লোকগানের প্রাণপুরুষ কালিকাপ্রসাদ আর নেই আপডেট: ১০:২৭, ১১ মার্চ ২০১৭

সড়ক দুর্ঘটনায় মারা গেছেন ভারতের পশ্চিমবঙ্গের জনপ্রিয় লোকসঙ্গীত শিল্পী, গানের দল 'দোহার'-এর কর্ণধার কালিকাপ্রসাদ ভট্টাচার্য।

আজ মঙ্গলবার কলকাতা-দুর্গাপুর এক্সপ্রেসওয়ে দিয়ে কলকাতা থেকে সিউড়িতে যাওয়ার পথে হুগলির গুড়াপে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে একটি লরি পেছন থেকে তাঁদেরকে বহনকারী গাড়িতে ধাক্কা দিলে, গুরুতর আহত হন কালিকাপ্রসাদ-সহ আরও চারজন শিল্পী। পরে স্থানীয়দের সহায়তায় তাঁদেরকে বর্ধমান হাসপাতালে নেয়া হলে, কালিকাপ্রসাদকে মৃত ঘোষণা করেন কর্তব্যরত চিকিৎসক।

কন্ঠের মূর্ছনা আর লোকসঙ্গীতের দর্শন—দুইয়ের মিশেলে সৃষ্ট পশ্চিমবঙ্গ তথা বাংলা লোকগানের পথিকৃৎ দল ‘দোহার’। তবে সুরের খেলাকে পশ্চিম আকাশে অস্তমিত করে সড়ক দুর্ঘটনার করাল থাবায় না ফেরার দেশে চলে গেলেন দোহার ব্যান্ডের দলনেতা কালিকাপ্রসাদ ভট্টাচার্য।

বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের প্রেক্ষাপটে নির্মীত ও সম্প্রতি মুক্তিপ্রাপ্ত ছবি ‘ভুবন মাঝি’র সঙ্গীত পরিচালনা করেছেন জনপ্রিয় এই শিল্পী। দোহার ব্যান্ড দলের প্রধান এই গায়কের মৃত্যুতে শোকের ছায়া নেমে এসেছে সংস্কৃতি অঙ্গনে। শোক জানিয়েছেন পশ্চিমবঙ্গের মূখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়
১৯৯৯ সালে গানের দল হিসেবে পথ চলা শুরু করে দোহার। ইট-কাঠ-কংক্রিটের দালানের ভিড়ে আটকে থাকা শহুরে মানুষের কাছে বাংলা লোকগানের বার্তা পৌঁছে দেয়াই দলটির লক্ষ্য। দলের কর্ণধার কালিকাপ্রসাদ ভট্টাচার্যের সেই পথ চলা থেমে গেল বড় অবেলাতেই। বাউল, ভাটিয়ালি, চটকা, ঝুমুর, সারিগানের মায়াজালে আটকে থাকা পাখিটি এবার ছেড়ে চলে গেলো দেহের খাঁচা।
বাংলা লোকব্যান্ড দোহারের এই গায়কের মৃত্যুতে শোকের ছায়া পুরো পশ্চিমবঙ্গে। গুণী এই শিল্পীর আকস্মিক মৃত্যুতে পশ্চিমবঙ্গের মূখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় ছাড়াও শোক প্রকাশ করেছেন সঙ্গীত পরিচালক শান্তনু মৈত্র, কবির সুমন, সুরজিৎ চট্টোপাধ্যয়, উষা উত্থুপ ও শ্রাবণী সেনসহ পশ্চিমবঙ্গের সঙ্গীতাঙ্গন। 
সর্বস্তরের মানুষের শ্রদ্ধা জানানোর উদ্দেশ্যে আজ মঙ্গলবার বিকেল ৪টা থেকে ৬টা পর্যন্ত রবীন্দ্রসদনে রাখা হয়েছে কালিকাপ্রসাদের মরদেহ।