বান্দরবানের দূর্গম এলাকায় কমিউনিটি ক্লিনিক চালু

প্রকাশিত: ০৯:২৪, ১৯ মার্চ ২০২০

আপডেট: ১১:০৬, ১৯ মার্চ ২০২০

নিজস্ব প্রতিবেদক: বান্দরবানের লামার দূর্গম পোপা মৌজায় চালু করা হয়েছে কমিউনিটি ক্লিনিক। এর মধ্য দিয়ে স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত হলো দূর্গম ওই এলাকার ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর ৫ হাজারেরও বেশি মানুষের। দীর্ঘদিনের দাবির পর এমন সুবিধা পেয়ে খুশি পাহাড়ী জনপদের এসব মানুষ।

পার্বত্য বান্দরবানের লামা উপজেলা সদর থেকে প্রায় ২০ কিলোমিটার দূরের দূর্গম পাহাড়ি জনপদ পোপা মৌজা। পোপা হেডম্যানপাড়াসহ এখানকার ১০টি পল্লীতে বাস করে মারমা, ত্রিপুরা ও ম্রো সম্প্রদায়ের ৫ হাজারেরও বেশি মানুষ। তবে স্বাধীনতার দীর্ঘ ৪৯ বছরেও চিকিৎসার মতো মৌলিক অধিকার থেকে বঞ্চিত ছিলো তারা। রোগবালাইয়ে আক্রান্ত হলে কবিরাজের দাওয়াই ছিলো একমাত্র ভরসা। মুজিববর্ষ উপলক্ষে গেলো ১৫ মার্চ পোপা মৌজায় এবং ১৬ মার্চ বেতছড়ায় আরেকটি কমিউনিটি ক্লিনিক চালু হয়েছে। দীর্ঘ দাবির পর এই সুবিধা পেয়ে উচ্ছ্বসিত স্থানীয়রা।

স্থানীয়রা জানান, দূর্গম এলাকা হওয়ায় নারী ও শিশুদের অসুখ হলে সহসা চিকিৎসা পাওয়া যেতনা। সবচেয়ে বেশি ভোগান্তি হতো গর্ভবর্তী নারীদের।

জেলা সিভিল সার্জন জানিয়েছেন, এই কমিউনিটি ক্লিনিক থেকে প্রাথমিক স্বাস্থ্যসেবা পাবে প্রত্যন্ত এই অঞ্চলের মানুষেরা।

প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ উদ্যোগে কমিউনিটি ক্লিনিক প্রকল্পের আওতায় তিন পার্বত্য জেলার দূর্গমাঞ্চলে এ পর্যন্ত ৬টি ক্লিনিক চালু করা হয়েছে বলে জানান স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের চট্টগ্রাম বিভাগীয় প্রধান ফারুক আহাম্মদ।

যদিও বান্দরবানের অন্যান্য এলাকার কমিউনিটি ক্লিনিকে চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীদের অনুপস্থিতির অভিযোগ রয়েছে। নতুন এই ক্লিনিকে তেমন দুরাবস্থা যাতে না হয় সে বিষয়ে দৃষ্টি রাখার আহবান স্থানীয়দের।

 

এই বিভাগের আরো খবর

শরীয়তপুরে করোনা উপসর্গ নিয়ে নারীর মৃত্যু

ডেস্ক প্রতিবেদন: শরীয়তপুরে করোনা...

বিস্তারিত
সিংগাইরে একজন করোনা আক্রান্ত

মানিকগঞ্জ সংবাদদাতা: মানিকগঞ্জের...

বিস্তারিত
করোনার প্রভাবে বিপাকে সাম্পান মাঝিরা

চট্টগ্রাম সংবাদদাতা: করোনা ভাইরাসের...

বিস্তারিত
নেচে গেয়ে করোনা বিষয়ে সচেতন করছেন ওসি

সাতক্ষীরা সংবাদদাতা: করোনা ভাইরাসের...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *