উচ্ছেদের মামলায় বাড়িমালিক তানভীরকে আটকের পর জামিন লাভ

প্রকাশিত: ০৬:০৩, ২৩ নভেম্বর ২০২০

আপডেট: ০৬:০৩, ২৩ নভেম্বর ২০২০

নিজস্ব প্রতিবেদক: প্রিমিয়াম সুইটসের দোকান ভাংচুর উচ্ছেদের মামলায় এলিগ্যান্ট গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) তানভীর আহমেদের জামিন মঞ্জুর করেছেন আদালত। আজ (সোমবার) দুপুরে মুখ্য মহানগর হাকিম (সিএমএম) আদালতের চীফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মোর্শেদ আল মামুন শুনানি শেষে তাকে জামিনের আদেশ দেন।

এর আগে সকালে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে তাকে আটক করে ইমিগ্রেশন পুলিশ। পরে তাকে উত্তরা পূর্ব থানায় হস্তান্তর করা হয়।

তিন মাস পলাতক থাকার পর তুরষ্ক থেকে আজ (সোমবার) সকালে ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে নামলে ইমিগ্রেশন পুলিশ তানভীরকে আটক করে। পরে উত্তরা পূর্ব থানায় হস্তান্তর করা হলে পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে আদালতে পাঠায়।

পরে দু’পক্ষের আইনজীবীর যুক্তিতর্কের পর আদালত তানভীরকে জামিন দেন। পুলিশের তদন্ত প্রতিবেদন জমা না দেয়া পর্যন্ত তানভীরের জামিন বহাল থাকবে।

চলতি বছরের আগস্ট মাসে আদালতের নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে প্রিমিয়াম সুইটসের উত্তরা শোরুমের সব মালামাল জব্দ করে বাড়ির মালিক তানভীর। ঘটনায় মামলা করা হলেও তা তুলে নিতে নানা হুমকি দেয়া হয় বলে অভিযোগ প্রিমিয়াম সুইটস কর্তৃপক্ষের।

প্রসঙ্গত উত্তরা নম্বর সেক্টরের তানভীর আহমেদ এর মালিকানাধীন জে হাইটসে ২০১৮ সালের পহেলা এপ্রিল ভাড়া নেয় প্রিমিয়াম সুইটস কর্তৃপক্ষ। করোনা অতিমারির কারণে গত মার্চ মাসে বন্ধ হয়ে যায় এই শাখা। লকডাউনের পর শোরুম খোলা হলে মার্চ-এপ্রিলের ভাড়া পরিশোধের অঙ্গীকার করে তারা। কিন্তু ভাড়া পরিশোধের জন্য মাত্র তিনদিন সময় বেঁধে দেন ভবন মালিক।

এরপর তালা ঝুলিয়ে দেয়া হয় শোরুমে। ১০ বছরের চুক্তি থাকলেও সাত দিনের মধ্যে ফ্লোর ছাড়তে বলেন ভবন মালিক। প্রিমিয়াম সুইটস এই ভবন মালিকের এমন সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে মামলা করেন মালিকের নোটিশ স্থগিত করে। এরপর ভবন মালিক শোরুম ভেঙে সব মালামাল জব্দ করেন।

এই বিভাগের আরো খবর

মুক্তি পেলেন বিনাদোষে কারাগারে থাকা আরমান

গাজীপুর সংবাদদাতা: বিনা অপরাধে পাঁচ...

বিস্তারিত
হত্যা মামলায় নারীসহ পাঁচজনের মৃত্যুদণ্ড

মানিকগঞ্জ সংবাদদাতা: মানিকগঞ্জের...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *