হাসপাতাল ও ক্লিনিকের লাইসেন্স পেতে ১৭ হাজার আবেদন

প্রকাশিত: ০৩:০৭, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০

আপডেট: ০৩:৩৭, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০

ইমদাদুল্লাহ বাবু: সারাদেশে বেসরকারি হাসপাতাল ও ক্লিনিক পরিচালনার জন্য প্রায় ১৭ হাজার আবেদন জমা পড়েছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরে। এর মধ্যে পাঁচ সহস্রাধিক প্রতিষ্ঠানকে লাইসেন্স দেয়া হয়েছে। নানা জটিলতার কারণে আটকে আছে কয়েক হাজার প্রতিষ্ঠানের আবেদন। তবে এসব আবেদনের বাইরে আরো কোন প্রতিষ্ঠান চলছে কিনা তা স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অজানা।

রাজধানীসহ সারাদেশে চালু আছে বহু বেসরকারি হাসপাতাল, ক্লিনিক, ডায়াগনস্টিক সেন্টার ও বøাড ব্যাঙ্ক। এগুলোর সঠিক সংখ্যা এবং অনুমোদনের বিষয়ে নজরদারি নেই। রিজেন্ট হাসপাতাল ও জেকেজি গ্রæপের প্রতারণার খবর প্রকাশের পর এ নিয়ে তৎপর হয় স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। স্বাস্থ্য সেবা প্রদানকারী সব বেসরকারী প্রতিষ্ঠানকে লাইসেন্স নিতে কিংবা নবায়ন করতে সময় বেধে দেয় তারা।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের দেয়া সব শেষ তথ্য অনুযায়ী, দেশের ৮ বিভাগে বেসরকারি স্বাস্থ্য সেবা প্রদানকারী ১৬ হাজার ৯৮৬টি প্রতিষ্ঠান লাইসেন্স পেতে ও নবায়ন করতে আবেদন করেছে। এরমধ্যে ১২ হাজার ৮৭১টি নতুন আবেদন। ৪ হাজার ১১৫টি আবেদন পড়েছে নবায়নের জন্য। এসবের মধ্যে, ১ হাজার ৮০১টি হাসপতাল ও ক্লিনিক, ৩ হাজার ২৬৫টি ডায়াগনোস্টিক সেন্টার এবং ৬০টি ব্লাড ব্যাঙ্ককে অনুমোদন দেয়া হয়েছে।

নানা সমস্যার কারণে বহু হাসপাতাল ও ক্লিনিক লাইসেন্স প্রক্রিয়ায় যুক্ত হতে পারেনি বলে জানিয়েছে, বেসরকারী স্বাস্থ্য সেবা প্রাদনকারী প্রতিষ্ঠানগুলোর সংগঠন।

এবার অনুমোদন না নিলে অনিবন্ধিত প্রতিষ্ঠানগুলো বন্ধ করে দেয়া হবে বলে জানিয়েছেন, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরে পরিচালক (হাসপাতাল ও ক্লিনিক) ফরিদ হোসেন মিয়া।

এক মাস সময় দিয়ে গত ২৩ জুলাই বেসরকারি স্বাস্থ্য সেবা দানকারী প্রতিষ্ঠানগুলোকে লাইসেন্স নবায়ন বা নিবন্ধনের জন্য আবেদন করতে নির্দেশ দিয়েছিলো স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়।

এই বিভাগের আরো খবর

উদ্যোক্তা গড়ে তুলতে চায় সরকার

ফারহানা জুঁথী: দেশের কর্মক্ষম...

বিস্তারিত
পেঁয়াজ আমদানিতে ভারত নির্ভরতা কমাতে চায় সরকার

শাহনাজ ইয়াসমিন: পেঁয়াজ আমদানিতে ভারত...

বিস্তারিত
নারী ও শিশুদের সুরক্ষায় গঠিত কমিটি নিষ্ক্রিয়

শাহনাজ ইয়াসমিন: নারী ও শিশুদের প্রতি...

বিস্তারিত
অবাধে বিক্রি হচ্ছে যৌন উত্তেজক ওষুধ

আশিক মাহমুদ: বড় বড় ফ্যার্মেসি থেকে...

বিস্তারিত
নভেম্বরেও খুলবে না শিক্ষা-প্রতিষ্ঠান

শাহনাজ ইয়াসমিন: করোনার দ্বিতীয়...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *