ব্যায়ামের পর যেসব খাবার একেবারেই নয়

প্রকাশিত: ০৯:২৭, ২৫ অক্টোবর ২০২০

আপডেট: ০৯:৩২, ২৫ অক্টোবর ২০২০

অনলাইন ডেস্ক: সুস্বাস্থ্যের জন্য দেহের ওজন কমানো, সুগঠিত মাংসপেশির জন্য অনেকেই ব্যায়াম করেন। ব্যায়াম করছেন ভালো কথা, কিন্তু আপনি যদি অস্বাস্থ্যকর খাবার খান তাহলে ব্যায়াম কোন কাজে আসবে না। এতে দেহের ওজন যেমন নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যাবে তেমনি উপকারও পাওয়া যাবে না। এজন্য ব্যায়াম করার পাশাপাশি কিছু খাবারও নিয়ন্ত্রণ করতে হবে।

তাহলে জেনে নিন কোন খাবারগুলো ব্যায়ামের পরে একেবারেই নয়: অতিরিক্ত চিনিযুক্ত খাবার: যেকোনো অতিরিক্ত মিষ্টি খাবার, শরবত, কোমল পানীয়, বাড়তি চিনি দিয়ে চা ব্যায়ামের পর পরই খাওয়া উচিত নয়। সুস্থ থাকতে চাইলে চিনিযুক্ত খাবার পরিহার করতে হবে। অনেকেই যেই ভুলটা করে থাকে সব সময় তা হলো ব্যায়ামের পর পরই তৃষ্ণা পেলে কোমল পানীয় কিংবা এনার্জি ড্রিংক খেয়ে নেন। কিন্তু কোমল পানীয়তে অতিরিক্ত চিনি থাকে যা স্বাস্থ্যর জন্য খুবই ক্ষতিকর। তৃষ্ণা পেলে কোমল পানীয় না খেয়ে পানি অথবা চিনি ছাড়া আইস চা খান।

অতিরিক্ত লবণযুক্ত খাবার: ব্যায়াম করলে ঘামের সাথে প্রচুর পরিমাণে পানি ও পটাশিয়াম বের হয়ে যায় শরীর থেকে। এই পটাশিয়ামের অভাব পূরণের জন্য অনেকেই অতিরিক্ত লবণ যুক্ত খাবার বা পানীয় খেয়ে থাকেন। যদিও এর প্রয়োজন নেই। প্রতিদিন খাবারের সঙ্গে যে পরিমাণ লবণ দেহে প্রবেশ করে তাই যথেষ্ট। পটাসিয়ামের অভাব দূর করতে পুষ্টিকর খাবার খান। বিশেষ করে কলায় প্রচুর পটাশিয়াম আছে। তাই ব্যায়াম করার পর ক্ষুধা লাগলে কলা ও কিছু শুকনো ফল খেয়ে নিতে পারেন। এতে শরীরের শক্তি দ্রুত ফিরে পাবেন।

ফ্যাটযুক্ত খাবার: অনেকেই ব্যায়াম করেন আবার পনির, বার্গার, পিজ্জা, বিরিয়ানি, পোলাও ইত্যাদি খাবার খেয়ে ফেলেন। কিন্তু সুস্থ থাকতে চাইলে ব্যায়াম করেই অতিরিক্ত ফ্যাট যুক্ত খাবার খাওয়া একেবারেই উচিত নয়। ব্যায়াম করার পর যেকোনো ধরনের ফাস্ট ফুড, ফ্যাট যুক্ত খাবার অথবা তেলে ভাজা পোড়া খাবার এড়িয়ে চলুন। ব্যায়াম করার পর এ ধরনের খাবার খাওয়ার প্রতি ঝোঁক থাকলে মেদ কমার বদলে রক্তের খারাপ কোলেস্টেরল বেড়ে গিয়ে হার্টের সমস্যা হওয়ার সম্ভাবনা বেড়ে যায়।

কেক ও পেস্ট্রি: কেক, পেস্ট্রি, ক্রিম রোল, ডোনাট ইত্যাদি খাবার খেতে খুবই সুস্বাদু। আর ব্যায়াম করার পর ক্ষুধা লাগলে এগুলো খেতেও বেশ ভালো লাগে। ব্যায়াম করার পর শরীরের হারানো গ্লাইকোজেন পূরণ করার জন্য কার্বোহাইড্রেটের বেশ চাহিদা থাকে। কেক কিংবা পেস্ট্রি জাতীয় খাবারগুলোতে প্রচুর কার্বোহাইড্রেট আছে কিন্তু এগুলোর পুষ্টি উপাদান খুবই কম। তাই এসব খাবার এড়িয়ে যাওয়াই ভালো।

শুধু কাঁচা শাক সবজি: কেউ কেউ ব্যায়াম করে ওজন কমানোর পাশাপাশি ডায়েটও করে থাকেন। ব্যায়াম করলে এমনিতেই শরীরের প্রচুর ক্যালরি ক্ষয় হয়। এজন্য শরীরে শক্তি যোগানোর জন্য ব্যায়ামের পর দরকার আদর্শ খাবার। ব্যায়ামের পর শরীরের জন্য ক্যালরি, ভিটামিন, প্রোটিনযুক্ত সুষম খাবার দরকার। যারা ডায়েটে শুধুমাত্র সালাদ বা কাঁচা শাক সবজি রাখে তাদের শরীরের প্রয়োজনীয় ক্যালরির চাহিদা পূরণ হয় না।

এই বিভাগের আরো খবর

শীতে গরম থাকতে যা খাবেন

অনলাইন ডেস্ক:  সারাদেশ শীতে জবুথবু।...

বিস্তারিত
ত্বক ও চুলের যত্নে অ্যালোভেরা

অনলাইন ডেস্ক: অ্যালোভেরা প্রাচীনকাল...

বিস্তারিত
ঘরেই মাশরুমের চাষ

অনলাইন ডেস্ক: মাশরুম হাই...

বিস্তারিত
ওমেগা-৩ সমৃদ্ধ খাবার

অনলাইন ডেস্ক: ওমেগা-৩ ফ্যাটি অ্যাসিড...

বিস্তারিত
মানসিক চাপ কমাতে কফি

অনলাইন ডেস্ক: দিনের শুরুতে বা দিনের...

বিস্তারিত
রোদ থেকে ত্বক সুরক্ষার উপায়

অনলাইন ডেস্ক: সূর্যের আলো আমাদের...

বিস্তারিত
শীতে চুলের যত্ন

অনলাইন ডেস্ক: শীতকালে বাতাস শুষ্ক...

বিস্তারিত
খুশকি দূর করার ঘরোয়া উপায়

অনলাইন ডেস্ক: খুশকি বা ড্যানড্রপ নিয়ে...

বিস্তারিত
আসল খেজুর গুড়ের উপকারিতা

অনলাইন ডেস্ক: শীত মানেই ঘরে ঘরে পিঠা...

বিস্তারিত
শীতে সরিষার তেল ব্যবহারের উপকারিতা

অনলাইন ডেস্ক: সরিষার তেলের রান্না...

বিস্তারিত
ত্বকের যত্নে চন্দন

অনলাইন ডেস্ক: ত্বকের উজ্জ্বলতা...

বিস্তারিত
শীতে সুস্থ থাকতে যা খাবেন

অনলাইন ডেস্ক: শীতের শুরুতে বাড়ে...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *