সময় ফুরিয়ে আসছে বইমেলার, বেড়েছে ভিড়

প্রকাশিত: ০৯:২২, ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২০

আপডেট: ০৪:২৮, ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২০

নিজস্ব প্রতিবেদক : ছুটির দিনে জমজমাট অমর একুশে গ্রন্থমেলা। সকালে ক্রেতাসমাগম কিছুটা কম থাকলেও বিকেলে বেড়েছে বই প্রেমীদের আনাগোনা। ভালো বেচাকেনা হওয়ায় খুশি প্রকাশকরা। শনিবার সকালে শিশু প্রহরে ভিড় জমেছিলো ক্ষুদে পাঠকদের। তাদের পছন্দের তালিকায় শীর্ষে ছিলো ভিনদেশি সব বই। লেখকদের অভিযোগ, লাভের আশায় নিজস্ব সংস্কৃতির পরোয়ানা না করে, প্রকাশকরা এসব বই বিক্রি করছেন। 

অমর একুশে গ্রন্থ মেলা এখন শেষের পথে। তাই প্রতিদিনই ভিড় জমছে পাঠক-লেখক-দর্শনার্থীর। শনিবার ছুটির দিন থাকায় সেই ভিড় বেড়ে যায় কয়েকগুন। চলছে বই দেখা ও যাচাইবাছাই শেষে কেনাকাটা। স্টলগুলোতে ব্যস্ত ক্রেতা ও বিক্রেতা উভয়েই। 

ছুটির দিনের সকালে ‘শিশু প্রহরে’ বাঁধ ভাঙ্গা আনন্দে মেতে ওঠে ছোট্ট সোনামনিরা। সিসিমপুরের প্রিয় চরিত্রের সাথে খেলে বেজায় খুশি তারা। এজন্য সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে শিশু চত্বরে সকাল থেকেই অভিভাবকদের হাত ধরে ছুটে আসে শিশু-কিশোররা। মেলায় ঘোরাঘুরির পাশাপাশি কিনে নেয় পছন্দের সব বই। 

তবে, অধিকাংশ শিশুদের প্রথম পছন্দ বিদেশি বই। টেলিভিশন কিংবা ইন্টারনেটে দেখা কার্টুনের চরিত্রগুলোর আলোকে বানানো বই কিনছে তারা। লেখকরা বলছেন, কাটতি বেশি থাকায় বিদেশি বই বাজারে আনছেন প্রকাশকরা। সাথে জুড়ে দেয়া হচ্ছে চমকপদক কার্টুন এবং রঙিন মলাট। এদিকে, প্রকাশকরা বলছেন, এমন বইয়ের প্রভাব এড়াতে অভিভাবকদের সচেতনতার বিকল্প নেই। 
 

এই বিভাগের আরো খবর

প্রাণের মেলায় বিদায়ের সুর

নিজস্ব প্রতিবেদক : সময় যতই ফুরিয়ে...

বিস্তারিত
প্রেম ও প্রেমহীনতার কথা "ফ্রকের ঘেরে শৈশব"

ফাহিম মোনায়েম: জান্নাতুল কেকা পেশায়...

বিস্তারিত
শামস সাঈদের  " মুজিবের গল্প শোন"

ফাহিম মোনায়েম: খোকার হাতে একটা...

বিস্তারিত
পারিবারিক উপন্যাস "হ্যাঁ"

ফাহিম মোনায়েম: হ্যাঁ একটি পারিবারিক...

বিস্তারিত
মালা ভৌমিকের "অনুভুতির অনুকাব্য"

ফাহিম মোনায়েম: বইমেলার বাকি আর...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *