সাবরিনাসহ ৬ জনকে আসামি করে চার্জশিট কাল 

প্রকাশিত: ০৪:৪১, ০৪ আগস্ট ২০২০

আপডেট: ০৪:৪৬, ০৪ আগস্ট ২০২০

নিজস্ব প্রতিবেদক: জেকেজি চেয়ারম্যান ডা. সাবরিনা আরিফ চৌধুরী ও তার স্বামী জেকেজির প্রধান নির্বাহী আরিফ চৌধুরীর বিরুদ্ধে করোনা টেস্ট জালিয়াতি, অর্থ আত্মসাৎ ও প্রতারণা মামলার চার্জশিট আগামীকাল বুধবার আদালতে জমা দেয়া হবে । আজ মঙ্গলবার (০৪ আগস্ট) সকালে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের অতিরিক্ত কমিশার আব্দুল বাতেন সাংবাদিকদের এসব তথ্য জানান। 

এসময় তিনি জানান, এই প্রতারণার সাথে ডা. সাবরিনা ও তার স্বামী অরিফ চৌধুরীসহ ৬ জনের জড়িত থাকার প্রমাণ পাওয়ায় তাদের অভিযুক্ত করে চার্জশিট চূড়ান্ত করা হয়েছে। 

আব্দুল বাতেন জানান, এই ১ মাস ১৩ দিনে তাদের বিরুদ্ধে পাওয়া সকল অভিযোগ যাচাই বাছাই করে তথ্য প্রমাণের ভিত্তিতে চার্জশিট চূড়ান্ত করা হয়েছে। 

তদন্ত-সংশ্লিষ্টরা  জানান, আরিফ ও সাবরিনার মোবাইল ফোন ঘেঁটে অনেক তথ্য পেয়েছে তদন্তকারী দল।যদিও সাবরিনা এবং আরিফ আগে থেকেই  মোবাইল ফোন থেকে বিভিন্ন অ্যাপস ডিলিট  করে দেন। এরপর প্রযুক্তির সহায়তায় সেগুলো উদ্ধার করেছে তদন্ত সংস্থা। এরপর রিমান্ড থাকা অবস্থায় দুজনকে মুখোমুখি করা হয়। যা থেকে প্রমান পাওয়া যায়  অপরাধের সঙ্গে উভয়ের যথেষ্ট সংশ্লিষ্টতা রয়েছে। দুজনই অভিযুক্ত হিসেবে প্রমাণিত হয়েছেন। তাছাড়া যেখানে করোনার নমুনা পরীক্ষার নামে ভুয়া রিপোর্ট তৈরি করা হতো, সেসব ল্যাপটপ জব্দ করা হয়েছে। তারা কাদের কাছ থেকে নমুনা সংগ্রহ করেছিলেন, তাদের নথি এবং এগুলোর মধ্যে কোন কোন নমুনা স্বাস্থ্য অধিদফতরে পাঠানো হয়েছিল, আর কোনগুলো পাঠানো হয়নি সেসব তথ্য-উপাত্ত সংগ্রহ করেছেন তদন্ত-সংশ্লিষ্টরা।

গোয়েন্দারা জানান, যাদের যাদের নমুনা পরীক্ষা না করেই মনগড়া রিপোর্ট দেওয়া হয়েছে, সেসব ভুক্তভোগীদেরও একটি তালিকা করা হয়েছে। তৈরি করা ভুয়া রিপোর্টের ফরম্যাট ও গ্রাফিক্স ডিজাইন জেকেজির সাবেক কর্মী হুমায়ুন কবিরের হাতে বানানো বলেও স্বীকারোক্তি নেওয়া হয়েছে। কার কার কাছ থেকে নমুনা পরীক্ষার নামে কত করে টাকা নেওয়া হয়েছে সেই হিসাবের খাতাও এখন গোয়েন্দাদের হাতে। প্রতারণার টাকা কোথায় রাখা হয়েছে এবং কোন ক্ষেত্রে ব্যয় করা হয়েছে সেই বিল-ভাউচারও সংগ্রহ করেছেন তদন্ত কর্মকর্তারা।

১৫ হাজার ৪৬০টি ভুয়া কভিড-১৯ রিপোর্ট দেওয়ার অভিযোগে গত ২৩ জুন প্রধান নির্বাহী আরিফুল হক  চৌধুরীসহ জেকেজির ছয় কর্মীকে গ্রেফতার করা হয়। এরপর একই অভিযোগে ১২ জুলাই প্রতিষ্ঠানটির চেয়ারম্যান ও আরিফের স্ত্রী ডা. সাবরিনা আরিফ চৌধুরীকেও গ্রেফতার করে পুলিশ।  ডিবি পুলিশের রিমান্ড শেষে সাবরিনা ও আরিফ দুজনই এখন কারাগারে। 
 

এই বিভাগের আরো খবর

জাতীয় সংসদের একাদশ অধিবেশন শুরু

নিজস্ব প্রতিবেদক: একাদশ জাতীয় সংসদের...

বিস্তারিত
২৬শে মার্চ বীর মুক্তিযোদ্ধাদের চূড়ান্ত তালিকা

নিজস্ব প্রতিবেদক: ফেব্রুয়ারির প্রথম...

বিস্তারিত
দেশে আসার প্রথম সপ্তাহে টিকা প্রয়োগ শুরু

নিজস্ব প্রতিবেদক: আগামী ২৫ থেকে ২৬শে...

বিস্তারিত
২৩ জানুয়ারি থেকে সারাদেশে জনশুমারি শুরু

নিজস্ব প্রতিবেদক: আগামী ২৩ জানুয়ারি...

বিস্তারিত
একাদশ জাতীয় সংসদের একাদশ অধিবেশন আজ

নিজস্ব প্রতিবেদক: একাদশ জাতীয় সংসদের...

বিস্তারিত
নাটোর পৌরসভার নির্বাচন স্থগিত

নাটোর সংবাদদাতা: নাটোর পৌরসভার...

বিস্তারিত
খসড়া ভোটার তালিকা প্রকাশ

নিজস্ব প্রতিদবেদক: ২০২০ সালের খসড়া...

বিস্তারিত
২৭শ’ কোটি টাকার নতুন প্রণোদনা প্যাকেজ

নিজস্ব প্রতিবেদক: করোনা অতিমারির...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *