পেঁয়াজ আমদানিতে ভারত নির্ভরতা কমাতে চায় সরকার

প্রকাশিত: ১০:২৩, ২৩ অক্টোবর ২০২০

আপডেট: ০২:৫৯, ২৩ অক্টোবর ২০২০

শাহনাজ ইয়াসমিন: পেঁয়াজ আমদানিতে ভারত নির্ভরতা যতদূর সম্ভব কমিয়ে আনতে চাইছে সরকার। পরপর দু’বছর ভারত হঠাৎ পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ করায় বিপাকে পড়ে বাংলাদেশ। তাই বিকল্প হিসেবে কয়েকটি দেশের সঙ্গে আলোচনা হয়েছে বলে বৈশাখী টেলিভিশনকে জানালেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি। তিনি বললেন, বাংলাদেশের তুলনায় ভারতে পেঁয়াজের দাম অনেক সময়ই বেশি থাকে। বিকল্প খোঁজার এটিও অন্যতম কারণ। তবে দেশে উৎপাদন বাড়ানোকেই চূড়ান্ত বিকল্প বলে মনে করেন বাণিজ্যমন্ত্রী। 

সরকারি হিসেব বলছে, বর্তমানে বাংলাদেশে ২৩ লাখ টন পেঁয়াজ উৎপাদিত হয়। কিন্তু পেঁয়াজ ঘরে তোলার সময় প্রায় পাঁচ লাখ টন নষ্ট হয়ে যায়। অর্থাৎ বাজারে পাওয়া যায় ১৮ লাখ টন। কিন্তু প্রতিবছর বাংলাদেশে পেঁয়াজের চাহিদা ৩০ লাখ মেট্রিন টন। তাই বাকি ১২ লাখ টন পেঁয়াজ আমদানি করতে হয়। আর আমদানি করা এই পেঁয়াজের মধ্যে ৮০ শতাংশই আসে ভারত থেকে। 

কিন্তু অভ্যন্তরীণ সঙ্কটের কথা জানিয়ে পরপর দুই বছর আকস্মিকভাবে পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ করে দেয় ভারত। গত বছরের সেপ্টেম্বরে পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ করার পর বাংলাদেশে দাম অস্বাভাবিক বেড়ে যায়। প্রতি কেজি ৩০০ টাকার বেশিতেও বিক্রি হয়েছে। তবে কয়েকমাস পর আবারো পেঁয়াজ রপ্তানি শুরু করে ভারত। কিন্তু এবছর সেপ্টেম্বরে আবারও পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ ঘোষণা করে দেশটি। ফলে বেকায়দায় পড়ে বাংলাদেশ।

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, নির্দিষ্ট একটি দেশের উপর বেশি নির্ভরশীলতা ছিলো বলেই পরপর দু’ বছর পেঁয়াজ নিয়ে এমন সঙ্কট হলো। তাই, আমদানির জন্য বিকল্প দেশ খুঁজছে সরকার। দেশে পেঁয়াজের উৎপাদন বাড়ানোর কোনো বিকল্প নেই বলেও জানান মন্ত্রী। 

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, করোনা অতিমারি ও পাঁচদফা বন্যায় বাজারে কিছু নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যের দাম বেড়েছে। তবে এটা সাময়িক বলে আশ্বস্ত করলেন তিনি।

এই বিভাগের আরো খবর

ফ্লোরা টেলিকমের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ

ইমদাদুল্লাহ বাবু: রাষ্ট্রায়ত্ত্ব...

বিস্তারিত
ভূমি ও গৃহহীনদের জন্য মুজিববর্ষের উপহার

শাহনাজ ইয়াসমিন: মুজিববর্ষ উপলক্ষ্যে...

বিস্তারিত
রাজধানীর যানজট কমাবে ১০টি ইউলুপ

সুমন তানভীর: রাজধানীর যানজট কমিয়ে...

বিস্তারিত
রিকন্ডিশনড গাড়ির ব্যবসায় মন্দাভাব

ইউসুফ রানা: করোনা অতিমারির নেতিবাচক...

বিস্তারিত
ডিজিটাল সেন্টারে মিলছে ২৭০ ধরণের সেবা 

ফারহানা জুঁথী: ডিজিটাল সেন্টার এখন...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *