রোহিঙ্গাদের ফেরত নিতে আরো সময় চেয়েছে মিয়ানমার

প্রকাশিত: ০৬:৩২, ১৯ জানুয়ারি ২০২১

আপডেট: ১০:১৩, ১৯ জানুয়ারি ২০২১

নিজস্ব প্রতিবেদক: বাংলাদেশে আশ্রিত রোহিঙ্গাদের ফেরত নিতে আরো সময় চেয়েছে মিয়ানমার। যথেষ্ঠ প্রস্তুতি না থাকায় মিয়ানমার সরকার এই সময় চেয়েছে বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্র সচিব মাসুদ বিন মোমেন। আজ মঙ্গলবার (১৯ জানুয়ারি) দুপুরে, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে বাংলাদেশ-চীন-মিয়ানমারের ত্রিপাক্ষিক ভার্চুয়াল বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের তিনি আরও জানান, চলতি বছরের এপ্রিলের মধ্যেই রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন শুরু করতে তাগিদ দিয়েছে বাংলাদেশ। 

২০১৭ সালের ২৫শে আগস্ট রোহিঙ্গা সংকট শুরুর পর থেকেই কক্সবাজারে আশ্রিত রোহিঙ্গাদের মিয়ানমারে ফেরত পাঠাতে কাজ করে যাচ্ছে বাংলাদেশ। সেবছরের নভেম্বরে বাংলাদেশ মিয়ানমারের মধ্যে প্রত্যাবাসন সংক্রান্তচুক্তি হলেও মিয়ানমারের অনীহার কারণে প্রত্যাবাসন শুরু হয়নি। এমন পরিস্থিতিতে গেল বছরের সেপ্টেম্বরে রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে বাংলাদেশ মিয়ানমারের মধ্যে মধ্যস্থতা করতে প্রস্তাব দেয় চীন। 

মঙ্গলবার দুপুরে চীনের মধ্যস্থতায় অনুষ্ঠিত হয় বাংলাদেশ-মিয়ানমার বৈঠক। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে অনুষ্ঠিত ভার্চুয়াল বৈঠকে বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করেন পররাষ্ট্র সচিব মাসুদ বিন মোমেন, মিয়ানমারের আন্তর্জাতিক উন্নয়ন বিষয়ক উপমন্ত্রী হাউ দো সোয়ন এবং চীনের পক্ষে ছিলেন দেশটির ভাইস পররাষ্ট্রমন্ত্রী লুও জাউহুই। বৈঠকে রোহিঙ্গাদের যাচাই-বাছাই প্রক্রিয়া ত্বরান্বিত করা, জয়েন্ট ওয়ার্কিং কমিটির নিয়মিত বৈঠকসহ বাংলাদেশ প্রস্তাবিত সাতটি শর্তে রাজি হয় মিয়ানমার।  

বৈঠক শেষে পররাষ্ট্র সচিব সাংবাদিকদের জানান, মিয়ানমার বলেছে প্রত্যাবাসনের জন্য রাখাইন এখনো পুরোপুরি প্রস্তুত হয়নি। 

তবে চলতি বছরের প্রথমার্ধেই বাংলাদেশ রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন শুরুর জন্য মিয়ানমার সরকারকে তাগিদ দিয়েছে বলে জানান পররাষ্ট্র সচিব।


 

এই বিভাগের আরো খবর

লড়াই করে এগিয়ে যাচ্ছে নারী

রীতা নাহার: নানা ধরনের বৈষম্য ও...

বিস্তারিত
দেশে করোনা সংক্রমণের এক বছর

ইমদাদুল্লাহ বাবু: দেশে করোনা...

বিস্তারিত
আজ আন্তর্জাতিক নারী দিবস

নিজস্ব প্রতিবেদক: আজ (সোমবার, ০৮ই...

বিস্তারিত
মুক্তিযুদ্ধের অভিজ্ঞতা নিয়ে বই প্রকাশ

নিজস্ব সংবাদাতা: মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক...

বিস্তারিত
উপসচিব পদোন্নতি পেলেন ৩৩৭ কর্মকর্তা

নিজস্ব প্রতিবেদক: এবার সিনিয়র...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *