ঢাকা, বুধবার, ১৭ জানুয়ারী ২০১৮, ৪ মাঘ ১৪২৪, ২৯ রবিউস সানি ১৪৩৯
শিরোনামঃ
বরেণ্য সংগীতশিল্পী শাম্মী আক্তার আর  নেই রাজধানীর বাসাবাড়িতে তীব্র গ্যাস সংকট গণতান্ত্রিক অগ্রযাত্রায় বাংলাদেশ : প্রণব আট ব্যাংকের নিয়োগ পরীক্ষা বাতিল রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন সমাপ্ত হবে দুই বছরের মধ্যে মেয়র পদে তাবিথই ২০ দলীয় জোটের প্রার্থীঃ রিজভী খালেদা আগামী প্রধানমন্ত্রীঃ মওদুদ অনুপ্রবেশ নিয়ে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ভারতের কড়া হুঁশিয়ারি এতিমখানা দুর্নীতি মামলায় খালেদা জিয়ার পক্ষে যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শেষ কলম্বিয়ায় সেতু ধসে নিহত ৯ ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনায় আইনি বাধা নেই বাল্যবিয়ে আজও দেশের বড় সামাজিক সমস্যা নিরোধ আইন করেও বন্ধ হয়নি বাল্যবিয়ের চর্চা ২০৩০ সালের মধ্যে বাল্যবিয়ে অর্ধেকে নামানোর ঘোষণা সরকারের শিক্ষা ও স্বাস্থ্যের জন্য বাল্যবিয়ে ঝুঁকিপূর্ণ চাঁদপুরে পিকআপ-অটোরিকশার সংঘর্ষে নিহত ৩ বিয়ের গসিপে বিরক্ত সোনাম কাপুর

উত্তমকুমার, আজও অমলিন ভক্তহৃদয়ে

প্রকাশিত: ০৮:৪৫ , ২৫ জুলাই ২০১৭ আপডেট: ০৮:৪৫ , ২৫ জুলাই ২০১৭

বিনোদন ডেস্ক: উত্তমকুমার। অভিনয়ের জাদুকর বললে মোটেও ভুল বলা হবে না, যিনি উপহার দিয়ে গেছেন অনেক কালজয়ী চলচ্চিত্র। পেয়েছেন 'মহানায়ক' উপাধি।

মহানায়ক উত্তমকুমারের ৩৭তম মৃত্যুবার্ষিকী ছিলো গতকাল ২৪ জুলাই। ১৯৮০ সালের এ দিনে না ফেরার দেশে পাড়ি জমান কিংবদন্তী এই অভিনেতা। বাঙালি দর্শকদেরকে তিনি উপহার দিয়েছেন একের পর এক কালজয়ী চলচ্চিত্র। সুচিত্রা সেনের সাথে জুটি বেঁধে আবেগে ভাসিয়েছেন দর্শকদের। মৃত্যুর তিন দশক পরও তাই ভক্ত-শুভানুধ্যায়ীদের কাছে তিনি অমলিন।

উত্তমকুমারের আসল নাম অরুণ কুমার চট্টোপাধ্যায়। জন্ম ১৯২৬ সালের ৩ সেপ্টেম্বরে, কলকাতার আহিরিটোলা স্ট্রিটে। প্রথম অভিনীত ছবি ‘মায়াডোর’। তবে তাঁর মুক্তি পাওয়া প্রথম ছবি ‘দৃষ্টিদান’। সেটি ১৯৪৮ সালের ঘটনা। অবশ্য তখনও নায়ক হয়ে ওঠেননি এই মহানায়ক। ১৯৪৯ সালে ‘কামনা’ ছবিতে প্রথম কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করেন উত্তম কুমার।

সাফল্য ধরা দেয় আরো পরে, ১৯৫৪ সালে ‘অগ্নিপরীক্ষা’ ছবি দিয়ে। আর সেই ছবিতে নায়িকা ছিলেন সুচিত্রা সেন। যাত্রা শুরু হলো বাংলা চলচ্চিত্রের জনপ্রিয় জুটি ‘উত্তম-সুচিত্রা’র। দু’জনে একে একে অভিনয় করলেন ‘সাড়ে চুয়াত্তর’, ‘পথে হলো দেরী’, ‘অগ্নিপরীক্ষা’, ‘শিল্পী’, ‘সাগরিকা’, ‘হারানো সুর’ ও ‘সপ্তপদী’সহ অনেকগুলো ছবিতে। এসব চলচ্চিত্র আজও বাঙালির খুব ভালো লাগার।

মহানায়ককে ঘিরে যে মোহ বিস্তার, যে গুঞ্জরণ, যে কৌতূহল-- সবই শুরু হয়েছিলো ১৯৫৪ সালের সেই সন্ধিক্ষণ থেকে। সে মুগ্ধতা আজও কাটিয়ে উঠতে পারেননি উত্তম-ভক্তরা। প্রজন্ম থেকে প্রজন্মান্তরে তা ছড়িয়ে পড়েছে।

তাই তো মৃত্যুর এত বছর পরও শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করা হয় কালজয়ী এই মহানায়ককে। 
 

এই বিভাগের আরো খবর

৫১ বছর পূর্তি উৎসব শুরু বৃহস্পতিবার

চট্টগ্রামের সঙ্গীত ভবন চলছে খুড়িয়ে

চট্টগ্রাম প্রতিনিধি: চট্টগ্রামে সঙ্গীতের বাতিঘর হিসেবে পরিচিত সঙ্গীত ভবন। সাংস্কৃতিক জগতের অনন্য এই  প্রতিষ্ঠানটি শাস্ত্রীয়সহ...

ঢাকায় চট্টগ্রামের ‘বাতিঘর’

নিজস্ব প্রতিবেদক: যাত্রা শুরু করলো চট্টগ্রামের বিখ্যাত বই বিক্রয় কেন্দ্র বাতিঘর, ঢাকা শাখা। শুক্রবার সকালে রজাধানীর বিশ্ব সাহিত্য...

নড়াইলে সুলতান মেলা শুরু

নড়াইল প্রতিনিধি: বিশ্ববরেণ্য চিত্রশিল্পী এস এম সুলতানের ৯৩তম জন্মজয়ন্তী উপলক্ষে নড়াইলে শুরু হলো সুলতান মেলা। মঙ্গলবার নড়াইল সরকারি...

ঠাকুরগাঁওয়ে মুক্তিযুদ্ধ ও ঐতিহ্যের আলোকচিত্র প্রদর্শনী শুরু

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি: ঠাকুরগাঁওয়ে জেলা ফটোগ্রাফিক সোসাইটির আয়োজনে মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ভবনে শুরু হয়েছে পাঁচদিন ব্যাপী আলোকচিত্র...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is