আবারো ফ্লাইট বাতিল, অনিশ্চয়তায় ২৪ হাজার হজযাত্রী আপডেট: ০৬:২২, ১২ আগস্ট ২০১৭

নিজস্ব প্রতিবেদক: এবারের হজযাত্রায় জটিলতা কাটছেই না। আটকেপড়া যাত্রীদের সৌদি আরব পৌঁছে দিতে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনস ১৪টি অতিরিক্ত ফ্লাইটের ব্যবস্থা করলেও আজ তার প্রথম ফ্লাইটটিই যাত্রী সংকটে বাতিল হয়েছে। হজ পরিচালকের আশঙ্কা, একারণে অতিরিক্ত ফ্লাইটের আরও কয়েকটি বাতিল হতে পারে।

এদিকে, ভিসা জটিলতায় এখনো অনিশ্চতায় রয়েছেন প্রায় ২৪ হাজার হজযাত্রী। এমন সংকটের জন্য বিমান ও হজ অফিস দায়ী করছে এজেন্সিগুলোকে। কিন্তু হজ এজেন্সিজ অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ-হাব, উল্টো দুষছে বিমানের সমন্বয়হীনতাকে।

আশকোনা হজ ক্যাম্পে আজ শনিবার সকালে যাত্রীদের অপেক্ষার প্ল্যাটফর্মে এমন ফাঁকা দৃশ্যই বলে দিচ্ছে এদিন আবারও বাতিল হয়েছে হজ ফ্লাইট। দুপুর ১টা ৫ মিনিটে বিমানের অতিরিক্ত ফ্লাইটের প্রথমটি ছেড়ে যাওয়ার কথা থাকলেও যাত্রী স্বল্পতায় তা স্থগিত করে আবারও ১৯ আগস্ট দিনক্ষণ ঠিক করা হয়েছে।

এভাবে যাত্রী সংকটের জন্য বাতিল হচ্ছে একের পর এক ফ্লাইট। তবে এজন্য ভিসা জটিলতাকেই দুষছেন হজ এজেন্সীগুলো। যদিও ভিন্ন চিত্র জানা গেলো হজ ক্যাম্পের তথ্য থেকে। তাদের হিসাব অনুযায়ী এই মুহূর্তে ৩৩ হাজার ৮২৪জন যাত্রীর ভিসা থাকলেও টিকিট নিশ্চিত করছে না হজ এজেন্সিগুলো।

উল্টো ফ্লাইট বুকিং দিয়ে তারা বাতিল করছে। এজন্য বিমানকে ক্ষতিপূরণ দেয়ার বিধান না থাকায় কোন কোন এজেন্সি এই সুযোগ নিচ্ছে বলে মনে করছেন এজেন্সি মালিকদের কেউ কেউ। তবে ফ্লাইট বাতিল হওয়ার জন্য হজ এজেন্সি মালিকদের সংগঠন হাব দুষছে বিমানের সমন্বয়হীনতাকে।

এদিকে, হজ পরিচালকের আশঙ্কা, যাত্রী সংকটের কারণে নির্ধারিত ফ্লাইট আর বাতিল না হলেও ১৪টি অতিরিক্ত ফ্লাইটের মধ্য থেকে আরও কয়েকটি বাতিল হতে পারে। এ বছর বাংলাদেশ থেকে ১ লাখ ২৭ হাজার ১৯৮ জন হজে যাওয়ার কথা। আর, ২৪ জুলাই থেকে এ পর্যন্ত ৫৮ হাজার ১৮৮জন হজযাত্রী সৌদি আরবে পৌঁছেছেন।

 

Publisher : .