স্ত্রীর অভিমান ভাঙাবেন যে ভাবে

প্রকাশিত: ০৫:৪৩, ২৫ মার্চ ২০২০

আপডেট: ০৫:৪৩, ২৫ মার্চ ২০২০

অনলাইন ডেস্ক: দাম্পত্য জীবনের শুরুতে যত নতুনের মোড়ক থাকে, একসঙ্গে অনেকদিন থাকতে থাকতে সম্পর্কের রসায়নে আর সেই চাকচিক্য থাকে না বলেই বেশিরভাগ মানুষ মনে করেন। টুকটাক তর্ক বিতর্ক, মতান্তর, অভিমান জন্মানো খুবই স্বাভাবিক। এই রাগ ও অভিমান একে অন্যের প্রতি ভালোবাসা আরও গভীর করে। দুজন মানুষের নিজস্ব মত, চিন্তাভাবনা ও জীবনযাপনের পন্থাই দীর্ঘ দাম্পত্যে নানা দূরত্ব তৈরি করে বসে বলে মনে করেন মনোবিদরাও।

তাই স্বামী বা স্ত্রী যেই রাগ বা অভিমান করুন না কেন? একে অপরের রাগ ভাঙাতে হবে। তবে কিছু ক্ষেত্রে দেখা যায় দুজনের রাগই মাত্রা ছাড়িয়ে যায়। এসব ক্ষেত্রে সম্পর্কে সুতোয় টান পড়ে। আবার অনেক সময় দেখা যায়, বহু দাম্পত্য প্রেমে স্ত্রী কথায় কথায় মাথা গরম করে ফেলেন। তবে এই সমস্যার অবশ্যই সমাধান প্রয়োজন। আসুন জেনে নিই স্ত্রীর রাগ ভাঙাতে কী করবেন-

১. রাগ কমাতে বিভিন্ন রকমের যোগাভ্যাস রয়েছে। এসব করলে সহজেই রাগ কমানো যায়। মাৎস্যাসন, সুখাসন, শবাসন করার পরামর্শ দেন বহু শাস্ত্রজ্ঞ।

২. প্রতিটি নারীর কিছু দুর্বল জায়গা থাকে। কিছু কিছু সাধারণ বিষয় থাকে যাতে আপনার বধুটি খুব অল্পতে পটে যায়। খুঁজে খুঁজে তার একটি তালিকা তৈরি করে নিন। নিয়মিত তা মেনে চলার চেষ্টা করুন।

৩. মানুষ যখন প্রচণ্ড রেগে যান, তখন কোনো কথা সে শুনতে পছন্দ করবে না। তাই কথা না বলে শুধু তার দিকেই দৃষ্টি রাখুন। এমন কিছু করবেন না যাতে সে রেগে যায়। আবার তার রাগকে তাচ্ছিল্যও করবেন না। রেগে গেলে তর্ক বা পাল্টা যুক্তি উপস্থাপন করবেন না বরং তার সঙ্গে আন্তরিক হওয়ার চেষ্টা করুন। মনে রাখবেন, অনেক সময় রাগান্বিত অবস্থায় কোনো যুক্তি উপস্থাপন করলে তা আরও রাগের কারণ হয়ে দাঁড়ায়। আস্তে করে তার পাশে বসুন, স্ত্রী শান্ত না হওয়া পর্যন্ত কিন্তু ভুলকরেও রাগের বিষয় জানতে চাইবেন না। রাগের কারণ জানার জন্য কিছু সময় অপেক্ষা করুন যতক্ষণ না আপনার স্ত্রী শান্ত বা প্রাণবন্ত না হয়।

৪. অনেক সময় স্ত্রী আবেগ প্রকাশের জন্যও রাগ দেখায়। বিশ্বজুড়ে এটি স্ত্রীদের একটি বিশেষ বৈশিষ্ট। তার রাগের কারণ হতে পারে আপনার আচরণ, চাকরি কিংবা  খোঁচা মেরে কথা বলা। আবার এও হতে পারে, সে যা বলে তা সম্পর্কে নিজেও অবহিত নয়। এসময় তাকে শান্ত করার চেষ্টা করুন। পরবর্তীতে দুজনে বিষয়টি নিয়ে বসুন, নতুন করে হাল ধরুন। মনে রাখবেন, ভুলেও কখনো স্ত্রীর গায়ে হাত তুলবেন না। এটি কাপুরুষতার অন্যতম লক্ষণ বলে গণ্য করা হয়।

৫. মনে রাখবেন, অধিকাংশ নারী রেগে গেলে তা মুখে প্রকাশ করে। এটি তাদের হরমোনের কারণে হয়ে থাকে। আপনি যদি রাগের সময় তাকে শান্ত হতে সাহায্য করেন তাহলে সে পরবর্তীতে শুধু আপনার কাছে শান্তির জন্য সব বলবে। আর ঝগড়া তাকে বিরক্ত ও হতাশ করবে।

৬. মাথা গরম হলে স্ত্রী আপনাকে দোষারোপ করবেন, এটিই স্বাভাবিক। চুপচাপ সব দোষারোপ মেনে নেবেন না। পরিস্থিতি একটু শান্ত হলে বোঝান, তার রাগের সব দায় আপনার নয় এবং সাংসারিক সব ত্র“টিবিচ্যুতির দায়ও আপনি নেবেন না।

৭. রাগ নিয়ন্ত্রণের জন্য ঘোরাঘুরি বেশ ভালো একটি মাধ্যম। রাগ হোক আর মন খারাপ হোক- ঘুরতে যান প্রিয় কোনো জায়গায়। হারিয়ে যান প্রকৃতির মাঝে। দেখুন রাগ কমবে মনও ভালো থাকবে।

৮. ঘরের আলোর রঙ, বেডরুমের রঙ সম্ভব হলে হালকা সবুজ রাখতে পারেন। এতে স্ত্রীর দিনভরের কাজের চাপের ক্লান্তি কমবে। আর স্ত্রীর রাগ কমাতে সাহায্য করে।

৯. সবরকম আলাপ-আলোচনা, বোঝানোর চেষ্টা ব্যর্থ হলে পেশাদার কাউন্সেলিং ছাড়া উপায় নেই। আর উনি যদি থেরাপির সাহায্য নিতে সম্মত না হন, তা হলে সম্পর্কের ভবিষ্যৎ নিয়ে আপনাকেই ভাবনাচিন্তা শুরু করতে হবে।

১০. আপনি আপনার স্ত্রীর মতের সঙ্গে একমত নন কিন্তু শান্ত করার জন্য একমতের ভান করতে পারেন। তাকে শুধু প্রকাশ করুন তার কথার সঙ্গে আপনি একমত। হতে পারে তা আপনার মাথা নাড়ানোর মাধ্যমে, মাঝেমধ্যে তাকে প্রকাশ করুন আপনার বশ্যতা। রাগের সময় এমন কিছু করবেন না যাতে সে আরও রেগে যায়। যত তাড়াতাড়ি সম্ভব তার রাগ থামিয়ে শান্ত করতে হবে।

এই বিভাগের আরো খবর

স্ত্রীর অভিমান ভাঙাবেন যে ভাবে

অনলাইন ডেস্ক: দাম্পত্য জীবনের শুরুতে...

বিস্তারিত
ঘরে বসেই তৈরি করুন মজাদার ফ্রুট পুডিং

অনলাইন ডেস্ক: হালকা নাস্তার জন্য...

বিস্তারিত
সারাদিন সতেজ থাকতে গোসলে যা করবেন

অনলাইন ডেস্ক: শীত যেতে না যেতেই...

বিস্তারিত
যেভাবে বানাবেন মজাদার ‘ফিশ কেক’

অনলাইন ডেস্ক: ফিশ কেক খুবই সুস্বাদু...

বিস্তারিত
তারুণ্য ধরে রাখে ডাবের পানি

অনলাইন ডেস্ক: ডাবের পানি আমাদের...

বিস্তারিত
ভেজা চুলে ঘুমালে যে সমস্যা হয় 

অনলাইন ডেস্ক: ছোটখাটো কিছু ভুলের...

বিস্তারিত
চিকেন চাপলি কাবাব বানাবেন কিভাবে

অনলাইন ডেস্ক: সেই মুঘল আমল থেকেই...

বিস্তারিত
রাশিয়ান সালাদ বানাবেন যেভাবে

অনলাইন ডেস্ক: একই রকমের বোরিং সালাদ...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *