লোকজনকে ঘরে রাখতে চলছে সেনা-পুলিশের টহল

প্রকাশিত: ১২:২৮, ২৬ মার্চ ২০২০

আপডেট: ০৩:১১, ২৬ মার্চ ২০২০

অনলাইন ডেস্ক: করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে  সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা ও লোকজনকে ঘরে রাখতে টহল জোরদার করে মাঠ পর্যায়ে কাজ করছে সশস্ত্রবাহিনী। সারাদেশের পাড়া-মহল্লা ও প্রধান প্রধান সড়কে টহল দিচ্ছে পুলিশ ও সেনাবাহিনীর যৌথ দল। স্থানীয়  প্রশাসনকে সাথে নিয়ে কাজ করছেন তারা।

এদিকে, আজ বৃহস্পতিবার (২৬ মার্চ) থেকে ঢাকার রাস্তায় চলাচল নিয়ন্ত্রণ করছে পুলিশ। এ সময় সেনাবাহিনীও মাঠে রয়েছে। প্রয়োজন ছাড়া কাউকে রাস্তায় থাকতে দেওয়া হচ্ছে না। কেউ বের হলে তাঁকে পুলিশের জেরার মুখে পড়তে হচ্ছে। তবে সংবাদপত্রসহ জরুরি সেবাগুলো এর আওতামুক্ত রয়েছে।


গত বুধবার থেকে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে কাজ শুরু করেছে সশস্ত্র বাহিনী। রাজধানী ঢাকার বিভিন্ন এলাকায় গিয়ে নাগরিকদের সঙ্গনিরোধ বিষয়টি নিশ্চিত করেছে তারা। 
আজ সরেজমিনে দেখা গেছে, রাজধানীর বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে দোকান ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ করে দিচ্ছে সেনাবাহিনী। এ সময় গুরুত্বপূর্ণ মোড়গুলোতে করোনাভাইরাস নির্মূল করতে সচেতনতামূলক মাইকিং করে প্রচারণা চালাচ্ছেন তারা।

মাইকিংয়ে সেনাবাহীনির পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে, ‘করোনা প্রতিরোধে মাস্ক ব্যবহার করুন, দোকানপাট বন্ধ রাখুন, বাসায় অবস্থান করুন অযথা রাস্তাঘাটে ঘোরাফেরা করবেন না।’

পুরান ঢাকার রায় সাহেব বাজের নিত্যপণের বাইরে দোকানপাট খোলা রাখায় বেশ কয়েকটি দোকান বন্ধ করে দিয়েছে সেনাবাহিনী। মহল্লা-মহল্লায় ও অলিগলিতে ঢুকে মানুষকে ঘরে থাকার অনুরোধ জানাচ্ছেন তারা। রাজধানীজুড়ে টহল দিচ্ছেন সেনাসদস্যরা।

সেনাসদস্যরা সিভিল প্রশাসনের সঙ্গে বর্তমান পরিস্থিতি মোকাবেলায় কাজ করছে। প্রাথমিকভাবে তারা বিদেশফেরত যারা হোম কোয়ারেন্টাইন মেনে চলছে না, তাদের তদারক করছে। মূলত তাদের হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখার পাশাপাশি ৫-৭ জনের বেশি লোক যাতে জড়ো না হয় এবং জরুরি প্রয়োজনে বের হওয়া লোকজন যাতে নির্দিষ্ট দূরত্ব মেনে চলাফেরা করে- সেটা নিশ্চিত করছে সেনাবাহিনী।

এই বিভাগের আরো খবর

২৪ ঘণ্টায় সর্বোচ্চ আক্রান্ত ২০২৯, মৃত্যু ১৫

নিজস্ব প্রতিবেদক: প্রাণঘাতি করোনা...

বিস্তারিত
দেশে করোনা সংক্রমণ দীর্ঘমেয়াদী হওয়ার আশংকা

শাহনাজ ইয়াসমিন: প্রতিরোধ ব্যবস্থা বা...

বিস্তারিত
ইউনাইটেড হাসপাতালে আগুন, তদন্ত কমিটি গঠন

নিজস্ব প্রতিবেদক: রাজধানীর গুলশানে...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *