক্ষেত্রে ক্ষতিপূরণের হার পূর্বের তুলনায় অনেক বৃদ্ধি পাবে।

নতুন আইন কার্যকর হলে ফ্লাইট বিলম্বের কারণে পরিবহনকারীর দায় ২০ ডলারের পরিবর্তে পাঁচ হাজার ৭৩৪ ডলার, ব্যাগেজ বিনষ্ট বা হারানোর জন্য প্রতি কেজিতে ২০ ডলারের পরিবর্তে এক হাজার ৩৮১ ডলার এবং কার্গো বিমানের মালামাল বিনষ্ট বা হারানোর জন্য প্রতি কেজিতে ২০ ডলারের পরিবর্তে ২৪ ডলার নির্ধারণ করা হয়েছে।

যাত্রীর মৃত্যুর ক্ষেত্রে তার সম্পত্তির বৈধ প্রতিনিধিত্বকারী ব্যক্তিদের মধ্যে এই আইনের বিধানের আলোকে ক্ষতিপূরণের অর্থ ভাগ করা যাবে। সংশ্লিষ্ট উড়োজাহাজ পক্ষ বা বীমাকারী প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে আলোচনার ভিত্তিতে অথবা আদালতের মাধ্যমে ক্ষতিপূরণ আদায় করা যাবে।

এই বিভাগের আরো খবর

স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

নিজস্ব প্রতিবেদক: টিকা নিলেও অতিমারি...

বিস্তারিত
সংসদের চতুর্দশ অধিবেশন ফের মুলতবি

নিজস্ব প্রতিবেদক: একাদশ জাতীয় সংসদের...

বিস্তারিত
সংসদ সদস্য মাসুদা রশিদ আর নেই

নিজস্ব প্রতিবেদক: একাদশ জাতীয় সংসদে...

বিস্তারিত
সিলেট-৩ আসনে হাবিবুর রহমান বিজয়ী

সিলেট সংবাদদাতা: সিলেট-৩ আসনের...

বিস্তারিত
গেজেটধারী বীর মুক্তিযোদ্ধা ১ লাখ সাড়ে ৮৩ হাজার

নিজস্ব সংবাদদাতা: মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক...

বিস্তারিত
সীমানা নির্ধারণ বিল সংসদে পাস

নিজস্ব প্রতিবেদক: জাতীয় সংসদের...

বিস্তারিত
১লা সেপ্টেম্বর সংসদের চতুর্দশ অধিবেশন শুরু

নিজস্ব প্রতিবেদক : একাদশ জাতীয় সংসদের...

বিস্তারিত
সংসদ সদস্য আলী আশরাফ আর নেই

নিজস্ব প্রতিবেদক: কুমিল্লা-৭ আসনের...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *