ঢাকা, রবিবার, ২৬ মে ২০১৯, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬

2019-05-25

, ২০ রমজান ১৪৪০

বীরপ্রতীক কাকন বিবি জীবন-মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে

প্রকাশিত: ১১:৩৬ , ২৬ জুলাই ২০১৭ আপডেট: ১১:৩৬ , ২৬ জুলাই ২০১৭

সিলেট প্রতিনিধি: সুনামগঞ্জের দিরাই উপজেলার শতবর্ষী মুক্তিযোদ্ধা কাকন বিবি বীরপ্রতীক এখন জীবন-মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে। অচেতন অবস্থায় ভর্তি আছেন সিলেট ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে।

অর্থের অভাবে সঠিক চিকিৎসা হচ্ছে না তাঁর। তবে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ বলছেন, খুবই গুরুত্ব দিয়েই তাঁর চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। এদিকে কাকন বিবিকে, এক পলক দেখার আশায় ভিড় করছেন শুভাকাঙ্ক্ষীরা।

কাকন বিবি-- যিনি ১৯৭১ সালে স্বামী ও তিনদিনের কন্যাসন্তানকে ঘরে রেখে গিয়ে যুদ্ধে অংশগ্রহণ করেছিলেন। পাশাপাশি মুক্তিযোদ্ধাদের গুপ্তচর হিসেবেও কাজ করেছেন তিনি। যুদ্ধশেষে বাড়ি ফিরলেও তাঁকে আর ঘরে তুলে নেননি স্বামী। একমাত্র কন্যাসন্তান সখিনাকে নিয়ে কাটিয়ে দিলেন জীবনের ৪৬টি বছর।

বর্তমানে বয়সের ভারে নুয়ে হয়ে পড়েছেন ১০৩ বছর বয়সী 'বীরপ্রতীক' খেতাব পাওয়া কাকন বিবি। হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে কাতরাচ্ছেন হাসপাতালের বিছানায়। যথাযথ চিকিৎসা পেলে কিছুটা সুস্থ হয়ে উঠবেন, এমনটা আশা স্বজনদের।

তাঁর মেয়ে সখিনা বলেন, “সরকারের কাছে আমি আমার  মায়ের জন্য সাহায্য চাই।”

এদিকে, সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ডাক্তার এ. কে. এম. মাহবুবুল হক জানান, কাকন বিবি এখন শঙ্কামুক্ত। হৃদরোগের সমস্যাটি গুরুতর না হলেও, বয়সের কারণে সমস্যার সৃষ্টি হয়েছে বলে জানান তিনি।

সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক, ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ডাক্তার এ. কে. এম. মাহবুবুল হক বলেন, “মাইনর হার্ট এটাক নিয়ে এসেছেন এখন উনি এখন শঙ্কামুক্ত।”

কাকন বিবিকে হাসপাতালে দেখতে গিয়ে তাঁর চিকিৎসার খরচ বহন করার আশ্বাস দেন সিলেটের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী ও সাবেক মেয়র বদরউদ্দিন আহমদ কামরান।

সিলেট সিটি করপোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী বলেন, “তাঁর চিকিৎসার ক্ষেত্রে যা খরচ লাগে, আমরা সিটি করপোরেশনের পক্ষ থেকে তা বহন করবো।”

সিলেট সিটি করপোরেশনের সাবেক সিটি মেয়র বদরউদ্দিন আহমদ কামরান বলেন, “তাঁকে সুস্থ করার জন্য সকল দায়দায়িত্ব নিয়েছে এবং তাঁরা তাঁকে চিকিৎসা করাচ্ছে।”

মুক্তিযুদ্ধে জীবন বাজি রাখা কাকন বিবি’র জীবনের শেষ দিনগুলোতে তাঁকে রাষ্ট্রীয়ভাবে সম্মান দেখানো হবে এবং তাঁর চিকিৎসার জন্য সরকার হাত বাড়িয়ে দেবে-- এমনটাই প্রতাশা সিলেটবাসীর।
 

এই বিভাগের আরো খবর

মিশ্র সবজি চাষে গোপালগঞ্জের পাঁচ হাজার কৃষকের সফলতা

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি: মিশ্র সবজি চাষ করে সফলতা পেয়েছেন গোপালগঞ্জের প্রায় পাঁচ হাজার কৃষক। একই জমিতে একাধিক সবজি চাষ করছেন তারা। কৃষকেরা...

ঝিনাইগাতীর ‘কাঁটাখালী সেতু’ পুন:নির্মাণ না হওয়ায় দুর্ভোগ 

শেরপুর প্রতিনিধি: শেরপুরের ঝিনাইগাতীর ‘কাঁটাখালী সেতু’ পুন:নির্মাণ না হওয়ায় দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে ১৫ গ্রামের প্রায় ৩০ হাজার মানুষকে।...

আন্তর্জাতিক মানে উন্নীত হচ্ছে সৈয়দপুর বিমানবন্দর 

সৈয়দপুর প্রতিনিধি: আন্তর্জাতিক মানে উন্নীত হচ্ছে নীলফামারীর সৈয়দপুর বিমানবন্দর। উত্তরের জনপদের এই বিমানবন্দর আন্তর্জাতিক মর্যাদা পেলে...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is