বিমানের বহরে যুক্ত হলো ‘শ্বেতবলাকা’

প্রকাশিত: ০৯:৫৮, ০৫ মার্চ ২০২১

আপডেট: ০৯:৪০, ০৫ মার্চ ২০২১

নিজস্ব প্রতিবেদক: বাংলাদেশ ও কানাডা সরকারের মধ্যে জি-টু-জি ভিত্তিতে ক্রয় করা ৩টি ড্যাশ-এইট উড়োজাহাজের তৃতীয়টি বিকেল ৫ টা ৩৬ মিনিটে দেশে পৌঁছেছে। উড়োজাহাজটির নাম রাখা হয়েছে ‘‘শ্বেতবলাকা’’।  

নতুন কেনা তিনটি ড্যাশ-এইট উড়োজাহাজের প্রথমটি "ধ্রুব তারা" ২০২০ সালের ২৭ ডিসেম্বর  বিমান বহরে যুক্ত হয় এবং দ্বিতীয় উড়োজাহাজ "আকাশ তরী" গত ২৪ ফেব্রুয়ারী দেশে পৌঁছায়। 

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের নতুন উড়োজাহাজটি বহরে যুক্ত হওয়ার পর উড়োজাহাজের সংখ্যা হলো ২১টি। এরমধ্যে ১৬ টি নিজস্ব এবং ৫টি লীজ। নিজস্ব ১৬টির মধ্যে বোয়িং৭৭৭-৩০০ ইআর ৪টি, বোয়িং ৭৮৭-৮ ৪টি, বোয়িং ৭৮৭-৯ ২টি, বোয়িং ৭৩৭ ২টি এবং ড্যাশ-এইট ৪টি।

বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী মোঃ মাহবুব আলী এমপি হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে উপস্থিত থেকে নতুন  উড়োজাহাজটি গ্রহণ করেন। 

এসময় এভিয়েশন ফ্যানফেয়ারের অংশ হিসেবে উড়োজাহাজটিকে ওয়াটার ক্যানন স্যালুট দিয়ে স্বাগত জানানো হয়। তখন আরো উপস্থিত ছিলেন বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের সচিব মোঃ মোকাম্মেল হোসেন, বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের চেয়ারম্যান মোঃ সাজ্জাদুল হাসান, বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান এয়ার ভাইস মার্শাল মোঃ মফিদুর রহমান ও বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ড. আবু সালেহ্ মোস্তফা কামাল প্রমূখ। 

উড়োজাহাজটি গ্রহণের পর তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী মোঃ মাহবুব আলী এমপি জানান- বিমানের বহরকে আধুনিকায়ন ও সেবার মান বৃদ্ধি করা হচ্ছে। তার অংশ হিসেবেই নতুন "শ্বেতবলাকা" আজ দেশে এসেছে। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শততম জন্মবার্ষিকীতে তাঁর জন্মদিন 

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের বহরে এই ড্যাশ- এইট উড়োজাহাজগুলো যুক্ত হওয়ার ফলে বিমান তার অভ্যন্তরীণ , স্বল্প দুরত্বের আন্তর্জাতিক রুট ও আঞ্চলিক রুট গুলোতে ফ্লাইট  বৃদ্ধি করতে পারবে। একই সাথে অভ্যন্তরীণ ও স্বল্প দূরত্বের আন্তর্জাতিক রুটে যাত্রীদের আরো উন্নত ইন-ফ্লাইট সেবা প্রদান করা সম্ভব হবে। 

কানাডার বিখ্যাত এয়ারক্রাফট নির্মাতা প্রতিষ্ঠান ডি হ্যাভিল্যান্ড নির্মিত অত্যাধুনিক নতুন ড্যাশ ৮-৪০০ চুয়াত্তর সিট সম্বলিত উড়োজাহাজ। পরিবেশবান্ধব এবং অত্যাধুনিক সুযোগ-সুবিধা সমৃদ্ধ এ উড়োজাহাজে রয়েছে হেপা ফিল্টার প্রযুক্তি যা মাত্র ৪ মিনিটেই ব্যাকটেরিয়া, ভাইরাসসহ অন্যান্য জীবাণু ধ্বংসের মাধ্যমে উড়োজাহাজের অভ্যন্তরের বাতাসকে সম্পূর্ণ  বিশুদ্ধ করে যা সম্মানিত যাত্রীগণের যাত্রাকে করে তোলে অধিক সতেজ ও নিরাপদ। এছাড়াও এ উড়োজাহাজে বেশি লেগস্পেস, এল ই ডি লাইটিং এবং প্রশস্ত জানালা থাকার কারনে ভ্রমণ হয়ে উঠবে অধিক আরামদায়ক ও আনন্দময়।


 

এই বিভাগের আরো খবর

প্রতীকী মঙ্গল শোভাযাত্রা 

নিজস্ব প্রতিবেদক: বাংলা নতুন বছরকে...

বিস্তারিত
কঠোর বিধি নিষেধে দেশ, সড়কে চেকপোস্ট

নিজস্ব প্রতিবেদক: কঠোর বিধিনিষেধ...

বিস্তারিত
সারাদেশে লকডাউন শুরু

নিজস্ব প্রতিবেদক: করোনা সংক্রমণ রোধে...

বিস্তারিত
ডুডলে বাংলা নববর্ষ   

বৈশাখী ডেস্ক: করোনার কারণে যখন সব...

বিস্তারিত
উৎসব-উদযাপনহীন আরও একটি বাংলা নববর্ষ

বিউটি সমাদ্দার: উৎসব, উদযাপনহীন আরও...

বিস্তারিত
পবিত্র রমজান মাস শুরু

নিজস্ব প্রতিবেদক: শুরু হলো...

বিস্তারিত
মাগুরায় সড়ক দুর্ঘটনায় একজন নিহত

মাগুরা সংবাদদাতা: মাগুরায় সড়ক...

বিস্তারিত
ভুল চিকিৎসায় প্রসূতি মৃত্যুর অভিযোগ  

গাইবান্ধা সংবাদদাতা:  গাইবান্ধায়...

বিস্তারিত
একদিনের ব্যবধানে করোনা নেগেটিভ !

ক্রীড়া ডেস্ক: একদিনের ব্যবধানে...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *