করোনার ধকল কাটিয়ে ঘুরে দাঁড়াচ্ছে রপ্তানি আয়

প্রকাশিত: ১০:১২, ১২ আগস্ট ২০২০

আপডেট: ১১:৪৩, ১২ আগস্ট ২০২০

মেহের মণি: করোনার ধকল কাটিয়ে ঘুরে দাঁড়াতে শুরু করেছে দেশের রপ্তানি আয়ের চাকা। মে মাস থেকে একটু একটু করে বাড়তে থাকে রপ্তানি। জুলাই মাসে এসে তা লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়ে যায়। আর এই রপ্তানি আয় বৃদ্ধিতে প্রচলিত পণ্যগুলোর তুলনায় অপ্রচলিত পণ্যের ভূমিকা বেশি। গবেষকরা আশা করছেন, ইউরোপের বাজারে কর্মচাঞ্চল্য তৈরি হওয়ায় আগামীতেও এই ধারা অব্যাহত থাকবে।

করোনাভাইরাস মহামারীতে বিশ্ব অর্থনীতি স্থবির হয়ে পড়ার প্রভাবে চলতি বছরের জানুয়ারি মাস থেকেই কমতে থাকে দেশের রপ্তানি আয়। আর গত এপ্রিলে তা ঠেকে তলানিতে। তবে সীমিত আকারে কারখানা খোলার পর মে মাস থেকে একটু একটু করে বাড়তে থাকে রপ্তানি আয়।

গত তিন মাসে সেই ইতিবাচক ধারা অব্যাহত থাকে এবং জুলাই মাসে রপ্তানি আয় ৩৯১ কোটি ডলারে পৌঁছায়।

করোনা পরিস্থিতিতে রপ্তানি আয়ের এই ধারা কতটা বজায় থাকবে? অর্থনীতির এই গবেষক মনে করেন এই ধারা আগামীতেও অব্যাহত থাকবে বলে মনে করেন সিপিডি'র ফেলো মুস্তাফিজুর রহমান।

ইপিবির হালনাগাদ প্রতিবেদনে দেখা গেছে, রপ্তানিতে সবচেয়ে ভাল করেছে -পাট শিল্প, হস্তশিল্প, পাদুকা, কেমিক্যাল, প্রকৌশল, আসবাবপত্র এবং কৃষির মত অপ্রচলিত খাতের পণ্যগুলো। আর রপ্তানি আয়ের প্রধান দুটি খাত তৈরি পোশাক শিল্প এবং চামড়া ও চাড়াজাত পণ্যের রপ্তানির ধারা এখনও নেতিবাচক।

অপ্রচলিত পণ্যগুলোর নতুন করে চাহিদা সৃষ্টি হওয়ায় এসব পণ্যের রপ্তানি বেড়েছে। তাই এই সুযোগ কাজে লাগাতে কর্মকৌশল ঠিক করার পরামর্শ দেন তিনি।

এই বিভাগের আরো খবর

মিলগেটে চাল বিক্রির দাম নির্ধারণ

নিজস্ব প্রতিবেদক: মিলগেটে চাল...

বিস্তারিত
ক্রেডিট কার্ডে ২০ শতাংশের বেশি সুদ নয়

নিজস্ব প্রতিবেদক: কোনো অবস্থাতেই...

বিস্তারিত
সারাদেশে আবারো বাড়ছে পেঁয়াজের দাম

নিজস্ব সংবাদদাতা: রাজধানীসহ...

বিস্তারিত
স্থিতিশীল হচ্ছে পেঁয়াজের বাজার

নিজস্ব প্রতিবেদক: ধীরে ধীরে...

বিস্তারিত
পেঁয়াজ আমদানিতে ৫ শতাংশ শুল্ক প্রত্যাহার

নিজস্ব প্রতিবেদক: প্রধানমন্ত্রীর...

বিস্তারিত
সীমান্তে আটকে থাকা ভারতীয় পেঁয়াজ ঢুকছে

অনলাইন ডেস্ক: অবশেষে স্থলবন্দগুলোতে...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *