কুড়িগ্রামে নদীগর্ভে বিলীন দুই শিক্ষা প্রতিষ্ঠান

প্রকাশিত: ০১:২২, ১৩ সেপ্টেম্বর ২০২০

আপডেট: ০১:২২, ১৩ সেপ্টেম্বর ২০২০

কুড়িগ্রাম সংবাদদাতা: বৃষ্টি ও উজানের ঢলে কুড়িগ্রামের ধরলা ও তিস্তা নদীর পানি আবারও বাড়ছে। ফলে নিচু এলাকার বেশ কিছু আমন ও সবজি ক্ষেত নিমজ্জিত হয়েছে। পানি বাড়ার ফলে বিভিন্ন এলাকায় নদ-নদীর ভাঙন তীব্র রুপ নিয়েছে। গত এক সপ্তাহে দুই শতাধিক বসতভিটা, আবাদী জমি ও দুটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান নদীগর্ভে বিলীন হয়েছে। 

তিস্তার প্রবল ভাঙনে বিলীন হয়েছে উলিপুর উপজেলার চর বজরা এলাকার একটি প্রাথমিক বিদ্যালয়, পাকা রাস্তা ও শতাধিক বাড়িঘর। সদর উপজেলার সারডোব বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধের প্রায় একশ মিটার অংশ বিলীন হওয়ার পথে।এছাড়া, ফুলবাড়ীর চর মেকলিতে একটি প্রাথমিক ও অর্ধশত ঘরাড়ি নদী গর্ভে বিলীন হয়ে গেছে। 

পানি উন্নয়ন বোর্ড জানিয়েছে, ধরলা নদীর পানি দ্রæতগতিতে বাড়ছে এবং  বিপৎসীমার মাত্র ২৮ সেন্টিমিটার নিচ দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। 


 

এই বিভাগের আরো খবর

উত্তরে পানি কমেছে, বেড়েছে ভাঙন

ডেস্ক প্রতিবেদন : দেশের উত্তরাঞ্চলের...

বিস্তারিত
মাগুরার গড়াই নদী ভাঙনে আতঙ্কে এলাকাবাসী

মাগুরা সংবাদদাতা: মাগুরার শ্রীপুর...

বিস্তারিত
বন্যায় প্রায় ৫৭৭২ কোটি টাকার ক্ষতি

নিজস্ব প্রতিবেদক: এ বছরের বন্যায় এখন...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *