ঢাকা, শনিবার, ১৭ নভেম্বর ২০১৮, ৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৫

2018-11-17

, ৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪০

জনশক্তি রফতানিতে ৯০ শতাংশের বেশি মানুষ দুর্নীতির শিকার : টিআইবি রিপোর্ট

প্রকাশিত: ০৫:০০ , ১১ মার্চ ২০১৭ আপডেট: ০৫:০০ , ১১ মার্চ ২০১৭

বিদেশে জনশক্তি রফতানির ক্ষেত্রে ৯০ শতাংশের বেশি মানুষ দুর্নীতির শিকার হচ্ছে। ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ (টিআইবি)’র জরিপে এ তথ্য তুলে ধরে বলা হয়েছে, জনশক্তি রফতানির পুরো প্রক্রিয়া দালাল ও এজেন্ট নির্ভর হওয়ায় সরকার তাদের বিরুদ্ধে কার্যকর ব্যবস্থা নিতে পারছে না।

আজ বৃহস্পতিবার সকালে রাজধানীর মাইডাস ভবনে সংবাদ সম্মেলনে এ রিপোর্ট প্রকাশ করা হয়।শ্রম অভিবাসন প্রক্রিয়ায় সমস্যা ও এর উত্তরণের উপায় নিয়ে প্রতিবেদনটি প্রকাশ করে টিআইবি।

এ সময় মূল  প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন মঞ্জুর-ই -খোদা এবং শাহজাদা এম. আকরাম। অনুষ্ঠানে তাঁরা বলেন, জনশক্তি রফতানি প্রক্রিয়ায় ৬৭ শতাংশ অর্থই দালালরা রেখে দেয়। ভিসার ছাড়পত্রের ক্ষেত্রে ৫ থেকে ১০ হাজার টাকা অতিরিক্ত নেয়ারও অভিযোগ আছে বলে প্রতিবেদনে জানান তাঁরা।।

টিআইবি'র নির্বাহী পরিচালক ড. ইফতেখারুজ্জামান বলেন, বিদেশে চাকরি দেয়ার তুলনায় কর্মী সরবরাহ বেশি হওয়ায় এবং সুশাসনের অভাবে জনশক্তি রফতানি বাধাগ্রস্ত হচ্ছে। ফলে গত বছরের তুলনায় রেমিটেন্স কমে গেছে। পাশাপাশি রফতানি প্রক্রিয়ায় সিন্ডিকেটের কারণে জিটুজি প্রকল্প সফল হয়নি বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

তিনি আরো বলেন, রফতানি প্রক্রিয়া এজেন্ট ও দালাল-নির্ভর হওয়ায় সরকারও এদের কাছে জিম্মি। নিয়ন্ত্রক হিসেবে মন্ত্রণালয়ও তাদের নির্দিষ্ট দায়িত্ব পালন করতে পারছে না। এ ছাড়া, দূতাবাসগুলোর শ্রম শাখায় অর্থের মাধ্যমে ভিসা বিক্রি হওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে বলেও তিনি জানান।

দুর্বল আই্নি কাঠামো সংস্কার এবং কূটনৈতিক তৎপরতা জোরদার করার মাধ্যমে এ সমস্যা সমাধান করা সম্ভব বলে মনে করেন তাঁরা।
 

 

এই বিভাগের আরো খবর

সরকারি অনুষ্ঠানে উপস্থিতি: প্রধানমন্ত্রীতে অনাপত্তি, অর্থমন্ত্রীতে আপত্তি ইসির

নিজস্ব প্রতিবেদক: বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিস প্রশাসন একাডেমির এক অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রীর উপস্থিতি বিষয়ে অবহিত করা হলে অনাপত্তি জানিয়েছে...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is