বিষন্নতা দূর করে রসুন

প্রকাশিত: ০৯:১৯, ২৭ অক্টোবর ২০২০

আপডেট: ০৯:৪৫, ২৭ অক্টোবর ২০২০

অনলাইন ডেস্ক: রান্নায় মসলা হিসেবে রসুনের ব্যবহার করা হয়। কারণ রসুন একটি মসলা জাতীয় খাদ্য উপাদান।রান্নার স্বাদকে বাড়ানোর ক্ষেত্রেই শুধু নয়, এর পুষ্টিগুণ একে করেছে খাবারের মসলার ভিতর অন্যতম।  এমনকি বিশ্বের প্রায় প্রতিটি জাতিই প্রাচীনকাল থেকে বিভিন্ন রোগ নিরায়মের জন্য এর ব্যবহার করে আসছে। রসুনের ভেষজ গুন অপরিসীম।

রসুনের উপকারিতা-

প্রাকৃতিক অ্যান্টিবায়োটিক: রসুন প্রাকৃতিক অ্যান্টিবায়োটিক নামেও পরিচিত। গবেষণায় দেখা গেছে, খালি পেটে রসুন অ্যান্টিবায়োটিক এর মত কাজ করে।

রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ করে: এটি শরীরের উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ করতে সাহায্য করে।

হজম ক্ষমতা বাড়ায়: খালি পেটে রসুন খাওয়ার ফলে যকৃত এবং মূত্রাশয় সঠিকভাবে নিজ নিজ কার্য সম্পাদন করে। এর ফলে পেটের বিভিন্ন সমস্যা দূর হয়। রসুন হজম ক্ষুধার উদ্দীপক হিসেবে কাজ করে। এটি ক্ষুদামন্দা ভাব দূর করতে সহায়ক।

বিষন্নতা দূর করে রসুন: রসূন স্ট্রেস দূর করতেও সক্ষম। স্ট্রেস বা চাপের কারণে আমাদের গ্যাস্ট্রিক এর সমস্যা দেখা দিতে পারে। তাছাড়া পরিপাকতন্তেরও নানা সমস্যা দূর করে এই রসুন।

শরীরের ক্ষতিকর উপাদান নিয়ন্ত্রণে: শরীরকে ডি-টক্সিফাই করতে রসুন গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে থাকে। বিশেষজ্ঞদের মতে, রসুন প্যারাসাইট, কৃমি পরিত্রাণ, জিদ, ভাইরাসজনিত জ্বর, ডায়াবেটিস, বিষণ্ণতা এবং ক্যান্সার এর মত বড় বড় রোগ প্রতিরোধ করতে অনেক উপকারি। যক্ষ্মা, নিউমোনিয়া, ব্রংকাইটিস, ফুসফুসের কনজেশন, হাপানি, ইত্যাদি প্রতিরোধ করে।

ঠান্ডাজনিত সমস্যায় রসুন: রসুন কফের জন্য অনেক উপকারি ওষুধ। খুব সামান্য তেলে / কোয়া রসুন ভেজে তা টেবিল চামচ মধুর সাথে রাতে ঘুমোতে যাওয়ার আগে খাবেন। এটা যদি নিয়মিত খান তাহলে বুকে জমে যাওয়া কফ থেকে রেহাই পাওয়া যাবে।

যৌন ক্ষমতা বৃদ্ধি করে রসুন: যৌনতা বৃদ্ধির জন্য প্রতিদিন দুকোয়া রসূন খাঁটি গাওয়া ঘি- ভেজে মাখন মাখিয়ে খেতে পারেন। খাওয়ার শেষে একটু গরম পানি বা দুধ খাবেন। এতে ভাল ফল পাওয়া যাবে।

কোলেস্টরল নিয়ন্ত্রণে রসুন: কোলেস্টরল কমাতে রসুনের ভূমিকা অপরিহার্য। প্রতিদিন কয়েকটি কোয়া কাঁচা বা আধা সিদ্ধ করে সেবনে কেলেস্টেরলের মাত্রা কম থাকে। রসূন হার্ট অ্যাটাকের ঝুঁকি কমাতে সাহায্য্য করে।শিরা-উপশিরায় প্লাক জমাতে রসুন বাধা প্রদান করে। শিরা-উপশিরার মারাত্নক রোগ অথেরোস্ক্লেরোসিসের হাত থেকে রসূন রক্ষা করে। শিরা-উপশিরায় রক্ত জমাট বাধাতেও সাহায্য করে।

ব্রনের সম্যসায় রসুন: রসূন ব্রনের সমস্যায় অনেক সহায়ক হিসেবে কাজ করে। আবার অনেক সময় আমাদের শরীরে আঁচিল হয়ে থাকে, রসুনের রস আচিলের ক্ষেত্রে উপকার করে।

বাতের ব্যাথায় রসুন: রসুন বাতের রোগে অনেক উপকার করে থাকে। প্রতিদিন দুকোয়া করে খেলে গিটের বাত সেরে যেতে পারে।

রক্ত পরিষ্কার করে রসুন: প্রতিদিন সকালে রসুনের দুটি কোয়া এক গ্লাস পরিমাণ গরম পানি সেবন করতে হবে রক্ত পরিষ্কারের জন্য। এতে রক্ত পরিষ্কার হবে এবং ত্বক ভালো থাকবে।

এই বিভাগের আরো খবর

মুলায় বাড়ে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা

অনলাইন ডেস্ক: মূলা শীতকালীন একটি...

বিস্তারিত
কম ঘুমালে কী কী ক্ষতি

অনলাইন ডেস্ক: সারা দিনের কাজকর্মের পর...

বিস্তারিত
এক যুগ ধরে বন্ধ মেডিকেল টেকনোলজিস্ট নিয়োগ

লাবণী গুহ: দীর্ঘ এক যুগ ধরে সরকারী...

বিস্তারিত
অসংক্রামক রোগে মৃত্যুর হার বাড়ছে 

লাবণী গুহ: দেশে প্রতিবছরই অসংক্রামক...

বিস্তারিত
দেশে প্রতিবছরই বাড়ছে ডায়াবেটিস রোগী

লাবণী গুহ: দেশে প্রতিবছরই বাড়ছে...

বিস্তারিত
নিউমোনিয়ায় প্রতিদিন মারা যায় ৬৭ শিশু

লাবণী গুহ: নিউমোনিয়ায় আক্রান্ত হয়ে...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *