ঢাকা, রবিবার, ২২ অক্টোবর ২০১৭, ৭ কার্তিক ১৪২৪, ১ সফর ১৪৩৯
শিরোনামঃ
উন্নত বাংলাদেশ গড়তে আওয়ামী লীগকে ক্ষমতায় রাখুন: জয় বেড়িবাঁধ ভেঙে বিভিন্ন জেলার নিম্নাঞ্চল প্লাবিত, ব্যাহত ফেরি চলাচল টানা বৃষ্টিতে ডুবে গেছে ঢাকার বিভিন্ন এলাকা টানা বৃষ্টিতে দেশের বিভিন্ন বন্দরের কার্যক্রমে স্থবিরতা মালয়েশিয়ায় ভূমিধসে তিন বাংলাদেশীসহ ৪ শ্রমিকের মৃত্যু কাতালোনিয়ার স্বায়ত্তশাসন বাতিল করে দিলো স্পেন কাবুলে মিলিটারি একাডেমিতে আত্মঘাতী হামলায় ১৫ ক্যাডেট নিহত ডি-এইট সম্মেলনে সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব পেয়েছে রোহিঙ্গা ইস্যু আওয়ামী লীগে জঙ্গি-সন্ত্রাসি ও চাঁদাবাজের ঠাঁই নেই: ওবায়দুল সু চি’র নীরবতায় রোহিঙ্গাদের ওপর সেনা নিপীড়ন চলছে: ইউনূস ভারী বর্ষণে কলাপাড়ায় বেড়িবাঁধ ভেঙে ১১ গ্রাম প্লাবিত রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে সরকার সম্পূর্ণ ব্যর্থ: আমীর খসরু মালয়েশিয়ায় ৩৯ বাংলাদেশিসহ ১১৩ অভিবাসী আটক একটি গোষ্ঠী রোহিঙ্গাদের সন্ত্রাসী কাজে ব্যবহার করতে চায়: কামরুল প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর সামাজিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করার আহ্বান ইনজুরির কারণে শেষ ওয়ানডেতেও খেলতে পারছেন না তামিম দিনাজপুর ও নেত্রকোনার চাষিরা দিশাহারা স্পেনের অংশ কাতালোনিয়া আছে, থাকবে: রাজা ষষ্ঠ ফিলিপ আলফাডাঙ্গায় মধুমতির ভাঙন এলাকায় ড্রেজিং প্রকল্প উদ্বোধন আফগানিস্তানে দু’টি মসজিদে আত্মঘাতী বোমা হামলা, নিহত ৭২

সীমান্তে চোরাচালান ও হত্যা ঠেকাতে প্রয়োজন বাংলাদেশ-ভারতের রাজনৈতিক সদিচ্ছা

প্রকাশিত: ০৮:২৪ , ১৩ আগস্ট ২০১৭ আপডেট: ০৮:২৪ , ১৩ আগস্ট ২০১৭

নিজস্ব প্রতিবেদক: সীমান্তে চোরাচালান ও হত্যা ঠেকাতে সবচেয়ে বেশি প্রয়োজন বাংলাদেশ ও ভারতের রাজনৈতিক সদিচ্ছা, এমনই মনে করেন নিরাপত্তা বিশ্লেষক ও বিশিষ্টজনেরা। এজন্য দুই দেশের মাঝে সংলাপের পরামর্শও দিলেন তারা।

আজ রোববার সকালে রাজধানীর ইস্কাটনে বিজ মিলনায়তনে সীমান্ত নিরাপত্তা বিষয়ক সেমিনারে একথা বলেন তারা। এর আয়োজক সেন্টার ফর গভর্নেন্স স্টাডিজ-সিজিএস। এসময় বক্তারা বলেন, পারস্পরিক সম্মান ও আন্তরিকতা না থাকলে সীমান্ত সমস্যার সমাধান সম্ভব নয়।

এসময় আলেচকরা আরো বলেন, সীমান্ত শান্তিপূর্ণ করতে অবৈধ বাণিজ্য, মাদক ও অস্ত্রের চোরাচালান এবং হত্যা বন্ধ করতে হবে। এজন্য বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে রাজনৈতিক সংলাপ ও ঐক্য প্রয়োজন বলে মত দেন তারা।

এসময় নিরাপত্তা বিশ্লেষক অবসরপ্রাপ্ত ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এম সাখাওয়াত হোসেন বলেন, বাংলাদেশ-ভারত সীমান্ত একটি জটিল বাস্তবতা। সেখানে গরু পাচার, চোরাচালান ও সীমান্ত হত্যা বন্ধ করা জরুরী। আলোচনায় বিজিবির সাবেক মহাপরিচালক অবসরপ্রাপ্ত লেফট্যানেন্ট জেনারেল মইনুল ইসলাম বলেন, সীমান্তে শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনতে প্রয়োজন কড়া নজরদারি।

পতাকা বৈঠকের আনুষ্ঠানিকতায় আটকে না থেকে সীমান্ত সুরক্ষায় অধিকতর সক্রিয়তা ও সমন্বিত পদক্ষেপ গ্রহণের পরামর্শও দেন আলোচকরা।

২০১১ সালের ৭ই জানুয়ারি বাংলাদেশের কুড়িগ্রমের অনন্তপুর সীমান্তে কাঁটাতারের বেড়া পার হওয়ার সময় ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিএসএফ-এর গুলিতে নিহত হয় কিশোরী ফেলানী। তার লাশ দীর্ঘ সময় কাঁটাতারের ওপর ঝুলে ছিল।এই হত্যাকাণ্ড নিয়ে ব্যাপক আলোচনা সমালোচনা হয়। ঐ ঘটনার পর দেশটির উচ্চ পর্যায় থকে সীমান্ত হত্যাকাণ্ড বন্ধে ব্যবস্থা নেয়ার প্রতিশ্রুতি দেয়া হয়। তারপরও উদ্বেগ কমেনি সীমান্ত নিয়ে।

মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের অধ্যাপক সাহাব এনাম খান। বলেন, ২০০০ সাল থেকে ২০১৪ পর্যন্ত বাংলাদেশ ভারত সিমান্তে বিএসএফ দ্বারা ১০০৬ বাংলাদেশী নিহত হয়েছেন। আর গেল ৮ মাসে ২১ জন।
 

এই সম্পর্কিত আরো খবর

'তদন্তের নামে হয়রানি করলে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যেরও ছাড় নেই'

নিজস্ব প্রতিবেদক: তদন্তের নামে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর কোনো সদস্য জনসাধারণকে হয়রানি করলে, সে যে সংস্থারই  হোক না কেন তাকে আইনের আওতায়...

জলাবদ্ধতা নিরসনে সমন্বিত পরিকল্পনার তাগিদ

টানা বৃষ্টিতে ডুবে গেছে ঢাকার বিভিন্ন এলাকা

নিজস্ব প্রতিবেদক: একটু বৃষ্টিতেই যেন ছোট ছোট নদীতে পরিণত হয় রাজধানীর রামপুরা, বনশ্রী ও মালিবাগ এলাকার মূল সড়কসহ সব অলিগলি। গত কয়েকদিনের...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is