ঐতিহ্যের রোমাঞ্চে ভরপুর রোম 

প্রকাশিত: ০৭:৪৪, ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০

আপডেট: ০৭:৪৪, ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০

অনলাইন ডেস্ক: রোমের ইতিহাস আড়াই হাজার বছরের বেশি পুরোনো। যদিও খ্রিষ্টপূর্ব ৭৫৩-এর কাছাকাছি সময়ে রোম প্রতিষ্ঠার সময়কাল থেকে রোমান পুরাণ উল্লেখিত, এই অঞ্চলে অনেক আগে থেকে মানব বসতি ছিলো, যার ফলে এটি ইউরোপের প্রাচীনতম অধ্যুষিত শহরগুলোর অন্যতম। লাতিনদের একটি মিশ্রণ থেকে শহরের প্রথম দিকের জনসংখ্যা সম্ভূত, এত্রুস্কান এবং সাবিন্স। 

অতপর, শহরটি ধারাবাহিকভাবে রোমান রাজ্য, রোমান প্রজাতন্ত্র ও রোমান সাম্রাজ্য-এর রাজধানীতে পরিণত হয়, এবং পাশ্চাত্য সভ্যতার জন্মস্থান হিসাবে একে গণ্য করা হয়। রোম, ইতালীয় রেনেসাঁসের প্রধান কেন্দ্র হয়ে ওঠেছিল । শুধু তাই না রোম পৃথিবীর ১৮-তম সবচেয়ে বেশি ভ্রমণকারীর শহরে পরিণত হয়েছে।   

প্রাচীন রোমানদের বিশ্বাস ছিল গোটা বিশ্বে যাই ঘটুক না কেন রোম শহরটি অনন্তকাল টিকে থাকবে। দারুণ সব খাবার আর ঐতিহাসিক স্থাপত্যের কারণে ইটালির রাজধানী রোম গোটা বিশ্বের পর্যটকদের কাছে আকর্ষণীয় এক স্থান। 

ইউরোপিয়ান দেশগুলোর মধ্যে রোম শহরটি পর্যটকদের পছন্দের তালিকায় তিন নম্বরে আছে। এছাড়া গোটা বিশ্বে এর অবস্থান ১৪ তম। যাদের প্রাচীন ঐহিত্য কিংবা প্রত্নতাত্তিক স্থানগুলোর প্রতি আকর্ষণ আছে তারা ঘুরবার জন্য শহরটি বেছে নেন। এখানকার প্রাণবন্ত জীবনধারা ও ঐতিহাসিক স্থাপনা  আকৃষ্ট করে পর্যটকদের।   

রোম নগরীর পথে হাঁটলে যেকোনো পর্যটক বিমোহিত হবেন এর ঐতিহ্যবাহী স্মৃতিস্তম্ভগুলো দেখে। কলোসিয়াম, রোমান ফোরাম এবং প্যানথিয়নের মতো প্রাচীন আইকনগুলি এ শহরের স্বর্ণযুগকে মনে করিয়ে দেবে। 

বিশ্বের খুব কম শহরই আছে যা শৈল্পিক স্থাপত্যের দিক দিয়ে রোমের সঙ্গে প্রতিযোগিতা করতে পারবে। 

ঘোরাঘুরি ছাড়াও পর্যটকদের কাছে রোমের খাবার দারুণ প্রিয়। এখানকার পিৎজা, পাস্তার খ্যাতি রয়েছে বিশ্ব জুড়ে। এছাড়া রোমের কফির স্বাদও বিশ্বখ্যাত। সারা বছর রোমে যাওয়া গেলেও এখানে ভ্রমণের সবচেয়ে সেরা সময় সেপ্টেম্বর থেকে নভেম্বর।
 

এই বিভাগের আরো খবর

একটি দ্বীপে একটি বাড়ি

অনলাইন ডেস্ক: চারিদিকে সমুদ্র, ছোট...

বিস্তারিত
কম টাকায় ভ্রমণ করুন খৈয়াছড়া ঝর্ণায়

অনলাইন ডেস্ক: ঢাকার কমলাপুর বা...

বিস্তারিত
যে কারণে পর্যটক টানছে লাউড়ের গড়

অনলাইন ডেস্ক: প্রাচীন লাউর রাজ্যের...

বিস্তারিত
বাংলাদেশীদের বিদেশযাত্রা নেমেছে অর্ধেকে

রীতা নাহা: করোনা ভাইরাসের আতঙ্কে চীনে...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *